পরিপক্ব না হওয়ায় নামানো হচ্ছে না রাজশাহীর আম

শরীফ সুমন, সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আম।

walton

রাজশাহী: চলতি মৌসুমে গাছ থেকে আম নামানোর জন্য নির্ধারিত দিন ছিল শুক্রবার (১৫ মে)। কিন্তু রাজশাহীর কোনো বাগানের গাছ থেকে এদিন আম নামানো হয়নি। আমচাষি ও ব্যবসায়ীরা বলছেন, পরিপক্বতা না আসায় তারা আম নামাচ্ছেন না। আমের আঁটি শক্ত হতে আরও সপ্তাহখানেক অপেক্ষা করতে হবে। আর কৃষকদের এ সচেতনতার বিষয়টি ইতিবাচক হিসেবেই দেখছে রাজশাহী কৃষি বিভাগ।

রাজশাহী পবা উপজেলার মথুরা গ্রামের আমচাষি নুরুল আমিন বলেন, আম পাড়ার সময় নির্ধারণ করাটা একটা আরোপিত বিষয়। তবে আবহাওয়ার কারণে আম সময়ের আগে-পরেও পাকতে পারে। ভালো বৃষ্টি হলে আম পুষ্ট হতে ও পাকতে একটু বেশি সময় লাগে। আবার খরার কবলে পড়লে আগেই পরিপক্ব হয়ে যায়। তাই দিন নির্ধারণ করে না দিয়ে বিষয়টা চাষিদের ওপরই ছেড়ে দেওয়া উচিত। গুটিজাতের আম পুষ্ট হতে আরও প্রায় এক সপ্তাহ অপেক্ষা করতে হবে। জাত আম গোপালভোগসহ অন্য জাতের যেসব আম আছে সেগুলো একটু দেরিতেই উঠবে এবার।

রাজশাহীর তানোর উপজলার কামারগাঁ ইউনিয়নের মাদারীপুর গ্রামের আমচাষি সাইদুল আলম বলেন, জেলা প্রশাসনের সময় বেঁধে দেওয়ার কারণে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে চাষিরাই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। আর এসময় বেঁধে দেওয়ার ঘটনা শুধু রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জের আমের ক্ষেত্রেই করা হচ্ছে। অথচ সাতক্ষীরা, কুষ্টিয়া, যশোর রংপুরের আমের ক্ষেত্রে করা হচ্ছে না।

আমচাষি নুরুল আমিন উল্লেখ করে বলেন, এখন ঢাকাতে প্রচুর হলুদ রঙের আম দেখা যাচ্ছে। দেখে মনে হচ্ছে সবই পাকা। কিন্তু কাটলে দেখা যাচ্ছে ভেতরের আঁটিই কাঁচা (পরিপক্ব হয়নি)। আর ওই আম স্বাদেও টক। এসব আম অন্য জেলার হলেও রাজশাহীর বলে চালানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। মূলত কেমিক্যাল দিয়ে ওইসব আম পাকানো বা হলুদ রঙ ধরানো হচ্ছে। তবে ভেতরে কাঁচাই থাকছে।

এদিকে ব্যবসায়ীরা বলছেন, আবহাওয়াগত কারণে রাজশাহী থেকে এক বা দুই সপ্তাহ পরে আম পরিপক্ব হয় চাঁপাইনবাবগঞ্জে। পাশের জেলা নওগাঁতে এখন অনেক আম দেরিতে পরিপক্ব হয়। বাগানেই অনেকটা সময় থাকা প্রায় সব আমই আম্রপালি। সেগুলো মৌসুমের অনেক দেরিতে উঠে। আর আশ্বিনা জাতের আম এখন থেকে দেড় থেকে দুই মাস পর বাজারে উঠবে। ফজলি আমটা জুনের শেষে আসবে। আসলে চাষিরা কখনোই আমে কোনো কেমিক্যাল দেন না। এসব ঢাকার বড় বড় আড়তে বা মোকামে দেওয়া হয়।

রাজশাহী মহানগরের ছোটবনগ্রাম এলাকার আম ব্যবসায়ী মিনারুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, এ আবহাওয়ায় আম পরিপক্ব হতে সময় লাগবে। এজন্য গাছ থেকে আম নামানোর দিন আরও অন্তত ১০ দিন করে পেছাতে হবে। কারণ এখনো ভালো করে আমের আঁটিই হয়নি। এজন্য তারা শুক্রবার আম নামাচ্ছেন না।

তবে পরিপক্ব না হওয়ায় গাছ থেকে এদিন আম না নামানোর এ সিদ্ধান্তের বিষয়টি ইতিবাচক হিসেবেই দেখছে রাজশাহী বিভাগ। 

আম।কৃষি কর্মকর্তারা বলছেন, কয়েক বছর থেকে আম নামানোর সময় বেঁধে দেওয়ার কারণেই কৃষকদের মধ্যে সচেতনতা এসেছে, এটি ভালো দিক।

রাজশাহী কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক শামসুল হক বাংলানিউজকে বলেন, গাছ থেকে আম নামানোর সময় বেঁধে দেওয়ার পর জেলা প্রশাসনের পাশাপাশি তাদের পক্ষ থেকেও মনিটরিং করা হচ্ছে। তবে তাদের কাছে শুক্রবার রাজশাহীর কোনো বাগান থেকে আম নামানোর তথ্য নেই।

তিনি বলেন, সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে- যেন অপরিপক্ব আম গাছ থেকে কোনোভাবে কেউ নামাতে না পারেন। তাই বেঁধে দেওয়া সময়েই আম নামাতে হবে এমন কোনো কথা নেই। আম পরিপক্ব হলেই কেবল কৃষকরা গাছ থেকে আম নামাতে পারবেন। এটি আমের পরিপক্বতা ও তাদের ইচ্ছার ওপরই নির্ভর করছে। সেক্ষেত্রে পরিপক্ব না হওয়ায় শুক্রবার আম না নামানোর বিষয়টি তারা ইতিবাচক হিসেবেই দেখছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক শামসুল হক বলেন, আবহাওয়ার তারতম্যের কারণেই এবার আম পরিপক্ব হতে সময় নিচ্ছে। এ বছর শীতকাল দীর্ঘায়িত হয়েছে। তাই দেরিতে মুকুল এসেছে গাছে। এছাড়া বৈশাখজুড়েই ঝড়-বৃষ্টি হয়েছে। ফলে আম পরিপক্ব হতে সময় লাগছে। তাই দেরিতে আম পরিপক্ব হলে চাষিরা দেরিতেই গাছ থেকে আম নামাবেন বলে আবার উল্লেখ করেন তিনি।

** শুক্রবার থেকে নামছে রাজশাহীর আম
 

বাংলাদেশ সময়: ১৩৫৪ ঘণ্টা, মে ১৫, ২০২০
এসএস/আরবি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: রাজশাহী
Nagad
শৈলকুপায় করোনা উপর্সগ নিয়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু 
সিরাজগঞ্জে ছাত্রলীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৪০
অবশেষে করোনা পজিটিভ ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট বোলসোনারো
ডিএসসিসিতে প্রথমবারের মতো ৩ প্যানেল মেয়র
পাংশায় কৃষককে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ


শোয়েব আখতারের মুখোমুখি হতে ভয় পেতেন শচীন!
পিরোজপুরে ভার্চ্যুয়ালি আদালত পরিচালনা বন্ধের দাবি
সিলেটে বৃদ্ধকে বেঁধে নির্যাতন, স্ত্রীসহ ৩ ছেলে আটক
চুরির জন্য তাদের টার্গেট বিকাশ ও মোবাইল দোকান
১৫৮ ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অভিযান, ৫ লাখ টাকা জরিমানা