কীর্তনখোলায় দুর্ঘটনাকবলিত যাত্রীরা বিকল্প নৌযানে ঢাকার পথে 

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

কীর্তনখোলায় দুর্ঘটনাকবলিত যাত্রীরা বিকল্প নৌযানে ঢাকার পথে। ছবি- বাংলানিউজ

walton

বরিশাল: বরিশালের কীর্তনখোলা নদীতে দুর্ঘটনাকবলিত এমভি শাহরুখ-২ লঞ্চের যাত্রীরা বিকল্প নৌযানে গন্তব্য ঢাকার উদ্দেশ্যে যাত্রা করেছে।

শনিবার (১৪ ডিসেম্বর) রাত সোয়া ১২টার দিকে এমভি পূবালী-১ লঞ্চে তারা ঢাকার পথে যাত্রা করে। বরিশাল নদী বন্দর কর্মকর্তা ও বিআইডব্লিউটিএ’র নৌ-নিরাপত্তা ও ট্রাফিক ব্যবস্থাপনা বিভাগের উপ-পরিচালক আজমল হুদা মিঠু সরকার বাংলানিউজকে এ ব্যাপারে নিশ্চিত করে।

আজমল হুদা জানান, শনিবার রাতে প্রায় সাড়ে ৩শ’ যাত্রী নিয়ে বরগুনা থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাচ্ছিল এমভি শাহরুখ-২ লঞ্চটি। পথে বরিশাল নদীবন্দর সংলগ্ন কীর্তনখোলা নদী দিয়ে যাওয়ার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা এমভি হাজী মো. দুদু মিয়া (রাঃ)-১ নামের একটি কার্গোর সঙ্গে এটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে লঞ্চের সামনের অংশের তলা ফেটে যায় ও সিমেন্ট তৈরির কাঁচামালবাহী (ক্লিংকার) কার্গোটি নদীতে ডুবে যায়।

এ ঘটনায় ঝুঁকি এড়াতে তাৎক্ষণিকভাবে চরকাউয়া খেয়াঘাট সংলগ্ন কীর্তনখোলা নদীতীরে নোঙ্গর করে লঞ্চের যাত্রীদের নামিয়ে দেওয়া হয়।

ঘটনার পরপরই বিআইডব্লিউটিএ, নৌ-পুলিশ, কোস্টগার্ড, ফায়ার সার্ভিস, মেট্রোপলিটন পুলিশ, সিটি করপোরেশন ও জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে যান ও উদ্ধারকাজসহ সার্বিক কার্যক্রম পরিচালনা করেন। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো হতাহত বা নিখোঁজের খবর পাওয়া যায়নি বলে জানান আজমল হুদা।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনার পর এমভি শাহরুখ-২ লঞ্চের যাত্রীদের নিরাপত্তাসহ সার্বিক দিক বিবেচনা করে বরগুনা থেকে ঢাকাগামী এমভি পূবালী-১ নামক অপর একটি লঞ্চে তাদের তুলে দেওয়া হয়।

দুর্ঘটনার ব্যাপারে বিস্তারিত জানতে চাইলে এ কর্মকর্তা বলেন, কার্গোর মাস্টারকে পাওয়া গেলেও লঞ্চের মাস্টারের সঙ্গে এখনো যোগাযোগ করা যায়নি। উভয়ের কাছ থেকে তথ্য পেলেই কী কারণে দুর্ঘটনা ঘটেছে তা জানা যাবে। এ ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে সর্বোচ্চ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান তিনি। 

এ ব্যাপারে বরিশাল সদর নৌ-থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রেজাউল ইসলাম জানান, লঞ্চের যাত্রীদের মধ্যে কারো হতাহত বা নিঁখোজ হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি। কার্গোটির ১১ আরোহীর কেউ নিঁখোজ হয়েছেন বলেও এখন পর্যন্ত জানা যায়নি। তবে কার্গোর ৪ স্টাফকে উদ্ধারের পর পুলিশি হেফাজতে রাখা হয়েছে।

এদিকে এ ঘটনার খবর জানতে পেরে বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আব্দুল্লাহ ঘটনাস্থলে যান ও দুর্ঘটনাকবলিত লঞ্চের যাত্রীদের খোঁজখবর নেন। তিনি দুর্ঘটনাকবলিত লঞ্চের যাত্রীদের নিরাপত্তাসহ সার্বিক বিষয়ে সহায়তা করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন।

রাতের বেলা যাত্রীবাহি নৌ-রুটে বাল্কহেড কার্গো চলাচলের নিয়ম নেই। তারপরও কীভাবে তারা চলছে এ বিষয়টি খতিয়ে দেখার পাশাপাশি দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়ার জন্য সুপারিশ করা হবে বলে জানান মেয়র। 

বাংলাদেশ সময়: ০২২০ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯
এমএস/এইচজে

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: বরিশাল
মুরগি-কবুতর পালনে স্বাবলম্বী ঠাকুরগাঁওয়ের রহিজুল
যাদের সঙ্গে কবিতার যোগ, তারা আত্মীয়: মুনমুন মুখার্জী
বিমানবন্দরে ১৫৩ কার্টন সিগারেট জব্দ
বার্সাকে হটিয়ে শীর্ষে রিয়াল মাদ্রিদ
শিক্ষক সংকটে বাগেরহাটের দুটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়


আন্তর্জাতিক মানের হচ্ছে মোংলা বন্দর, একনেকে উঠছে প্রকল্প
ঋষিধামে কুম্ভমেলা শুক্রবার
গ্র্যাজুয়েটদের চাকরির পথ দেখালো ইউজিসি
করোনা ভাইরাসে চীনে মৃত বেড়ে ৮০
পুকুরে মিললো পুলিশ পুত্রের মরদেহ