php glass

দ্রুত বিচার আইনের মেয়াদ বাড়ছে আরও ৫ বছর

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

প্রতীকী ছবি

walton

জাতীয় সংসদ ভবন থেকে: আরেক দফা দ্রুত বিচার আইনের মেয়াদ ৫ বছর বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। এ লক্ষ্যে জাতীয় সংসদে আইন-শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) (সংশোধন) বিল-২০১৯ উত্থাপন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জসান খান কামাল বিলটি উপস্থাপন করেন। এ সময় অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী। 

বিলটিতে দ্রুত বিচার আইনের মেয়াদ ৫ বছর বাড়িয়ে ২০২৪ সাল পর্যন্ত বহাল রাখার প্রস্তাব করা হয়েছে। বিলটি উত্থাপনের পর অধিকতর যাচাই-বাছাইয়ের জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংক্রান্ত সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়েছে। 

আগামী ৭ কার্য দিবসের মধ্যে স্থায়ী কমিটিকে বিলটি সস্পর্কে সংসদে দিতে বলা হয়েছে। সংসদের চলতি অধিবেশনেই এই বিলটি পাসের সম্ভাবনা রয়েছে। এর আগে দ্রুত বিচার আইনের বর্তমান মেয়াদ চলতি বছরের ৯ এপ্রিল শেষ হয়।

বিগত বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের সময় ২০০২ সালে এই দ্রুত বিচার আইন করা হয়। এটি সংসদে পাসের পর তা দুই বছরের জন্য কার্যকর করা হয়। 

এরপর বিভিন্ন সময়ে এ আইনের মেয়াদ দুই বছর করে কয়েক দফায় বাড়ায় সরকার। সর্বশেষ ২০১৪ সালে আরও পাঁচ বছর আইনটির মেয়াদ বাড়ানো হয়। 

এ বছর ৯ এপ্রিল আইনের মেয়াদ শেষ হওয়ার পর আরও ৫ বছর বাড়িয়ে ২০২৪ সাল পর্যন্ত  করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। 
 
বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, দেশের আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নয়নে দ্রুত ও কার্যকর ভূমিকা পালনের উদ্দেশ্যে চাঁদাবাজি, যানবাহন চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি, যানবাহনের ক্ষতিসাধন, স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তি বিনষ্ট করা, ছিনতাই, দস্যুতা, ত্রাস ও অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি, দরপত্র ক্রয়, বিক্রয়, গ্রহণ বা দাখিলে জোরপূর্বক বাধা প্রদান বা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি, ভয়-ভীতি প্রদর্শন ইত্যাদি গুরুতর অপরাধের দ্রুত বিচার নিশ্চিতকরণের মাধ্যমে দেশের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অধিকতর উন্নতির লক্ষ্যে আইন-শৃঙ্খলা বিঘ্নকারী অপরাধ (দ্রুত বিচার) আইন, ২০০২ প্রণয়ন জারি করা হয়েছিল। 

আইনটি করার সময় প্রথমে মেয়াদ দুই বছর করা হয়েছিল। পরবর্তীতে প্রয়োজনীয়তার নিরিখে ৬ বারে এর মেয়াদ বাড়িয়ে ১৫ বছর বাড়ানো হয়। সবশেষ ২০১৪ সালের ৭ এপ্রিল ৫ বছর বাড়িয়ে ১৭ বছর করা হয়। 

আইনের ধারাবাহিকতা রক্ষার্থে এবং দেশের সার্বিক আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখা ও অধিকতর উন্নতির জন্য এ আইনের মেয়াদ বাড়ানো প্রয়োজন বলে ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৬০৫ ঘণ্টা, জুন ২৫, ২০১৯ 
এসকে/এমএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: সংসদ অধিবেশন
উল্লাপাড়ায় ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১১
ইনডোর এশিয়া কাপ হকিতে বাংলাদেশের বড় পরাজয়
বাংলাদেশে পুরুষদের জন্য এলো রোমানোর বডি-স্প্রে 
মেহেরপুরে বাস ধর্মঘট প্রত্যাহার
বায়েজিদে শিক্ষার্থীদের ধর্ষণ বিরোধী মানববন্ধন


১৭ পদে নিয়োগ দেবে জিটিসিএল
আড়াইহাজারে শ্বশুরবাড়ি থেকে জামাতার মরদেহ উদ্ধার
আনু মুহাম্মদের হুমকিদাতাকে গ্রেফতার দাবি
অব্যাহত দরপতনে বিনিয়োগকারীদের ফের বিক্ষোভ
পল্লীনিবাসেই এরশাদকে দাফনের সিদ্ধান্ত, জানালেন কাদের