পাবনায় বহুতল ভবনে আগুন, পুড়ে গেছে ব্যাংকসহ ১৫ দোকান 

ডিস্ট্রিক্ট করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আগুন নেভাচ্ছো ফায়ার সার্ভিন কর্মীরা

পাবনা: পাবনায় মধ্য শহরে একটি বহুতল ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। এতে তিনটি ব্যাংকসহ ১৫টি দোকান পুড়ে গেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন পাঁচজন। 

সোমবার (২০ আগস্ট) ভোর সাড়ে ৫টার দিকে সাত্তার বিশ্বাস নামে একটি ভবনের নিচতলা থেকে এ আগুনের সূত্রপাত হয়।

শহরের আব্দুল হামিদ সড়কের বহুতল বাণিজ্যিক ভবনটিতে বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যাংক, শো-রুম ও রেস্তোরাঁ রয়েছে।
 
প্রর্তক্ষদর্শীরা জানান, ভোরে ওই ভবনে অগ্নিকাণ্ডে খবর পেয়ে তারা ঘটনাস্থলে এসে দেখতে পান অ্যাপেক্সের শো-রুমের মধ্য আগুন। এ সময় পাবনা ফায়ার সার্ভিস এলে কিছুক্ষণের মধ্যেই তাদের পানি ফুরিয়ে যায়। পরবর্তীতে ঈশ্বরদী ও আতাইকুলা ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ওই ভবনে যমুনা ব্যাংক, ফাস্ট সিকিউরিটি  ইসলামী ব্যাংক, পূবালী ব্যাংক ও রুপালী ব্যাংক রয়েছে। এর মধ্যে যমুনা ব্যাংকে সামান্য কিছু ক্ষতি হয়েছে। অন্যান্য ব্যাংকগুলোর তেমন ক্ষতি হয়নি। তবে ভবনের নিচতলায় আগুন লাগার কারণে ১৫টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে পাঁচটি ওষুধের দোকান, ছবির তোরার ল্যাব, খাবাররের হোটেল, টেইলার্স রয়েছে। আর ঘটনার সময় ভবনের ও ব্যাংকের কেয়ার টেকারসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন বলে জানান তারা।

পাবনা অ্যাপেক্স গ্যালারির শো-রুমের ম্যানেজার রাসেল কবির বিপু জানান, ক্ষতির পরিমাণ কত হয়েছে বলা কঠিন। তবে সব মিলিয়ে ১০ থেকে ১২ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। 

পাবনা ফায়ার সার্ভিস সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, ভোরে ওই ভবনে অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে পৌঁছাই। পরে আমাদের গাড়ির পানি ফুরিয়ে গেলে ঘটনাস্থল থেকে বেশ কিছুটা দূর থেকে পানি নিয়ে আসতে হয়েছে। এর মধ্যে আরও দু’টি স্টেশনের গাড়ি ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায়। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বৈদ্যুতিক শর্ট-সার্কিটের কারণে এ দুর্ঘটনা হয়েছে। এ ঘটনায় কত টাকার কি পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে সেটা বলা যাচ্ছে না। তবে সবচাইতে ক্ষতি হয়েছে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হওয়া দোকান অ্যাপেক্স গ্যালারিতে। আমরা ঘটনার বিষয়ে তদন্ত করছি। ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে ক্ষতির পরিমাণ পরবর্তীতে বলা যাবে।

পাবনার পুলিশ সুপার (এএসপি) শেখ রফিকুল ইসলাম বলেন, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়েই আমরা ঘটনাস্থলে ছুটে আসি। জেলা পুলিশ ও সাধারণ মানুষের সহযোগিতায় প্রায় তিন ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। আগুনে যমুনা ব্যাংক, ফাস্ট সিকিউরিটি ইসলামী ব্যাংক ও পূবালী ব্যাংক, ফাস্ট ফুডের দোকান, ওষুধের দোকান, কালার ল্যাব ও অ্যাপেক্স গ্যালারিসহ ১৫টি দোকান পুড়ে গেছে। 

আহতদের উদ্ধার করে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ফায়ার সার্ভিস এবং প্রশাসন ঘটনার তদন্তে নেমেছে। অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় কারও গাফিলতির প্রমাণ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৪৪ ঘণ্টা, আগস্ট ২০, ২০১৮/আপডেট: ১৬৫৫ ঘণ্টা 
আরএ/এসআরএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: পাবনা আগুন
স্বজনদের কাছে ফিরলো পুলিশ হেফাজতে থাকা শিশু আবির
দ্বিতীয়দিন রঘু দীক্ষিত-মমতাজ'র পরিবেশনায় মাতোয়ারা দর্শক
নরসিংদীতে আ’লীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষের ঘটনায় আটক ১৩
ভাসানীর কবর জিয়ারতে যাচ্ছেন ঐক্যফ্রন্ট নেতারা
ভোটের ‘পরিবেশ নষ্ট না করতে’ আইজিপিকে নির্দেশ দিচ্ছে ইসি
প্রতি ফরম্যাটের জন্য টাইগারদের আলাদা দল!
ত্রিপুরায় প্লেন পরিষেবার উন্নতির দাবিতে ডেপুটেশন
শংকর-এহসান-লয়ের সুরের মূর্ছনায় দিওয়ালি কনসার্ট
নির্বাচনে সাংবাদিকদের ভূমিকা শীর্ষক কর্মশালা শনিবার
সংস্কৃতিকেন্দ্র নির্মাণের ইচ্ছে বসুন্ধরা চেয়ারম্যানের