php glass

মোদীর নম্রতা সবচেয়ে বেশি আকৃষ্ট করেছে: বেয়ার গ্রিলস

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে বেয়ার গ্রিলসের শুটিং মুহূর্ত, ছবি: সংগৃহীত

walton

কলকাতা: ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সংকটের সময়ও একেবারে শান্ত থাকতে পারেন। একইসঙ্গে তিনি নম্র একজন মানুষ। তার এই নম্রতা সবচেয়ে বেশি তাকে আকৃষ্ট করেছে বলে জানিয়েছেন ডিসকভারি চ্যানেলে সম্প্রচারিত জনপ্রিয় প্রোগ্রাম ‘ম্যান ভার্সেস ওয়াইল্ড’ এর উপস্থাপক বেয়ার গ্রিলস।

সোমবার (১২ আগস্ট) ডিসকভারি চ্যনেলে দ্য ওয়াইল্ড অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী মোদীকে দেখা যাবে বেয়ার গ্রিলসের সঙ্গে। এর আগে সম্পূর্ণ শুটিং হয়েছিল ভারতের উত্তরাখণ্ডের জিম করবেট ন্যাশনাল পার্কে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কাজ করেছিলেন উপস্থাপক বেয়ার গ্রিলস। ওই সময়টার অভিজ্ঞতা তুলে ধরে বেয়ার গ্রিলস মোদী সম্পর্কে এ কথা বলেন। মোদীর এই অনুষ্ঠানটি ১৮০টি দেশে একসঙ্গে সম্প্রচার হবে।

অভিজ্ঞতা থেকে বেয়ার গ্রিলস বলেন, মোদী সংকটের সময়ও একেবারে শান্ত থাকতে পারেন। খারাপ আবহাওয়াসহ নানা প্রতিবন্ধকতা জয় করে যেভাবে তিনি পর্বটি শেষ করেছেন, তা প্রশংসার দাবি রাখে।

বেয়ারের কথায়, আমরা রাজনীতিবিদদের সব সময় ঝাঁ চকচকে পোশাকে দেখতে অভ্যস্ত। কিন্তু জঙ্গল অন্য জায়গা। আপনি কে বা কী, জঙ্গল তার পরোয়া করে না।

গোটা শুটিংয়ে প্রধানমন্ত্রীকে কী কী প্রতিকূলতার সম্মুখীন হতে হয়েছে, তা নিয়ে বলতে গিয়ে বেয়ার বলেন, আমরা বেশ কয়েকবার পাথরে ধাক্কা খেয়েছিলাম। লাগাতার বৃষ্টিও হচ্ছিল। গোটা টিম যারা শ্যুট করছিলেন, তারা বিপাকে পড়েছিলেন। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী আগাগোড়াই শান্ত ছিলেন। গোটা সফরে আমি প্রধানমন্ত্রীকে একইরকম উদ্বেগহীন থাকতে দেখেছিলাম।

এছাড়া প্রধানমন্ত্রী মোদীর যে গুণ ছটফটে বেয়ারকে সবচেয়ে বেশি মুগ্ধ করেছে, তা হলো বিনম্রতা। তার কথায়, চরম প্রতিকূল আবহাওয়ার মধ্যেও সব সময় প্রধানমন্ত্রীর মুখে হাসি লেগেছিল। এটাই তার বিনম্রতার প্রমাণ। ভারী বৃষ্টির মধ্যেও তিনি অবিচল ছিলেন। নিরাপত্তারক্ষীরা ছাতা বের করতে চাইলেও তিনি তা নিতে অস্বীকার করে দেন। তিনি আমার সঙ্গেই ভিজছিলেন।

‘তবে এখানেই শেষ নয়। একটি খরস্রোতা নদী পেরোতে হয়েছিল প্রধানমন্ত্রী ও আমাকে। তার জন্য ত্রিপল এবং গাছের ডাল দিয়ে একটি ভেলা বানাই আমি। যা দেখে প্রধানমন্ত্রীর রক্ষীরা ছুটে আসেন। তারা কিছুতেই প্রধানমন্ত্রীকে ওই ভেলায় চড়তে দিতে রাজি ছিলেন না। তবে প্রধানমন্ত্রী কিন্তু এক বাক্যে রাজি হয়ে গিয়েছিলেন। আমরা দু’জনে ভেলায় উঠতেই, সেটি ডুবতে শুরু করে। আমি ভেলা থেকে নেমে সাঁতার কাটতে কাটতে ভেলাটিকে ঠেলে পাড়ে নিয়ে আসি। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীও ভিজছিলেন। কিন্তু একবারের জন্যও তার মুখ থেকে হাসি উধাও হয়নি। এসব মুহূর্তই একজন মানুষকে চেনায়।’

তবে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সমস্যায় পড়েছিলেন তার নিরাপত্তারক্ষীরা। বেয়ার বলেন, প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তারক্ষী টিমের কাছে বিষয়টি অনেক বেশি চ্যালেঞ্জিং ছিল। কারণ তাদের সব সময় নানা ধরনের অস্ত্র ও ব্রিফকেস নিয়ে ঘুরতে হয়েছিল। একইসঙ্গে বেয়ার এও বলেন, ধন্যবাদ জানাই প্রধানমন্ত্রীকে আমাকে সহযোগিতা করার জন্য।

ডিসকভারি চ্যানেলের অ্যাডভেঞ্চার শো ম্যান ভার্সেস ওয়াইল্ডের আওতায় সোমবার বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ৯টায় সম্প্রচার হবে মোদীর অনুষ্ঠানটি।

এর আগে এই অ্যাডভেঞ্চারে যেয়ার গ্রিলসের সঙ্গী হয়েছিলেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। এবার বিশ্বের বৃহত্তম গণতন্ত্রের শীর্ষ নেতা হয়েছেন বেয়ারের সঙ্গী।

আরও পড়ুন>> ব্যাঙ মেরে জরিমানার মুখে বেয়ার গ্রিলস

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪০ ঘণ্টা, আগষ্ট ১১, ২০১৯
ভিএস/টিএ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ভারত নরেন্দ্র মোদী
চুক্তির তথ্য জানতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বিএনপির চিঠি
রাজধানীতে কাভার্ড ভ্যানচাপায় শিশুর মৃত্যু
শুভ জন্মদিন রুনা লায়লা
লতিফ সিদ্দিকীর জামিন বহাল
সিন্ডিকেট ‘সন্ত্রাস’ থামছে না চট্টগ্রাম বন্দরে


খুলনায় সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুর মৃত্যু
দুদ‌কের মামলায় সম্রাট রিমা‌ন্ডে
রাজধানীর আদাবরে বালিশচাপা দিয়ে গৃহবধূকে হত্যা
‘বিএনপি-জামায়াত একই বৃন্তে গাঁথা সাম্প্রদায়িক শক্তি’
নিজের পায়ে নিজেই কুড়াল মারলেন অজি পেসার প্যাটিনসন