মৃতের জন্য ‘৭০ হাজার কালেমা পড়া’র ব্যাপারটি শুদ্ধ নয়

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি : প্রতীকী

walton

প্রশ্ন: সমাজে প্রচলন আছে, মৃত ব্যক্তির জন্য ৭০ হাজার বার কালেমা তাইয়েবা পাঠ করলে, সে জাহান্নাম থেকে মুক্তি পায়। আবার কিছু মানুষ নিজ জীবদ্দশায় এ উদ্দেশ্যে ৭০ হাজার বার কালেমা পড়ে থাকে।

অন্যদিকে কেউ মারা গেলে তার কবরের আজাব মাফ হওয়ার জন্য এ ধরনের নিয়মে কালেমা পাঠের প্রথাটা বেশি। আর এ আমল করলে সত্যি কি জাহান্নাম থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে? সঠিক তথ্য জানিয়ে বাধিত করবেন।

উত্তর: কথাটি শুদ্ধ নয়। বরং এটি লোকমুখে প্রচলিত একটি কথা। যার কোনো প্রামাণ্যতা কিংবা ভিত্তি নেই। শায়েখ ইবনে তাইমিয়া (রহ.)-কে এ ব্যাপারে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ‘এটি সহিহ বা দুর্বল কোনো সনদেই বর্ণিত হয়নি।’ (মাজমুউল ফাতাওয়া, ইবনে তাইমিয়া ২৪/৩২৩)

কালেমা তাইয়েবা পাঠ করা অনেক বড় সওয়াবের কাজ। হাদিসের ভাষ্য অনুযায়ী এটি উত্তম জিকির। এ কালেমা পাঠের বহু ফজিলত বর্ণিত হয়েছে। এক হাদিসে এসেছে, ‘যে ব্যক্তি এখলাসের সঙ্গে লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ পাঠ করবে সে জান্নাতে যাবে। (মুসনাদে আহমাদ, হাদিস নং: ১৯৬৮৯; শরহু মুশকিলিল আছার, হাদিস নং: ৪০০৩)

তবে কালেমা তাইয়েবা পাঠ করা কিংবা কোনো মৃত ব্যক্তির ইসালে সওয়াবের জন্য পাঠ করা উত্তম কাজ। কিন্তু প্রশ্নে উল্লেখিত সংখ্যা ও পদ্ধতির কোনো দলিলভিত্তি নেই। ফলে এ পদ্ধতি গ্রহণযোগ্য নয়।

ইসলাম বিভাগে লিখতে পারেন আপনিও। লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]

বাংলাদেশ সময়: ১৯০৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৯
এমএমইউ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ইসলাম
করোনায় সিরিয়ায় প্রথম মৃত্যু
স্বল্প পরিসরে চেক ক্লিয়ারিং করার নির্দেশ
করোনায় ইতালিতে আরও ৭৫৬ জনের মৃত্যু
করোনাভাইরাস মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর বার্তা
প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে ১ দিনের বেতন দিলেন সেনা সদস্যরা


মাঠে নেমে সহায়তা করছেন বলিউড তারকারা
ল্যাব না থাকলেও সিংড়ায় গেল দুই'শ করোনা টেস্টিং কিট
মানুষকে টেলিফোনে চিকিৎসাসেবা দিতে ফারাজের উদ্যোগ
রাজশাহীতে এলো আরও ১ হাজার পিস পিপিই
পুলিশকে পিপিই দিল চীনা নাগরিকদের সংগঠন