বিশ্ব ইজতেমার জুমার নামাজে লাখো মুসল্লি

মো. রাজীব সরকার, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

.

walton

গাজীপুর: টঙ্গীর তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) জুমার নামাজে কয়েক লাখ মুসল্লি অংশ নিয়েছেন। শুক্রবার দেশের সবচেয়ে বড় এবং বিশ্বের অন্যতম বৃহত্তম জুমার নামাজে অংশ নিতে সকাল থেকে ঢাকা-গাজীপুরসহ আশপাশ এলাকাগুলোর মুসল্লিরা বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে জমায়েত হন। জুমার নামাজে ইমামতি করেন কাকরাইল মসজিদের খতিব ও তাবলিগের শূরা সদস্য মাওলানা জোবায়ের। দুপুর ১টা ৪২ মিনিটে নামাজ শুরু হয়।

ইজতেমা ময়দানে জুমার নামাজে ধর্মমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মুহাম্মদ আব্দুল্লাহ, যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার ওয়াইএম বেলালুর রহমান, গাজীপুরের জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর, গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট আজম উল্লাহ খানসহ প্রমুখ শরিক হন।

বিশ্ব ইজতেমা আয়োজকদের সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বাদ আছর আম বয়ানের মধ্যে দিয়ে শুরু হয় ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা। প্রথম পক্ষের আখেরি মোনাজাত শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত হবে। এরপর সোমবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) আখেরি মোনাজাত হবে দ্বিতীয় পক্ষের। আর এর মাধ্যমে শেষ হবে ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমা। দেশ-বিদেশের শীর্ষস্থানীয় মুরুব্বীরা বিশ্ব ইজতেমায় ঈমান-আমল, ভ্রাতৃত্ব, ঐক্য-সংহতি ও জীবনের অন্যান্য বিষয়গুলোর উপর বয়ান করবেন।

কয়েকদিন আগে থেকে দেশের ৬৪টি জেলার তাবলিগ জামাতের মুসল্লিগণ ইজতেমা ময়দানে এসে নিজ নিজ জেলাওয়ারি খিত্তায় অবস্থান নেন। বিদেশি মেহমানদের জন্য নির্মিত তাশকিল কামরার টিনের শামিয়ানার অবস্থান নেয় বিদেশি মুসল্লিগণ। এর পূর্ব পাশে স্থাপিত হয় মূল মঞ্চ। মূল মঞ্চ থেকেই তাবলিগ জামাতের শীর্ষস্থানীয় মুরুব্বিগণ আরবি, উর্দু ও বাংলাসহ বিভিন্ন ভাষায় বয়ান করছেন। তবে মূল বয়ান উর্দু ভাষায়  করা হলেও সেটা তাৎক্ষণিকভাবে বাংলাসহ ২৪টি ভাষায় অনুবাদ করে দেওয়া হচ্ছে।

বিশ্ব ইজতেমার দায়িত্বশীল মো. মাহফুজুর রহমান জানান, বৃহস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) বাদ আছর আম বয়ানের মধ্যে দিয়ে শুরু হয় ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমা। আগামী শনিবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) আখেরি মোনাজাতে শেষ হবে প্রথম পক্ষের ইজতেমা।

বিশ্ব ইজতেমায় ৪ মুসুল্লির মৃত্যু
বিশ্ব ইজতেমায় শুক্রবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) সকাল পর্যন্ত ৪ মুসুল্লির মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার ভোরে ফেনীর সফিকুর রহমান (৫৮), বৃস্পতিবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) রাতে কুষ্টিয়ার মো. সিরাজুল ইসলাম (৬৫), দুপুরে নাটোরের মো. আলী (৫৫) এবং বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) রাতে বি-বাড়িয়ার আব্দুল জব্বর (৪০) মারা যান। নিহতদের মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৪৫ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৫, ২০১৯
আরএস/এমএমইউ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ইসলাম
ফেনীতে করোনা উপসর্গ নিয়ে একজনের মৃত্যু
বগুড়ায় হতদরিদ্রদের ৫০ বস্তা চালসহ কৃষক লীগ নেতা আটক
সাহায্যের জন্য নগদ অর্থ সংগ্রহ করবেন না: মুখ্যমন্ত্রী
সিলেটে প্রবাস ফেরত যুবককে কুপিয়ে খুন
নারায়ণগঞ্জে বিভিন্ন বাসার ছাদে সারারাত জামাতে নামাজ আদায়


রাজশাহীতে ৩৩৭ জনের নমুনা সংগ্রহ
করোনা মোকাবিলায় ফেনীর প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের সহায়তা
আশুলিয়ায় কলোনিতে আগুন, ৮ কক্ষ পুড়ে ছাই
বরিশালে চার বাড়ির লকডাউন প্রত্যাহার
শিল্পকলার তথ্যচিত্রে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ বার্তা