php glass

ইউটিউবের মাধ্যমে অর্জিত অর্থ জায়েজ?

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি : প্রতীকী

walton

প্রশ্ন: আমার একটি ব্যক্তিগত ইউটিউব চ্যানেল রয়েছে। এতে ভালো মানের এবং অশ্লীলতামুক্ত বিভিন্ন ভিডিও আপলোড করে থাকি। আমার প্রশ্ন হলো, এভাবে ইউটিউবে ভিডিও আপলোডের মাধ্যমে যদি আমি টাকা আয় করি, তাহলে সেগুলো জায়েজ হবে?

উত্তর: ইউটিউবে ভিডিও আপলোডের মাধ্যমে টাকা আয়ের বিষয়টি ইদানিংকালে বেশ জনপ্রিয় হয়ে ওঠেছে। তবে গুরুত্ব ও কর্তব্যের বিষয় হলো, যদি এভাবে কোনো টাকা আয় হয়—তাহলে সেগুলোর সোর্স কী, সেটা ভেবে দেখা।

প্রসঙ্গত গুগলের একটি বিশেষ সার্ভিস হলো ‘গুগল এডসেন্স’। অর্থের বিনিময়ে তারা বিভিন্ন কোম্পানির বিজ্ঞাপন ইউটিউবসহ অন্যান্য ওয়েবসাইটে প্রচার করে থাকে। আর সে অর্থের একটি নির্দিষ্ট অংশ তারা ইউটিউবারদের দিয়ে থাকে।

সুতরাং বিজ্ঞাপনগুলো যদি অশ্লীল হয় কিংবা হারাম পণ্যের হয়, তাহলে প্রাপ্ত অর্থ হালাল হবে না। উপরন্তু হারামের প্রচার ও সহযোগিতার কারণে গোনাহগারও হতে হবে। আল্লাহ তাআলা পবিত্র কোরআনে বলেন, ‘যারা মুমিনদের মধ্যে অশ্লীলতার প্রসার কামনা করে, নিশ্চয়ই তাদের জন্য ইহকালে ও পরকালে রয়েছে যন্ত্রণাদায়ক শাস্তি’।  (সুর নুর, আয়াত : ১৯)

স্মর্তব্য যে, ‘গুগল এডসেন্স’ এ সেনসিটিভ অপশন বন্ধ রাখার সুযোগ রয়েছে। সেটা বন্ধ করে কেউ যদি অনৈসলামিক বিজ্ঞাপনগুলো উপেক্ষা করে তার চ্যানেল চালু রাখে, তাহলে ইউটিউব থেকে আয়কৃত অর্থ তার জন্য হালাল হবে।

ইসলাম বিভাগে লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]
বাংলাদেশ সময়: ১৬০৯ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ০৩, ২০১৯
এমএমইউ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ইসলাম
রায়েরবাজার সৌধে সর্বস্তরের মানুষের শ্রদ্ধা
মিরপুর শহীদ বুদ্ধিজীবী সৌধে জনতার ঢল
হানাদারদের রুখতে বোমা ফেলা হয় হার্ডিঞ্জ ব্রিজে
চলচ্চিত্রকার আমজাদ হোসেনকে হারানোর এক বছর
বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা


খুলনায় পাটকল শ্রমিকদের অনশন স্থগিত
১৪ ডিসেম্বর সিরাজগঞ্জ মুক্ত দিবস
সাভারে বিদেশি পিস্তলসহ ইউপি সদস্য আটক
রামুতে প্রজন্ম’৯৫ বৃত্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ
১৪ ডিসেম্বর হানাদার মুক্ত হয় জয়পুরহাট