php glass

মস্কোর মসজিদে ২৪ ঘণ্টাব্যাপী কোরআন তেলাওয়াত

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোর গ্র্যান্ড মসজিদ

walton

রাশিয়ার রাজধানী মস্কোর গ্র্যান্ড মসজিদে প্রতিদিন ২৪ ঘণ্টাব্যাপী কোরআন তেলাওয়াতের ব্যবস্থা করা হয়েছে। পূর্ব পরিকল্পনায় চলতি মাসের ০৯ তারিখে কোরআন তেলাওয়াতের এমন অভিনব সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে মসজিদ-কর্তৃপক্ষ। খবর ইন্টারন্যাশনাল কোরআন নিউজ এজেন্সির।

ব্যবস্থাপনা অনুযায়ী কর্তৃপক্ষের নির্ধারিত ক্বারিগণ পালাক্রমে প্রতিদিন এক ঘণ্টা করে কোরআন তেলাওয়াত করবেন। এতে দৈনিক ২৪ ঘণ্টা ব্যাপী কোরআন তেলাওয়াত চালু থাকবে। তবে কেবল নামাজের সময়ে তেলাওয়াত বন্ধ রাখা হবে। মসজিদ-কর্তৃপক্ষ নিজস্ব ওয়েবসাইটে (mihrab.ru) কোরআন তেলাওয়াত সরাসরি সম্প্রচার করবে।

মস্কোর গ্র্যান্ড মসজিদটি রাশিয়ার অন্যতম বৃহৎ মসজিদ হিসেবে বিবেচিত। বিখ্যাত স্থাপত্যশিল্পী নিকোলাই ঝুকভের আঁকা নকশা মোতাবেক ১৯০৪ খ্রিস্টাব্দে মসজিদটির মূল অবকাঠামো নির্মাণ করা হয়। পরবর্তীকালে কয়েকবার সংস্কার করা হলেও ২০১১ খ্রিস্টাব্দের ১১ সেপ্টেম্বর পুরাতন মসজিদটি ভেঙ্গে নতুন করে বৃহৎ পরিসরে এটি নির্মাণ করা হয়। ১৯ হাজার বর্গমিটার আয়তনের নতুন মসজিদটিতে প্রায় দশ হাজার মুসল্লি একসঙ্গে নামাজ আদায় করতে পারেন।

২০১৫ খ্রিস্টাব্দের ২৩ সেপ্টেম্বর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান ও ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস এবং স্থানীয় গণ্যমান্য মুসলিম ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে আনুষ্ঠানিকভাবে এটি উদ্বোধন করা হয়।

সেন্ট্রাল ইন্টিলিজেন্স এজেন্সির তথ্য অনুযায়ী রাশিয়ার মোট জনসংখ্যার ১০-১৫% মুসলিম। এছাড়াও বিভিন্ন পরিসংখ্যান থেকে জানা যায়, প্রায় ১৫ লাখ মুসলিম মস্কোয় বসবাস করেন।

ইসলাম বিভাগে লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]
বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৭ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২২, ২০১৯
এমএমইউ/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ইসলাম
হবিগঞ্জ আ’লীগের সম্মেলনে ৭০০০ কর্মীর জন্য বিরিয়ানি
ক্রেতাদের বাজেট অনুযায়ী পোশাক তৈরি করছে ‘সারা’
মায়ের ওপর অভিমান, রাজধানীতে স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা
নোয়াখালীতে ট্রাক-অটোরিকশা সংঘর্ষে প্রাণ গেলো দু’জনের
প্রণব মুখার্জি-খান আতার জন্ম


খালেদার মুক্তির জন্য স্বেচ্ছায় কারাভোগে রাজি ফেনী বিএনপি
‘মাথাপিছু আয় ৬০০০ ডলারের আগেই সবার কাছে গাড়ি থাকবে’
দলের জন্য সবটুকু অভিজ্ঞতা ঢেলে দেবেন গিবস
কর দিতে হয়রানি হলে তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা: অর্থমন্ত্রী
মিয়ানমারে গণহত্যার বিচার শুরু, সন্তুষ্ট রোহিঙ্গারা