ঢাকা, মঙ্গলবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৩ সফর ১৪৪২

ইসলাম

ব্রিটেনে শীতার্তদের ভরসা মুসলিম যুবক

ইসলাম ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ০০১৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৮
ব্রিটেনে শীতার্তদের ভরসা মুসলিম যুবক মুসলিম যুবক আজিজ কামার। ছবি : সংগৃহীত

বছরের এই সময়টাতে ব্রিটেনে হাড়কাঁপানো শীত ও তুষারপাতের প্রবল প্রবাহ জনজীবন বেসামাল করে তোলে। ফলে যারা অসহায় কিংবা বাস্তুহারা তারা শীতকালীন সময়ে বেশ দুর্ভোগে পড়েন।

কিন্তু শীতার্দ্র এই মৌসুমে ব্রিটেনের এক মুসলিম তরুণ অসহায় ও গৃহহীনদের সহযোগিতার ক্ষেত্রে দারণ আদর্শ তৈরী করেছেন। লন্ডনের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলীয় হেয় ওয়াকোমবে শহরে তার একটি ইলেক্ট্রনিক লন্ড্রি দোকান রয়েছে।

আর তিনি সেটাকে ঘরবিচ্ছিন্ন, বেকার ও কর্মক্ষমদের আশ্রয়কেন্দ্রে পরিণত করেছেন।

গত বছর থেকেই তিনি এ ধরনের মহৎ কাজ করে আসছেন। আর এতে তিনি হাজার হাজার অসহায়কে আশ্রয় ও সহায়তা দিয়ে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, অসহায়ের মুখে হাসির রেখা আঁকতে আমি দারুণ সুখানুভব করি। বাস্তবে তাদের জন্য সমাজের পক্ষ থেকে সাহায্য-সহযোগিতার ব্যবস্থা করা আবশ্যক ছিল। তাদের সহায়তায় সমাজের সদস্যরা নিজেদের সর্বোচ্চ শ্রম ও ত্যাগটুকু দেওয়া উচিত ছিল। কিন্তু অসহায়দের জন্য প্রত্যাশিত সেই সহায়তার ব্যবস্থা করা হচ্ছে না।

২৫ বছর বয়সী এই ব্রিটিশ মুসলিম তরুণের নাম কামার আজিজ। তিনি অসহায়, গৃহহীন, বেকার ও কর্মক্ষমদের পোশাক-পরিচ্ছদ ভালোভাবে পরিস্কার করে দেওয়ার পাশাপাশি তাদের জন্য পর্যাপ্ত কম্বল ও শীতের কাপড়ের ব্যবস্থাও করছেন।

বার্তাসংস্থা আনাতোলিয়ার সঙ্গে সাক্ষাত্কারে ‘দ্য লন্ড্রি রুম’র কর্ণধার আজিজ জানান, গত শীতের মৌসুমে যখন একজন অসহায় লোক অনেক কষ্টে অর্জিত শীতের একটি পোশাক নিয়ে তার দোকানে আসেন, তখন তার মাথায় এমন লোকদের সহায়তার চিন্তাভাবনা আসে।

প্রথমে অসহায়দের জন্য বিনামূল্যে লন্ড্রিব্যবস্থা চালু করে আজিজ সেটির সেবা গ্রহণের জন্য দ্বিধাহীনভাবে তাদের আমন্ত্রণ জানান। ফলে প্রথম বছরেই ৪০০ জন ঘরবিচ্ছিন্ন, বেকার ও কর্মকক্ষ ব্যক্তিকে তিনি সেবা দিতে সক্ষম হন।

একজন ব্রিটিশ মুসলিম ও হেয় ওয়াকোমবে নগরের বাসিন্দা হিসেবে এমন কাজ করতে পেরে তিনি বেশ স্বাচ্ছন্দ্য ও গর্ববোধ করছেন বলেও জানান।

এছাড়াও এ শহরের যারা লন্ড্রির বিল পরিশোধে অক্ষম তার প্রতিষ্ঠান থেকে বিনামূল্যে সেবা গ্রহণের জন্য আজিজ জোর আহ্বান জানান।

ন্যাশনাল ব্যুরো অফ স্ট্যাটিস্টিক্স’র সম্প্রতি প্রকাশিত তথ্যানুযায়ী লন্ডন ও ওয়েলসের শহরগুলোতে ২০১৭ সালে ৫৯৭ জন গৃহহীন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও ২০১৩ থেকে ২০১৮ সময়ের মধ্যে দুই হাজার  ৬২৭ জন গৃহহীনের মৃত্যু হয়।

পরিসংখ্যানে জানানো হয়, এদের ৮৪ ভাগ লোকই ছিল পুরুষ। তাদের অর্ধেকেরও বেশি মাদকতা, নেশা, হৃদরোগ এবং আত্মহত্যার কারণে মারা যায়।

গৃহহীনতা-সংকট মোকাবেলায় ব্রিটিশ সরকার এক মিলিয়ন ২০০ বিলিয়ন ব্রিটিশ পাউন্ড বাজেট ঘোষণা করেছে। তাদের এই বাজেট ২০২৭ সাল পর্যন্ত বরাদ্দ থাকবে।

-আরবিপোস্টডটনেট অবলম্বনে

ইসলাম বিভাগে লেখা পাঠাতে মেইল করুন: [email protected]
বাংলাদেশ সময়: ১৯১৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৪, ২০১৮
এমএমইউ/
 

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa