তালেবানের সঙ্গে ৭ দিনের যুদ্ধবিরতি: সফল হলে শান্তিচুক্তি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আফগানিস্তানের তালেবান যোদ্ধা। ছবি: সংগৃহীত

walton

আফগানিস্তানে তালেবানের সঙ্গে সাতদিনের যুদ্ধবিরতিতে যাচ্ছে মার্কিন সেনাবাহিনী ও আফগান সরকারি বাহিনী। স্থানীয় সময় শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) দিনগত রাত ১২টা থেকে শুরু হতে যাওয়া এ যুদ্ধবিরতি সফল হলে উভয়পক্ষের মধ্যে শান্তিচুক্তির জন্য আলোচনা শুরু হবে।

শুক্রবার (২১ ফেব্রুয়ারি) মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পের এক টুইট বার্তার বরাত দিয়ে এ তথ্য জানায় আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম।

টুইট বার্তায় মাইক পম্পে জানান, যুদ্ধবিরতি সফলভাবে কার্যকর হলে যুক্তরাষ্ট্র তালেবানের সঙ্গে ২৯ ফেব্রুয়ারি শান্তিচুক্তি স্বাক্ষরের উদ্যোগ নেবে। 

এর মধ্য দিয়ে আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের প্রক্রিয়া শুরু হতে পারে।

এদিকে মাইক পম্পের এ ঘোষণার পর যুদ্ধবিরতির বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তালেবান মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদ।

এক বিবৃতিতে তিনি জানান, শান্তিচুক্তির স্বাক্ষরের আগে উপযুক্ত এক নিরাপদ পরিস্থিতি তৈরি করা হবে। যে চুক্তির মাধ্যমে তারা সব বিদেশি সেনার আফগানিস্তানের মাটি থেকে প্রত্যাহারের আশা করেন।

যুদ্ধবিরতির এ সময়ে তালেবান, আফগান সরকারি বাহিনী ও মার্কিন সেনাবাহিনীসহ অন্য বিদেশি বাহিনীর ওপর হামলা করা থেকে সবপক্ষই বিরত থাকবে।

বর্তমানে আফগানিস্তানে প্রায় ১৪ হাজার মার্কিন সেনা ও ন্যাটোভুক্ত ৩৯টি দেশের ১৭ হাজার সেনা অবস্থান করছে।

যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবান প্রতিনিধিদের মধ্যে দীর্ঘ এক বছরের আলোচনার পর এ যুদ্ধবিরতিতে পৌছলো উভয়পক্ষ।

২০০১ সালের ১১ সেপ্টেম্বর টুইন টাওয়ারে হামলার পরিপ্রেক্ষিতে আল-কায়েদা নেতা ওসামা বিন লাদেনকে আশ্রয় দেওয়ার অভিযোগে তৎকালীন তালেবান শাসিত আফগানিস্তানে আগ্রাসন চালায় মার্কিন নেতৃত্বের ন্যাটোর সামরিক বাহিনী। আগ্রাসনে তালেবান ক্ষমতাচ্যুত হলেও পুরো আফগানিস্তানকে তালেবান দখলমুক্ত করতে ব্যর্থ হয় ন্যাটো।

প্রায় ২০ বছরের দীর্ঘ এ যুদ্ধে এক লাখের বেশি আফগান বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৪ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০২০
এবি

হাসপাতালে রোগীর খাবার পৌঁছাতে এগিয়ে এলো পুলিশ
গোডাউন থেকে ২১ বস্তা সরকারি চাল উদ্ধার
৪০০ পরিবহন শ্রমিককে খাবার দিলেন ফারাজ করিম
সার্কভুক্ত দেশের বাণিজ্য ক্ষতি পোষাতে ৫ সুপারিশ
ইসরায়েলে করোনা আক্রান্ত বেড়ে প্রায় ১০ হাজার, মৃত্যু ৭১


করোনা প্রতিরোধে দোষারোপ নয়, একযোগে কাজ করতে জাসদের আহ্বান
বিশ্বকাপ ফাইনালের ম্যাচসেরা অনুপ্রেরণা হিসেবে দেখছেন আকবর
গৃহহীনদের অস্থায়ী আবাসনের দাবি গণসংহতি আন্দোলনের
করোনায় আক্রান্ত মার্কিন রণতরী থিওডোর রুজভেল্টের ২৮৬ নাবিক
নেতাকর্মীদের মুক্তি দিতে সরকারকে ফখরুলের চিঠি