‘বাংলাদেশিদের’ বস্তি গুঁড়িয়ে দিল ব্যাঙ্গালুরু পৌরসভা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ওই বস্তিতে কোনো বাংলাদেশি ছিল না

walton

‘বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীরা বসবাস করেন’ এমন সন্দেহ থেকেই পুরো একটি বস্তি গুঁড়িয়ে দিয়েছে ভারতের ব্যাঙ্গালুরু পৌর কর্তৃপক্ষ। 

কিন্তু পরে দেখা গেছে, ওই বস্তিতে কোনো বাংলাদেশি থাকতেন না। সমালোচকরা বলছেন, সাম্প্রদায়িক মনোভাব থেকেই কর্তৃপক্ষ এ কাজ করেছে। 

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) পাসের পর থেকেই দেশজুড়ে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ অব্যাহত। এর মধ্যেই এমন কাণ্ড বিক্ষোভের আগুনে ঘি ঢেলেছে।  

ভারতীয় গণমাধ্যম জানাচ্ছে, স্থানীয় বিজেপি বিধায়কের কথায় কোনো প্রমাণ ছাড়াই ওই বস্তিবাসীদের উচ্ছেদ করা হয়েছে। 

স্থানীয় বিজেপি বিধায়ক অরবিন্দ লিম্বভালি ওই বস্তির একাধিক ছবি-ভিডিয়ো তুলে টুইটারে পোস্ট করেন। তিনি লিখেছিলেন, ‘ওই এলাকায় অন্য জায়গা থেকে অনেকে এসে বেআইনিভাবে বসবাস শুরু করেছেন। তাদের অনেকেই বাংলাদেশি অনুপ্রেবেশকারী।’

আশ্রয় হারিয়ে খোলা আকাশের নিচে দিন কাটাচ্ছেন বস্তির মানুষজন। সূত্রের খবর, তাদের কেউ আসাম, কেউ ত্রিপুরা থেকে কাজের সূত্রে ওই বস্তিতে থাকতেন। কোনো বাংলাদেশিকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। 

উচ্ছেদ হওয়া বাসিন্দাদের দাবি, তারা কেউ বাংলাদেশি নন। সকলেরই ভারতীয় নাগরিকত্বের প্রামাণ্য নথিপত্র রয়েছে। তাদের সবাই হয় ভিন্ন‌ রাজ্য থেকে এসেছেন অথবা কর্নাটকেরই বাসিন্দা। 

একাধিক সংবাদ মাধ্যমের দাবি, ওই বস্তির বাসিন্দারা আধার কার্ড, ভোটার পরিচয়পত্র, প্যান কার্ডের মতো নথিপত্র দেখিয়েছেন। আবার অসম এনআরসিতে যে তাদের নাম রয়েছে, সে রাজ্য থেকে আসা কয়েক জন সেই নথিও দেখিয়েছেন। কিন্তু তাতে কোনো কাজ হয়নি। 

বাংলাদেশ সময়: ২০৩৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ২০, ২০২০
এজে

বীরবিক্রম শাফী ইমাম রুমীর জন্ম
সেই প্রবীণদের বাড়িতে ইউএনও, ফোনে কথা বললেন প্রতিমন্ত্রী
ইতালিতে করোনায় মৃত্যু ১০ হাজার ছাড়ালো
করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু: পুলিশি পাহারায় দাফন
যুক্তরাষ্ট্রে স্ত্রীসহ করোনায় আক্রান্ত কাজী মারুফ


করোনায় নাকাল দুস্থদের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ ইশরাকের
করোনা সন্দেহে মাদারীপুরে কলেজছাত্র আইসলেশনে
২০ হাজার পরিবারকে চাল-ডাল দেবেন মেয়র লিটন
করোনা আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার চিঠি
প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে ১০ কোটি টাকা দিচ্ছে বসুন্ধরা গ্রুপ