ঢাকা, রবিবার, ১২ আশ্বিন ১৪২৭, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮ সফর ১৪৪২

ভারত

দুষণমুক্ত থাকতে ঝড়ে পড়া গাছ প্রতিস্থাপন করছে কলকাতা

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৮৫৮ ঘণ্টা, জুন ৩, ২০২০
দুষণমুক্ত থাকতে ঝড়ে পড়া গাছ প্রতিস্থাপন করছে কলকাতা

কলকাতা: কলকাতা করপোরেশনে তথ্য অনুযায়ী, ঘূর্ণিঝড় আম্পানের কারণে শহরে গাছ পড়েছে প্রায় সাড়ে ১৫ হাজার। এতগুলি গাছ ভেঙে পড়ায় পরিবেশ ভারসাম্য রক্ষা নিয়ে পরিবেশবিদদের প্রশ্নের সম্মুখীন হচ্ছে কলকাতা করপোরেশন। তাই কিছু গাছ প্রতিস্থাপনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়ছে। 

আগামীতে কলকাতার বাতাসে দূষণ বাড়া নিয়ে শঙ্কিত পরিবেশ বিশেষজ্ঞরা। এ অবস্থায় শহরের পরিবেশ দুষণমুক্ত রাখতে, সবুজে ভরিয়ে তুলতে উদ্যোগী হলো মমতার সরকার।

কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম বুধবার (৩ জুন) বলেন, সম্প্রতি একটি উচ্চ পর্যায়ের কমিটি তৈরি করা হয়েছে। ওই কমিটিতে রাজ্যের বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়সহ আছেন কয়েকজন বিশেষজ্ঞ।

সেখানে ঠিক হয়েছে ঝড়ে যে সব গাছ পড়ে গেছে তারমধ্যে সাল, সেগুন, মেহগনিসহ গুরুত্বপূর্ণ ওষুধি গাছ আছে। যার মধ্যে অনেক গাছ এখনো বাঁচানো সম্ভব। যেগুলি বাঁচানো সম্ভব সেগুলি রিপ্ল্যান্ট বা প্রতিস্থাপন করা হবে। এবং সেসব গাছ যেমন রাস্তার দু’পাশে ছিল সেই সব স্থানেই ফের বসানো হবে। ইতোমধ্যে তা বসানোর কাজ শুরু হয়েছে। এসব গাছ বসাতে বড়ো ক্রেন ও ল্যাডার ব্যবহার করা হচ্ছে।

এছাড়া আগামী ৫ জুন পরিবেশ দিবস থেকে শহরের সবুজায়ন করতে ৫০ হাজার চারা ও মাঝারি বয়সের গাছ লাগানো শুরু হবে। ওই কর্মসূচির নাম দেওয়া হয়েছে, প্ল্যান্ট ট্রি অ্যান্ড সেভ লাইফ।

এছাড়া মেয়র বলেন, এর আগে কোনো ঝড়ই কলকাতার উপর দিয়ে সেভাবে বয়ে যায়নি। ফলে বাস্তবেই ঝড় মোকাবিলার অভিজ্ঞতা কলকাতা করপোরেশনের অনেক কম। তবে আম্পান থেকে শিক্ষা নিয়েছি।

ফলে রাস্তার পাশে এখন থেকে যেসব গাছ রোপণ করা হবে তা বুঝেশুনে এবং বিচার-বিবেচনা করেই রোপণ করা হবে। নতুন কমিটি এরমধ্যেই রিপোর্ট দেবে। সেই অনুযায়ী, বনদপ্তর থেকে আমরা গাছ কেনা শুরু করবো।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৫ ঘণ্টা, জুন ০৩, ২০২০
ভিএস/এএ

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa