ঢাকা, শনিবার, ১৪ ফাল্গুন ১৪২৭, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১৫ রজব ১৪৪২

স্বাস্থ্য

এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ ফ্লাইটে আসবে ভ্যাকসিন

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১৪৪৫ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৯, ২০২১
এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ ফ্লাইটে আসবে ভ্যাকসিন

ঢাকা: বাংলাদেশকে উপহার স্বরূপ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২০ লাখ ডোজ করোনার ভ্যাকসিন দিচ্ছে ভারত সরকার। আগামী বৃহস্পতিবার (২১ জানুয়ারি) এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ ফ্লাইটযোগে  আসবে এ ভ্যাকসিন।

 

গত মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়কে পাঠানো এক চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়।  

চিঠিতে জানানো হয়, ভারত সরকার বাংলাদেশ সরকারকে উপহার স্বরূপ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২০ লাখ ডোজ করোনার টিকা সরবরাহ করবে। টিকার চালানটি এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ ফ্লাইটযোগে আগামী বৃহস্পতিবার ঢাকায় পৌঁছাবে বলে আশা করা যাচ্ছে। এজন্য এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ প্লেনের গ্রাউন্ড হ্যান্ডেলিং চার্জসহ সব প্রকার চার্জ মওকুফের জন্য চিঠিতে অনুরোধ জানানো হয়।  

এর আগে গত মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম গণমাধ্যমকে জানান, উপহার হিসেবে ২০ লাখ ভ্যাকসিন পাঠাতে ভারত সরকারের পক্ষ গত সোমবার রাষ্ট্রীয়ভাবে এক চিঠিতে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে অবহিত করা হয়েছে। আগামী বৃহস্পতিবার এ টিকা আসার কথা রয়েছে।

তিনি বলেন, এ টিকা কোনো বাণিজ্যিক আদান-প্রদানের অংশ হিসেবে নয় বরং এটি মূলত ভারত সরকারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সরকারের জন্য উপহার। চিঠিতে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২০ লাখ টিকা দেওয়ার কথা বলা হয়েছে। এছাড়া ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশনও এ মর্মে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে চিঠি দিয়েছে।

বাংলাদেশ সরকার এরইমধ্যে জানিয়েছে, বেক্সিমকোর মাধ্যমে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে যে ভ্যাকসিন কেনা হচ্ছে তার প্রথম চালান আসার পর দু’দিন তা বেক্সিমকোর ওয়্যারহাউজে থাকবে। টঙ্গিতে বেক্সিমকোর দু’টি ওয়্যারহাউজ রয়েছে।

সেখান থেকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তালিকা অনুযায়ী দেশের বিভিন্ন জেলায় টিকা পাঠিয়ে দেওয়া হবে বলে জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক। প্রথমে যে ৫০ লাখ টিকা আসবে তার পুরোটাই দিয়ে দেওয়া হবে। আট সপ্তাহ পর দ্বিতীয় চালান এলে সেই ৫০ লাখও পুরো দিয়ে দেওয়া হবে। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহ থেকেই শুরু হবে টিকা দেওয়া।

এজন্য আগামী ২৬ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে টিকা গ্রহণে আগ্রহীদের রেজিস্ট্রেশন। আগ্রহীদের জাতীয় পরিচয়পত্র যাচাইয়ের মাধ্যমে নিবন্ধন করতে হবে। এরপর ওয়েব পোর্টাল থেকে ভ্যাকসিন কার্ড সংগ্রহ করতে হবে। এরপর এসএমএস-এর মাধ্যমে ভ্যাকসিন দেওয়ার তারিখ ও তথ্য পাঠানো হবে। প্রথম ডোজ নির্দিষ্ট তারিখ ও সময়ে দেওয়া হবে। দ্বিতীয় ডোজও নির্দিষ্ট তারিখ ও সময়ে দেওয়া হবে। সর্বশেষ ভ্যাকসিনের দু’টি ডোজ নেওয়ার পর পোর্টাল থেকে সনদ সংগ্রহ করতে হবে।  

বাংলাদেশ সময়: ১৪৪৩ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৯, ২০২১
জিসিজি/আরবি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa