php glass

খাদ্যে ভেজাল ও অনিয়মতান্ত্রিক খাদ্যাভাসেই বাড়ছে ক্যান্সার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

রাজধানীর আর্মি গলফ ক্লাবে দুই দিনব্যাপী অনকোলজি ক্লাব আয়োজিত ‘বাংলাদেশ ক্যান্সার কংগ্রেস’

walton

ঢাকা: বাংলাদেশে প্রতিবছর আড়াই লাখ মানুষ নতুন করে ক্যান্সারে আক্রান্ত হচ্ছে। এর কারণ খাদ্যে ভেজাল, বায়ু দূষণ ও অনিয়মতান্ত্রিক জীবন-যাপনের ফলে সৃষ্ট খাদ্যাভাস।

শুক্রবার (১১ অক্টোবর) ও শনিবার (১২ অক্টোবর) রাজধানীর আর্মি গলফ ক্লাবে দুই দিনব্যাপী অনকোলজি ক্লাব আয়োজিত ‘বাংলাদেশ ক্যান্সার কংগ্রেসে’ এ কথা জানান দেশি-বিদেশি ক্যান্সার বিশেষজ্ঞরা। 
 
সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে অনকোলজি ক্লাব বাংলাদেশের চেয়ারম্যান ও ক্যান্সার কংগ্রেসের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ডা. এম এ হাই বলেন, বাংলাদেশসহ উন্নয়নশীল বিশ্বে ক্যান্সার রোগীর ক্রমবর্ধমান সংখ্যা আশঙ্কাজনক। দেশে বর্তমানে বিপুল জনগোষ্ঠী এ রোগে আক্রান্ত। যার অধিকাংশই চিকিৎসা আওতার বাইরে। ক্যান্সার জয় করতে এবং দেশের ক্রমবর্ধমান ক্যান্সার রোগী ও তাদের পরিবারের মুখে হাসি ফোটাতে আমাদের সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।
 
দুই দিনব্যাপী এ আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বৈদেশিক অংশগ্রহণকারী হিসেবে যুক্তরাজ্যের এমএসবি গ্রুপ অব হাসপাতাল, ভারতের মুম্বাইয়ের টাটা মেমোরিয়াল হাসপাতাল, বোস্টনের মাসাকিসেটস জেনারেল হাসপাতাল, ইতালির আইআরসিসিএস আইআরএসটি ইনস্টিটিউটো সাইন্টিফিকো, ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব সিঙ্গাপুর, ভারতের রাজিব গান্ধী ক্যান্সার ইনস্টিটিউট অ্যান্ড রিসার্চ সেন্টার ও কিদওয়াই মেমোরিয়াল ইনস্টিটিউট অব অনকোলজি, জর্ডানের কিং হোসেন ক্যান্সার সেন্টার, জাপানের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট ফর কোয়ান্টাম অ্যান্ড রেডিওলজিক্যাল সাইন্স অ্যান্ড টেকনোলজি, লন্ডনের উইপস ক্রস ইউনিভার্সিটি হাসপাতাল, অস্ট্রেলিয়ার ওয়েস্টল্যান্ড এবং ব্ল্যাকটাউন, সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতাল, মুম্বাইয়ের অ্যাপোলো হাসপাতাল, ইতালির ইউনিভার্সিটি অব বল্গনা, যুক্তরাজ্যের বাকিংহাম শ্রাইর হেলথকেয়ার এবং ভারতের ব্লাড অ্যান্ড ম্যারো ট্রান্সপ্লান্টেশন ও হেলথ সিটি ব্যাঙ্গালুরুর ক্যান্সার চিকিৎসক ও গবেষকসহ বাংলাদেশের ক্যান্সার বিশেষজ্ঞরা অংশ নেন।
 
সম্মেলনে মোট ৭৫০ চিকিৎসকসহ অন্যরা প্রায় ১৮০টি গবেষণাপত্র উপস্থাপন করেন। যা দেশের ক্যান্সার চিকিৎসা উন্নতকল্পে আরও সহায়ক হবে বলে মনে করেন আয়োজকসহ সম্মেলনে উপস্থিত চিকিৎসকরা।    
 
বাংলাদেশ সময়: ১৮৫৩ ঘণ্টা, অক্টোবর ১২, ২০১৯
এমএএম/এনটি

মহাসড়কে যাত্রীদের শেষ ভরসা রিকশা-সিএনজি-লেগুনা
বিশ্বকাপের পরও খেলতে চান মালিঙ্গা
অনির্দিষ্টকালের জন্য সরে দাঁড়ালেন সানা মির
টিটিএডিসিকে টেরিটোরিয়াল কাউন্সিলে উন্নীত করার প্রস্তাব
কিন্ডারগার্টেন স্কুলগুলো নিবন্ধনের আওতায় আনা হবে


গাজীপুরে যান চলাচল কম, ভোগান্তিতে দূরপাল্লার যাত্রীরা
খাগড়াছড়িতে বাবাকে হত্যার দায়ে ছেলের মৃত্যুদণ্ড
অভিনেত্রী নওশাবার মামলা হাইকোর্টে স্থগিত
‘পরিবহনে চাঁদাবাজি বন্ধ হলে সব সমস্যার সমাধান হবে’
রাউজানে বিপুল অস্ত্রসহ ডাকাত সর্দার গ্রেফতার