দেশে মোট শিশু রোগীর ৫-৭ শতাংশই কিডনি রোগে আক্রান্ত

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

‘শিশু কিডনি সপ্তাহ ২০১৯ ও ডায়ালাইসিস কর্মশালা’ অনুষ্ঠান/ছবি: বাংলানিউজ

walton

ঢাকা: দেশের হাসপাতালগুলোতে আগত শিশু রোগীর ৫ থেকে ৭ শতাংশ শিশুই কিডনি রোগে আক্রান্ত। আক্রান্ত শিশু রোগীদের চিকিৎসা সেবা প্রদানে দেশে সরকারি-বেসরকারি পর্যায়ে ৬০ থেকে ৭০ জন শিশু কিডনি রোগ বিষয়ক চিকিৎসক বিভিন্ন হাসপাতালে কর্মরত আছেন।

php glass

রবিবার (১০ মার্চ) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) বি ব্লকের শহীদ ডা. মিলন হলে ‘শিশু কিডনি সপ্তাহ ২০১৯ ও ডায়ালাইসিস কর্মশালার’ (Kids Kidney Week 2019 & Dialysis Workshop) উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিশু কিডনি বিভাগের অধ্যাপক ও পেডিয়াট্রিক নেফ্রোলজি সোসাইটি অফ বাংলাদেশ’র (পিএনএসবি) সভাপতি অধ্যাপক ডা. গোলাম মাঈন উদ্দিন এ বিষয়ে বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক গবেষণাপত্র সূত্র তুলে ধরেন। 

তিনি বলেন, বর্তমানে দেশে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়, জাতীয় কিডনি ইন্সটিটিউট, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ও ঢাকা শিশু হাসপাতালে শিশু কিডনি রোগীদের ডায়ালাইসিস কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। বছরে প্রায় দুই থেকে আড়াই হাজার ডায়ালাইসিস দেওয়া হচ্ছে। কিডনি প্রতিস্থাপন ক্রোনিক শিশু কিডনি রোগীদের প্রধান চিকিৎসা। ২০০৬ সাল থেকে শুধু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়েই এই চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতালে এখন পর্যন্ত ১১ শিশুর কিডনি প্রতিস্থাপন সম্পন্ন হয়েছে এবং এসকল শিশু সুস্থ আছে। 

তিনি আরো জানান, পিএনএসবি দেশের চিকিৎসা বিষয়ক গবেষণা কার্যক্রমকে প্রসারিত করার জন্য নিয়মিত ‘পেডিয়াট্রিক নেফ্রোলজি জার্নাল অব বাংলাদেশ’ নামক জার্নাল প্রকাশ করে আসছে। বিএসএমএমই’তে প্রতিবছর বহির্বিভাগে ৭ হাজার শিশু কিডনি রোগী চিকিৎসা সেবা নেয় এবং বছরে প্রায় ৬ শতাধিক শিশু কিডনি রোগী ভর্তি হয়। এই রোগে ভর্তিকৃত রোগীর মৃত্যু হার ১ শতাংশ। বর্তমানে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত শিশু রোগী যারা হাসপাতালে চিকিৎসা সেবা নেয় তাদের মধ্যে ৫ থেকে ৭ শতাংশ শিশুই কিডনি রোগে আক্রান্ত হচ্ছে।  

এদিকে ১০ মার্চ ‘আন্তর্জাতিক বিশ্ব শিশু কিডনী দিবস’ উপলক্ষে শিশুদের কিডনি রোগের উন্নত চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত করতে ও শিশুদের কিডনি রোগ প্রতিরোধে বিএসএমএমইউ’তে শুরু হয়েছে ফ্রি কিডনি ক্লিনিক। ‘শিশু কিডনি সপ্তাহ ২০১৯ ও ডায়ালাইসিস বিষয়ক কর্মশালার’ অংশ হিসেবেই এ সেবা শুরু হয়েছে।

এবারে শিশু কিডনি দিবস-এর প্রতিপাদ্য হলো ‘সুস্থ কিডনি সবার জন্য, সর্বত্র (Kidney Health for Everyone, Everywhere)’। 

শিশু কিডনি সপ্তাহ উপলক্ষে “আপনার শিশুর কিডনি সুস্থ আছে তো; আসুন আজই আপনার শিশুর কিডনির সুস্থতা পরীক্ষা করে নিন এবং শিশুর কিডনি রোগ প্রতিরোধ করুন” ইত্যাদি বার্তা নিয়ে ফ্রি ক্লিনিকের আয়োজন করা হয়েছে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন বিএসএমএমইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কনক কান্তি বড়ুয়া। এ সময় ‘শিশু কিডনি সপ্তাহ ২০১৯ ও ডায়ালাইসিস কর্মশালার’ শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করে তিনি বলেন, এ ধরণের কর্মশালা তরুণ চিকিৎসকদের মাঝে শিশু কিডনি রোগ বিষয়ে জ্ঞান ও দক্ষতা বৃদ্ধিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। সেসাথে শিশু কিডনি রোগ প্রতিরোধে সচেতনতা বৃদ্ধি ও শিশু কিডনি রোগীদের চিকিৎসা সেবার প্রসারেও বিশেষ ভূমিকা পালন করবে। 

অধ্যাপক ডা. গোলাম মাঈন উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মুহাম্মদ রফিকুল আলম, সিঙ্গাপুরের ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি হাসপাতালের শিশু নেফ্রোলজি বিভাগের হেড এন্ড সিনিয়র প্রফেসর এবং ইন্টারন্যাশনাল প্যাডিয়াট্রিক নেফ্রোলজি এ্যাসোসিয়েশন-এর প্রেসিডেন্ট প্রফেসর ইয়াপ হুই কিম, বাংলাদেশ প্যাডিয়াট্রিক এ্যাসোসিয়েশন’র (বিপিএ) সভাপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নবজাতক বিভাগের অধ্যাপক মোহাম্মদ সহিদুল্লা, পিএনএসবি’র মহাসচিব অধ্যাপক ডা. আনোয়ার হোসেন খান, শিশু কিডনী বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. রণজিত রঞ্জন রায় প্রমূখ।

বাংলাদেশ সময়: ২৩২০ ঘণ্টা, মার্চ ১০, ২০১৯
এমএএম/এসএ

আইএসের পেছনে যুক্তরাষ্ট্রের হাত!
‘শহরগুলো পরিকল্পনার অভিধান মেনে চলে না’
কিরগিজস্তানকে হারিয়ে গ্রুপ সেরা বাংলাদেশের মেয়েরা
ড. কামাল নাটক করেছেন, এ দলই করবো না: পথিক
বিএনপি দল হিসেবে টিকবে, প্রশ্ন শেখ হাসিনার


সাগরে নিম্নচাপ, রূপ নিতে পারে ঘূর্ণিঝড়ে
নেত্রকোণায় পানিতে ডুবে ৩ শিশুর মৃত্যু
আলিয়ার উড়ন্ত যোগাভ্যাস
বৌ-ভাত খাওয়া হলো না শিশু মুনতাহার!
ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপকার শেখ হাসিনা: পলক