ক্যান্সার প্রতিরোধে চর্বি!!

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

চর্বি খেতে অনেকেরই বেশ ভয়। মোটা হবার ভয় ছাড়াও চর্বির কারণে হৃদরোগ, স্ট্রোক ছাড়াও নানারকম রোগের ঝক্কি ঝামেলা তো আছেই। কিন্তু, সব চর্বিই কি খারাপ? কিছু আছে উপকারী চর্বিও।  এদেরই একটা ওমেগা-৩।

php glass

চর্বি খেতে অনেকেরই বেশ ভয়। মোটা হবার ভয় ছাড়াও চর্বির কারণে হৃদরোগ, স্ট্রোক ছাড়াও নানারকম রোগের ঝক্কি ঝামেলা তো আছেই। কিন্তু, সব চর্বিই কি খারাপ? কিছু আছে উপকারী চর্বিও।  এদেরই একটা ওমেগা-৩। ক্যান্সার প্রতিরোধে ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড যথেষ্ট ভূমিকা রাখে বলে সামপ্রতিক এক গবেষণায় জানা গেছে। শুধু কি তাই, যেসব মহিলা দীর্ঘদিন ধরে ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিডসমৃদ্ধ খাদ্য গ্রহণ করেন তাদের মধ্যে স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কম। কোলন ও প্রোস্টেট ক্যান্সার প্রতিরোধেও এটি কার্যকর বলে জানান বিজ্ঞানীরা।

চর্বি কেন:
চর্বি মানুষের শরীরের এমন একটি উপাদান যা শরীরকে দৈনন্দিন কার্যক্রম পরিচালনার জন্য প্রয়োজনীয় শক্তি যোগায়, স্নায়ুগুলোকে আবৃত করে রেখে ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা করে, বিভিন্ন ধরনের হরমোনের মধ্যে সমতা বজায় রাখে, আমিষ ও শর্করাজাতীয় খাদ্য বিপাকে সহায়তা করে এবং ত্বক শিরাগুলোকে নমনীয় রাখতে এবং গিটগুলোতে তৈলাক্ততা সরবরাহের মাধ্যমে সচল রাখতে সাহায্য করে। কিন্তু নির্দিষ্ট মাত্রার চেয়ে বেশি পরিমাণ চর্বির উপস্থিতি শরীরের জন্য ক্ষতিকর হয়ে দাঁড়ায়। চর্বির মধ্যস্থ ফ্যাটি এসিডের ধরনের ওপরই নির্ভর করে শরীরের জন্য এর প্রয়োজনীয় পরিমাণ, ক্ষতিকর প্রভাব বা উপকারিতা।

ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড কী:
ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিডসমৃদ্ধ খাদ্য শরীরের জন্য বেশ উপকারী। ওমেগা-৩ এক ধরণের অসম্পৃক্ত চর্বি। মাছের তেলে ওমেগা-৩ থাকে। মস্তিষ্ককে সতেজ ও কার্যক্ষম রাখতে এবং রক্তে ট্রাইগ্লিসারাইডের পরিমাণ কমিয়ে হার্ট অ্যাটাক রোধে এ উপাদানটির বেশ ভাল ভূমিকা রয়েছে। অনিয়মিত হৃদস্পন্দনকে নিয়ন্ত্রণ করতেও এটি সাহায্য করে।

পরীক্ষায় দেখা গেছে, দৈনিক ৩ গ্রাম বা তার চেয়ে বেশি পরিমাণে মাছের তেল গ্রহণ করা হলে উচ্চ রক্তচাপ আক্রান্ত রোগীদের রক্তের চাপ কমে আসে; মস্তিষ্কের দিকে ধাবিত শিরাগুলোতে রক্ত জমে যাওয়ার কারণে মস্তিষ্কের স্ট্রোক হওয়ার সম্ভাবনাও প্রায় ৫০ ভাগ কমে আসে। কোন কোন সমীক্ষায় দেখা গেছে, ওমেগা-৩ ফ্যাটি এসিড হাড়ে ক্যালসিয়ামের মাত্রা বাড়াতে, অস্থিসন্ধির ব্যথা এবং অনমনীয়তা কমিয়ে আনতে এবং হাড়কে শক্তিশালী করে তুলতে সাহায্য করে এবং অস্থিসন্ধির প্রদাহজনিত (রিউমেটয়েড আর্থ্রাইটিস) রোগের প্রকোপও কমিয়ে আনে। এছাড়া বিষন্নতা কমিয়ে মানসিক অবস্থার উন্নতি ঘটাতে, বয়স্কদের স্মৃতিভ্রমজনিত রোগের প্রকোপ কমাতে এবং আলঝেইমার্স রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা কমিয়ে আনতেও এ উপাদানটি যথেষ্ট কার্যকর বলে প্রমাণ পাওয়া যায়।

কিভাবে ওমেগা-৩ পাওয়া যাবে:
উপকারী এ ফ্যাটি এসিডগুলোর প্রয়োজনীয়তা মেটাতে সপ্তাহে অন্তত দু-তিন বেলা মাছ খাওয়া বাঞ্ছনীয়।

রাজশাহীর ৭ প্রতিষ্ঠানকে ৫৮ হাজার টাকা জরিমানা
টার্মিনালেই বাস-চালকের কাগজপত্র দেখার নির্দেশ
পাস করেও কলেজে আবেদনের সুযোগ পাচ্ছেনা ৫৯ শিক্ষার্থী
গাইবান্ধায় ধানের বস্তা মাথায় নিয়ে বিক্ষোভ
মেহেরপুর সীমান্ত থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার


শেষ হলো চট্টগ্রামের প্রথম উন্মুক্ত বিতর্ক প্রতিযোগিতা
না’গঞ্জে বুড়িগঙ্গা তীরে অর্ধশতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ
মোদীর শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন মোজাম্মেল হক
১৯৯৬ বিশ্বকাপের লঙ্কান রূপকথা
ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯

১৯৯৬ বিশ্বকাপের লঙ্কান রূপকথা

ঢাকাবাসীর নির্বিঘ্ন ঈদ উদযাপনে তৎপর পুলিশ