php glass

ডিপ্রেশন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

আপনি বিষণ্নতায় বা ডিপ্রেশনে ভুগছেন, সন্দেহ নেই।

স্যার,
আমি আপনাদের বাংলানিউজ২৪ এর মনোকথা বিভাগের লেখা নিয়মিত পড়ি। আপনার লেখাটা আমার বেশি ভাল লেগেছে বলে আমি আপনাকে লিখছি। মানসিক রোগ সম্পর্কে আমার তেমন ধারণা ছিলো না। আপনাদের লেখাগুলো থেকে আমি জানতে পারলাম, সাথে নিজেকের সমস্যাকেও বুঝতে পারলাম।  

কিন্তু অনেক দেরি করে ফেলেছি। এটা বুঝতে যে, আমি একজন মানসিক রোগী। আসলে এটা আমার বোঝার আগে আমার আপনজনদের বোঝা উচিৎ ছিল। আমাদের মতো ফ্যামিলিতে মানসিক রোগকে রোগ বলে গণ্য করা হয় না। তারা আজও জানে না এ রোগের পরিণতি শেষ পর্যন্ত কি হবে। আমি নিজের সম্পর্কে কিছুই বলতে পারছি না , আমার মাথা কাজ করে না। কোনো কিছু লিখতে গেলে, কিংবা বলতে গেলে আমি বলতে পারি না।

বর্তমানে আমি মহা সমস্যায় আছি। আমার মনে হচ্ছে আমি আগের চেয়ে খারাপ অবস্থায় যাচ্ছি। আমার উচিৎ আপনাদের সঙ্গে যোগাযোগ করা। কিন্তু আমি তাও পারি না। কিভাবে, কোথায়, কেমন করে আমি যাব বুঝতে পারি না। উচিৎ আমার কোনো অভিভাবকের আমাকে সঙ্গে নিয়ে যাওয়া। কিন্তু তাও সম্ভব না।

আমি কি দিয়ে বোঝাব, বুঝতে পারছি না, আমার মনে হচ্ছে আমি দিন দিন কোনো এক ব্ল্যাক হোলের ভিতরে চলে যাচ্ছি। সুইসাইড করার প্রবণতা আমার ভিতরে খুব বেশি পরিমাণে। অন্তত মা বাবা বেঁচে থাকতে আমি তা করতে চাই না। আমি আপনাদের কাছে এই কটা দিন বাঁচতে চাই, যত দিন না আমার বাবা মা মারা যায়। আমাকে সাহায্য করুন। আমার নিজের পক্ষে যতটা সম্ভব চেষ্টা করিছি ভাল থাকার কিন্তু পারছি না। আমি অনেক কিছু বলতে চাই কিন্তু পারছি না বরং না লিখতে গিয়ে বুক ফেটে কান্না আসছে।


আমি জ্ঞান হবার পর মনে পড়ে না কোনো ডক্টরের কাছে গিয়েছি। শারীরিক তেমন কোনো সমস্যা আমার হয়নি কোনো দিন। তবে দিনে দিনে মনের ভিতরে যে একটা রোগ পুষে রেখেছি তা আমি কখনও বুঝতে পারি নাই।

 আমি আপনার সাথে দেখা করতে চাই। যদি আপনি রুগীদের প্রতি আন্তরিক হন, যদি আমার মতো একজন মানুষের উপকার করতে চান তবে আমাকে আপনার সাথে দেখা করার সুযোগ করে দেন। তা না হলে আমি কোথায় থেকে সুচিকিৎসা পাবো সেটা বলে দিতে পারেন। আমার প্রতি একটু দয়া করেন। আমি দীর্ঘ দিন যাবৎ এই সমস্যায় ভুগছি।  

আল্লাহ আপনার মঙ্গল করুন।

উত্তর: আপনার লেখাটি আমি মনোযোগ দিয়ে পড়লাম। আপনার কষ্টের কথা শুনে দুঃখই পেলাম। হ্যা, এটা সত্যি এখনো আমাদের দেশের অনেক মানুষ মানসিক রোগ বিষয়ে অনেক কিছু জানে না। অনেকে জানলেও মানতে চায় না। তাতে করে, কপাল পোড়ে আপনাদের মতো মানুষদের। সমস্যা দীর্ঘায়িত হয়। কষ্ট বাড়তে থাকে।

আপনার লেখা প্রত্যেকটি লাইনই দীর্ঘশ্বাস ভরা। বাবা-মায়ের প্রতি আপনার শ্রদ্ধাবোধ- ভালোবাসা আমাকে স্পর্শ করেছে।

দেরি হয়তো আপনার হয়েছে, কিন্তু এখন যেহেতু সমস্যাটি আপনি বুঝতে পেরেছেন। দেরি না করেই চিকিৎসা শুরু করুন। দেখবেন ধীরে ধীরে আবার সব কিছু সুন্দর হয়ে উঠবে। আপনার ভবিষ্যত, মা-বাবা সব কিছুকেই আপনি নতুন করে আবিষ্কার করতে পারবেন।

আপনি বিষণ্নতায় বা ডিপ্রেশনে ভুগছেন, সন্দেহ নেই। আপনি যেহেতু খুলনার কাছে, খুলনা মেডিকেল কলেজের মনোরোগ বিদ্যা বিভাগে যোগাযোগ করতে পারেন। ঢাকায় এলে, আমাদের সাথে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে যোগাযোগ করতে পারেন। তবে, দেরি না করে এখুনি চিকিৎসা শুরু করুন। আপাতত, টেবলেট- সেরোলাক্স (সারট্রালিন) ৫০ মিগ্রা, সকালে নাস্তার পর একটা করে শুরু করুন। এক সপ্তাহ পর সেরোলাক্স (সারট্রালিন) ১০০ মিগ্রা করে খাবেন। সাথে টেবলেট- ডিসোপেন (ক্লোনাজিপাম) ০.৫ মিগ্রা, সকালে অর্ধক ও রাতে একটা করে খাওয়া শুরু করুন। যদি সম্ভব হয় দুই সপ্তাহ ওষুধ চলার পর, কোনো একজন মনোরোগ বিশেষজ্ঞের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করুন। মনে রাখবেন দুই সপ্তাহ ওষুধ খেলেই আপনার সমস্যা সম্পূর্ণ দূর হবে না। এসব ওষুধ পূর্ণ মাত্রায় কাজ করতে অনেক সময়, অন্তত ৬ সপ্তাহ লাগতে পারে। তারপরেও ওষুধ চালিয়ে যেতে হবে। সুতরাং তাড়াহুড়া করবেন না। ধৈর্য ধরে চিকিৎসা চালিয়ে যাবেন।

আপনার সমস্ত কষ্ট ধীরে ধীরে কেটে যবে, গভীরভাবে সেই কামনা করছি।

প্রিয় পাঠক ‘মনোকথা’ আপনাদের পাতা। মনোরোগ নিয়ে যে কোনো মতামত ও আপনার সমস্যার কথা জানাতে পারেন আমাদের। আমরা পর্যায়ক্রমে অভিজ্ঞ মনোরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিয়ে আপনাদের প্রশ্নের জবাব জানিয়ে দেবো। আপনি চাইলে গোপন রাখা হবে আপনার নাম-পরিচয় এমনি কি ঠিকানাও।

আপনার সমস্যার কথা জানানোর সঙ্গে সমস্যার বিস্তারিত বিবরণ, আপনার নাম, বয়স, কোথায় থাকেন, পারিবারিক কাঠামো এবং এজন্য কোনো চিকিৎসা নিচ্ছেন কি না এ বিষয়ে বিস্তারিত আমাদের জানান। শুধুমাত্র সেক্ষেত্রেই আপনার সমস্যা সম্পর্কে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা জানানো সম্ভব হবে।

আপনার সমস্যা, মতামত বা পরামর্শ জানাতে আমাদের ই মেইল করুন-[email protected]

বাংলাদেশ সময়: ১০৫২ ঘণ্টা, জানুয়ারি ১৪, ২০১৪
এসএটি/

পর্যটনে দ্রুত দৃশ্যমান কিছু করতে চাই: মাহবুব আলী
পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ফেরি চলাচল শুরু
দুই হাত হারানো ক্রিকেটভক্ত রইসের মাসিক আয় ১৫ হাজার
দেশে ভ্রমণে আগ্রহ বাড়ছে নারীদের
ঘন কুয়াশার কারণে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ


সড়ক দুর্ঘটনায় প্রধান শিক্ষকের মৃত্যু
নম্বরপ্লেট বিহীন বিআরটিসি বাস ফেরত পাঠালেন শ্রমিকরা
ভেজাল-নিম্নমানের আইসক্রিম উৎপাদনে এক ব্যবসায়ীকে জরিমানা
বশেমুরবিপ্রবিতে আক্কাস আলীর বিরুদ্ধে পুনঃতদন্ত কমিটি গঠন
সোনারগাঁয়ে অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী আটক