php glass

ইতিহাসের এই দিনে

আইভী রহমানের প্রয়াণ

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

আইভী রহমান, ছবি: সংগৃহীত

walton

ঢাকা: ইতিহাস আজীবন কথা বলে। ইতিহাস মানুষকে ভাবায়, তাড়িত করে। প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়, যা কিছু ভালো, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানবসভ্যতার আশীর্বাদ-অভিশাপ।

তাই ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সব সময় গুরুত্ব বহন করে। এ গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে বাংলানিউজের পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘ইতিহাসের এই দিন’।

২৪ আগস্ট ২০১৯, শনিবার। ০৯ ভাদ্র ১৪২৬ বঙ্গাব্দ। ২২ জিলহজ ১৪৪০ হিজরি। এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এ দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনা
১৬০৮-  সরকারিভাবে ইংলিশ প্রতিনিধি প্রথমবার ভারতের সুরাটে আসেন।
১৬৯০-  ব্রিটিশ ব্যবসায়ী জব চার্নক সদলে সুতানুটিতে ইংল্যান্ডের জাতীয় পতাকা ওড়ান। দিনটিকে কলকাতা নগরীর পত্তন দিবস হিসেবে ধরা হয়।
১৮১৪-  ব্রিটিশ সেনাদল ওয়াশিংটন ডিসি অধিকার করে এবং হোয়াইট হাউস জ্বালিয়ে দেয়।
১৮২১-  মেক্সিকো স্পেনের উপনিবেশ থেকে মুক্ত হয়ে স্বাধীনতা লাভ করে।
১৮৭৫-  ক্যাপ্টেন ম্যাথুওয়েব সাঁতারে প্রথম ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দেন।
১৯১৪-  প্রথম বিশ্বযুদ্ধে জার্মানবাহিনী নামুর দখল করে।
১৯৪৯-  উত্তর আটলান্টিক চুক্তি সংস্থা (ন্যাটো) গঠিত হয়।
১৯৬৬-  ভারতীয় সাঁতারু মিহির সেন জিব্রাল্টার প্রণালী অতিক্রম করেন।
১৯৮৯- ৪৫ বছরের কমিউনিস্ট শাসনের পর পোল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী হলেন তাদেউজ মাজোউইকি।
১৯৯১-  তুর্ক মেনিয়ার সার্বভৌমত্ব ঘোষণা।
১৯৯১-  পূর্ব ইউরোপের দেশ ইউক্রেন সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন থেকে আলাদা হয়ে স্বাধীনতা লাভ করে।

জন্ম
১৮৯০- আর্জেন্টাইন সাহিত্যিক হোর্হে লুই বোর্হেস।
১৮৯৩- সংগীতশিল্পী ও সুরকার কৃষ্ণচন্দ্র দে।
১৯২৯- ফিলিস্তিনি নেতা নোবেলজয়ী ইয়াসির আরাফাত।

মৃত্যু
১৯২৭- মিশরের জাতীয় নেতা সাদ জগলুল পাশা।
১৯৫৪- ব্রাজিলিয়ান স্বৈরশাসক গেতুলিও বার্গাস।
১৯৮৮- সাংবাদিক ও সাহিত্যিক আবু জাফর শামসুদ্দীন।

১৯১১ সালের ১২ মার্চ গাজীপুরে জন্ম। তিনি ছিলেন একজন ধর্মনিরপেক্ষ ও প্রগতিশীল লেখক। উপন্যাস, ছোট গল্প ও মননশীল প্রবন্ধ লিখে তিনি খ্যাতি অর্জন করেন। তার রচিত ‘পদ্মা মেঘনা যমুনা’ বাংলা সাহিত্যের একটি অনন্য গ্রন্থ। এছাড়াও তার রচিত বেশ কিছু গ্রন্থ ইংরেজি, হিন্দি, উর্দু, মারাঠি, জাপানি ভাষায় অনুবাদ ও প্রকাশ হয়েছে।

২০০৪- আওয়ামী লীগ নেত্রী আইভী রহমান।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট রাজধানীর বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের সমাবেশে বর্বরোচিত গ্রেনেড হামলা চালানো হয়। এই হামলায় প্রয়াত রাষ্ট্রপতি জিল্লুর রহমানের সহধর্মীনি আইভী রহমান গুরুতর আহত হন। পরে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৪ আগস্ট তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। এই হামলায় ২৪ জন নিহত হয়েছিলেন।

আইভী রহমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নরত অবস্থায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নীতি ও আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে গণতন্ত্রের সংগ্রামে আত্মনিয়োগ করেন। স্বাধীনতাযুদ্ধ শুরু হলে ভারতে অস্ত্র চালনা এবং প্রাথমিক চিকিৎসা সহায়তা প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেন। ১৯৬৯ সালে মহিলা আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাতা সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৭৮ সালে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নির্বাচিত হন তিনি।

বাংলাদেশ সময়: ০০২৫ ঘণ্টা, আগস্ট ২৪, ২০১৯
টিএ/

ksrm
যুবলীগ নেতা খালেদ ডিবি হেফাজতে
জাহাজ নির্মাণশিল্পে নবদিগন্ত তুলে ধরেছে বসুন্ধরা গ্রুপ
শামসুজ্জামান দুদুর বক্তব্য ষড়যন্ত্রমূলক: মহিলা লীগ
ছাত্রলীগের পর যুবলীগ ধরেছি, একে একে সব ধরবো
‘বাংলাদেশ-ভারত বন্ধুত্ব আরও সময়োপযোগী-গাঢ় করতে হবে’


খুলনায় প্রথমবারের মতো দারাজ ‘সেলার সামিট’
চট্টগ্রাম বহু আগে থেকেই শিল্প-সাহিত্যের তীর্থ: অনুপম সেন
যা ছিল খালেদের টর্চার সেলে
শামসুজ্জামান দুদুর বিরুদ্ধে মামলার আবদেন, আ‌দেশ রোববার
প্রতিদিন কমেছে ডেঙ্গুরোগী ভর্তি