php glass

ইতিহাসের এই দিনে

চেরনোবিল পারমাণবিক বিপর্যয়

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহীত

walton

ঢাকা: ইতিহাস আজীবন কথা বলে। ইতিহাস মানুষকে ভাবায়, তাড়িত করে। প্রতিদিনের উল্লেখযোগ্য ঘটনা কালক্রমে রূপ নেয় ইতিহাসে। সেসব ঘটনাই ইতিহাসে স্থান পায়, যা কিছু ভালো, যা কিছু প্রথম, যা কিছু মানবসভ্যতার আশীর্বাদ-অভিশাপ।

তাই ইতিহাসের দিনপঞ্জি মানুষের কাছে সবসময় গুরুত্ব বহন করে। এই গুরুত্বের কথা মাথায় রেখে বাংলানিউজের পাঠকদের জন্য নিয়মিত আয়োজন ‘ইতিহাসের এই দিন’।

২৬ এপ্রিল ২০১৯, শুক্রবার। ১৩ বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ। এক নজরে দেখে নিন ইতিহাসের এই দিনে ঘটে যাওয়া উল্লেখযোগ্য ঘটনা, বিশিষ্টজনের জন্ম-মৃত্যুদিনসহ গুরুত্বপূর্ণ আরও কিছু বিষয়।

ঘটনা
১৯৩৩- নাৎসিদের কুখ্যাত গোপন রাষ্ট্রীয় পুলিশ বা গেস্টাপোবাহিনী গঠন।
১৯৩৭- স্পেনের গৃহযুদ্ধকালে জার্মান প্লেন থেকে গুয়ের্নিকায় বোমা ফেলা হয়।
১৯৫২- পূর্ব পাকিস্তান ছাত্র ইউনিয়ন প্রতিষ্ঠা।
১৯৫৪- উত্তর কোরিয়া, চীন, সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়ন, যুক্তরাষ্ট্রসহ ১৫টি রাষ্ট্র এবং দক্ষিণ কোরিয়ার প্রতিনিধি জেনেভায় কোরিয়া সমস্যা সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক সম্মেলন আয়োজন করে।
১৯৬৩- লিবিয়ার সংবিধানে নারী ভোটাধিকার পাস।
১৯৮৬- সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের অন্তর্গত ইউক্রেনের প্রিপিয়াত শহরের চেরনোবিল পারমাণবিক শক্তি উৎপাদন কেন্দ্রে দুর্ঘটনা ঘটে। একে ধরে নেওয়া হয় স্মরণকালের সবচেয়ে ভয়াবহ পারমাণবিক দুর্ঘটনা। নিরাপদ শীতলীকরণ নিয়ে একটি পরীক্ষা চলার সময় একটি পারমাণবিক চুল্লি থেকে এ দুর্ঘটনার সূত্রপাত। রাতের শিফটে কর্মীরা ভুল করে পারমাণবিক চুল্লিটির টার্বাইনে প্রয়োজনের অতিরিক্ত শীতল পানি প্রবাহিত করেন। ফলে সেখানে বাষ্প উৎপাদন কমে যায়। এতে চুল্লিটি উত্তপ্ত হতে থাকে এবং একপর্যায়ে প্রচণ্ড রকমের বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণ থেকে সৃষ্ট আগুন ১০ দিন পর্যন্ত স্থায়ী ছিল। সেইসঙ্গে ১৯৪৫ সালে হিরোশিমায় ফেলা অ্যাটম বোমার চেয়েও ৫০০ গুণ পারমাণবিক দূষণ ছড়িয়ে পড়ে পরিবেশে। ২৩৭ জন মানুষ পারমাণবিক বিকিরণের ফলে মারাত্মক অসুস্থ হয়ে পড়েন এবং প্রথম তিন মাসে অন্তত ৩১ জন মারা যান। 

সরকারি তথ্যমতে, দুর্ঘটনার কারণে প্রায় ৫০ লাখ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন এবং এর মধ্যে ছিল ছয় লাখ শিশু। এ দুর্ঘটনার ফলে ২০০ বিলিয়ন ডলারের সমপরিমাণ ক্ষতি হয়। বর্তমানে চেরনোবিল শহরটি পরিত্যক্ত এবং এর প্রায় ৫০ মাইল এলাকাজুড়ে বলতে গেলে কেউ বাস করে না।

১৯৯৪- তিন শতকের বর্ণবৈষম্য ভেঙে দক্ষিণ আফ্রিকায় নির্বাচন হয়।

জন্ম
১৭১১- স্কটিশ দার্শনিক ডেভিড হিউম।
১৮৮৫- সংগীতজ্ঞ আয়াত আলী খান।
১৮৯৪- বাংলাদেশি প্রাবন্ধিক, বিশিষ্ট সমালোচক, নাট্যকার ও জীবনীকার কাজী আবদুল ওদুদ। ঘনিষ্ঠভাবে বাঙালি মুসলিম সাহিত্য আন্দোলনের সঙ্গে সম্পর্কিত ছিলেন। ১৯৭০ সালে তিনি শিশির কুমার পদক লাভ করেন।
১৮৯৮- নোবেলজয়ী স্প্যানিশ কবি ভিসেন্তে আলেইসান্দ্রে।

মৃত্যু
১৯২০- প্রতিভাবান ভারতীয় গণিতবিদ শ্রীনিবাস রামানুজন।
১২১১- ইরাকের বিখ্যাত মুসলিম কবি কাজেম তামিমি বাগদাদি।

বাংলাদেশ সময়: ০০১৫ ঘণ্টা, এপ্রিল ২৬, ২০১৯
টিএ

ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করায় শিক্ষককে পুলিশে সোপর্দ
ক্ষেপণাস্ত্রসহ সৌদিতে সেনা পাঠাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র 
ফরিদপুরের চার ইউনিয়নের ৪ হাজার পরিবার পানিবন্দি
এনআরবিসি ব্যাংকের ষষ্ঠ বার্ষিক সাধারণ সভা
ন্যাপকিন তৈরির কাঁচামালে কর প্রত্যাহারের পরামর্শ


চারঘাটে অটোরিকশাচাপায় শিশুর মৃত্যু
ট্রেন দুর্ঘটনায় আহত ছেলেকে বাঁচানোর আকুতি মন্টুর
খাগড়াছড়িতে জলাশয়-ছড়া ভরাট করে কফি হাউস-মার্কেট
প্রিয়া সাহারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে পারবে না
আইসক্রিম ডে-ঘরে তৈরি আইসক্রিমে!