যেসব স্থান ভ্রমণ না করলে জীবনটাই বৃথা! (পর্ব-১)

ফিচার ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

যেসব স্থান ভ্রমণ না করলে জীবনটাই বৃথা!

ঢাকা: যারা সৌন্দর্য ভালোবাসেন তাদের কাছে ভ্রমণ নেশার মতো। একটা জীবন হয়তো আপনি দিব্যি পার করে দিলেন, কিন্তু এই পৃথিবীর অনেক কিছুই আপনার দেখা হলো না, তা কি হয়? তাই আর গড়িমসি নয়, এখনই বেরিয়ে পড়ুন ঘর থেকে। কোথায় যাবেন সেটা সিদ্ধান্ত নিতে জেনে নিন জীবনে একবার হলেও যেসব স্থান ভ্রমণ না করলে আফসোস রয়ে যাবে।

১. গিজার পিরামিড

১. গিজার পিরামিড
বিশ্বের প্রাচীন সাত আশ্চর্যের একটি এই গিজার পিরামিড। ২৫৬০ খ্রিস্টপূর্বে নির্মিত এই স্থাপত্য যুগে যুগে বিস্মিত করেছে গবেষকদের। ৩৮০০ বছরেরও বেশি সময় এটিই ছিল মানব নির্মিত সবচেয়ে উঁচু স্থাপত্য। জীবনে একবার হলেও এই অত্যাশ্চর্য স্থাপত্যটি দেখে আসা উচিত।

২. স্টোনহেঞ্জ, যুক্তরাজ্য

২. স্টোনহেঞ্জ, যুক্তরাজ্য
প্রায় ৩০০০ বছর আগে ২৫ টন পাথরে নির্মিত স্টোনহেঞ্জ স্থাপত্যশিল্পের আরেক বিস্ময়। এটি যুক্তরাজ্যের ওয়াল্টশায়ারের অ্যামাসবারির কাছে অবস্থিত। এটা একই সঙ্গে দৃষ্টিনন্দন এবং রহস্যময় একটি স্থাপনা। সুর্যাস্তের মুহূর্তে স্টোহেঞ্জ ও এর আশেপাশের এলাকার সৌন্দর্য মুগ্ধ করবে যেকোনো পর্যটককে।

৩. গ্র্যান্ড ক্যানিয়ন, আরিজোনা

৩. গ্র্যান্ড ক্যানিয়ন, আরিজোনা
পৃথিবীর সর্বোচ্চ গিরিখাত নামে পরিচিত আরিজোনার গ্র্যান্ড ক্যানিয়ন। প্রকৃতি ও বিশালতার যাদের পছন্দ তারা পছন্দের তালিকার প্রথমেই এই গিরিখাতকে স্থান দেবেন। এটি বিখ্যাত এর সৌন্দর্য, সৃষ্টির রহস্য ও বৈচিত্র্যের জন্য। প্রায় ২০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে এই অঞ্চলটি নৃতত্ত্ববিদ, বিজ্ঞানী ও অভিযাত্রীদের তীর্থস্থান। আর এই গিরিখাতের মধ্যে দিয়ে বয়ে গেছে খরস্রোতা কলোরাডো নদী।

৪. চীনের মহাপ্রাচীর

৪. চীনের মহাপ্রাচীর
মানুষের আরেক অসামান্য সৃষ্টি চীনের মহাপ্রাচীর। এটি মানুষের হাতে তৈরি বিশ্বের সবচেয়ে বড় স্থাপত্য। এর উচ্চতা পাঁচ থেকে আট মিটার এবং দৈর্ঘ্য ৮৮৫২ কিলোমিটার। এটি শুরু হয়েছে সাংহাই পাস থেকে, শেষ হয়েছে লোপনুর নামক স্থানে। ইতিহাস ও স্থাপত্য প্রেমীদের পছন্দের শীর্ষে এই প্রাচীর।

৫. রেড উড ন্যাশনাল পার্ক

৫. রেড উড ন্যাশনাল পার্ক
রহস্য ও রোমাঞ্চ প্রিয়দের পছন্দের জায়গা রেড উড ন্যাশনাল পার্ক। উত্তর ক্যালিফোর্নিয়ার রেড উড ট্রি বিশ্বের সবচেয়ে উঁচু গাছ। ৯০ ফুট পরিধির এ গাছেদের উচ্চতা হয় প্রায় ৩০০ ফুট। এখানে প্রায় হাজার ফুট উচ্চতার গাছও আছে। প্রাচীন গাছগুলো দেখতে কোনোটি লালচে, কোনোটি সবুজ আবার কোনোটি বাদামি। বিভিন্ন গল্প-উপন্যাসের মাধ্যমে রেড উড পার্ক ও রেড উড ফরেস্ট নিয়ে তৈরি হয়েছে নানান রহস্য।

বাংলাদেশ সময়: ১৪০০ ঘণ্টা, জুলাই ১২, ২০১৮
এনএইচটি/এএ

আ’লীগের মনোনয়নপত্র জমা দিলেন অপু বিশ্বাস
হলি আর্টিজান মামলার আসামি রিপন ৫দিনের রিমান্ডে 
সংস্কৃতি, সমাজকল্যাণ ও টেলিযোগাযোগে নতুন সচিব
হবিগঞ্জে জিকে গউছসহ বিএনপির ৪৮ নেতাকর্মীর জামিন
‘আতাউস সামাদ ছিলেন ভিন্ন উচ্চতার মানুষ’
দ্বি-পক্ষীয় সম্পর্ক শক্তিশালী করতে প্রস্তুত সিঙ্গাপুর 
নীলফামারীতে শতবর্ষী গাছ রক্ষার দাবি
কসবা সীমান্তে আসা রোহিঙ্গাদের নিয়ে এখনও জটিলতা কাটেনি
পুরো সিস্টেমকে অটোমেশনের আওতায় আনার প্রক্রিয়া চলছে
ধোনি-গিলক্রিস্টে অনুপ্রাণিত উইকেটরক্ষক সোহান