শিল্পকলায় শেষ হলো বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক উৎসব

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শিশু শিল্পীরা ক্যানভাসে ছবি অাঁকছে ও ভাষণ দিচ্ছে

walton

ঢাকা: বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিবস ও জাতীয় শিশু দিবসে দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালার মধ্য দিয়ে শেষ হলো বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৮। বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে এ আয়োজন শুরু হয়েছিলো বুধবার (৭ মার্চ)।

সমাপনী আয়োজন উপলক্ষে শনিবার (১৭ মার্চ) সন্ধ্যায় একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে শিশুদের জন্য প্রদর্শন করা হয় ‘আঁখি ও তার বন্ধুরা’ নামক চলচ্চিত্র। এর আগে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে বিভিন্ন সময়ে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ১৬৩ শিশু শিল্পীকে পুরস্কার দেওয়া হয়।

একই সঙ্গে মিত্সুবিশি এশীয় শিশুদের সচিত্র দিনলিপি (এনিক্কি ফেস্টা) ২০১৫-১৬ জাপানে মূল প্রতিযোগিতার জন্য ৮ জন ও বাংলাদেশে প্রদর্শনীর জন্য নির্বাচিত ৩৪৪ জন বিজয়ীকে পুরস্কার দেওয়া হয়।

বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি সিমিন হোসেন রিমি ও বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকী।

বিজয়ী শিশু শিল্পীদের চিত্রকর্ম নিয়ে একাডেমির চিত্রশালা মিলনায়তনের ১ নম্বর গ্যালারিতে শনিবার থেকে শুরু হয়েছে ১০ দিনব্যাপী চিত্র প্রদর্শনী। শিশু শিল্পীদের এ প্রদর্শনী চলবে আগামী ২৬ মার্চ পর্যন্ত।

প্রদর্শনী প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা এবং শুক্রবার বিকেল ৩টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

ছবি-বাংলানিউজএদিকে শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণ ও জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে সকাল থেকে আয়োজন ছিল আড়াই হাজার বর্গফুট ক্যানভাসে সহস্রাধিক শিশুর চিত্রাঙ্কন, বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি অঙ্কন, ক্লাউন শো, মুখোশ নাট্য ও অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী।

শিশুদের সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় ছিল ৭ মার্চের ভাষণ প্রতিযোগিতা, রাজধানীর আলী আহমেদ স্কুল অ্যান্ড কলেজের ৩০০ শিক্ষার্থীর পরিবেশনায় সমবেত সঙ্গীত ধন ধান্যে পুষ্পে ভরা, মানিকনগর মডেল হাইস্কুলের ২৫০ শিক্ষার্থীর পরিবেশনায় লিয়াকত আলী লাকী’র কথা ও সুরে সমবেত সঙ্গীত 'এ মাটি নয় জঙ্গিবাদের', এস ও এস শিশু পল্লীর পরিবেশনায় সমবেত নৃত্য ও একক সঙ্গীত।

সম্প্রতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৭ মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ ইউনেস্কোর স্বীকৃতি উপলক্ষে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি ৭-১৭ মার্চ আয়োজন করে ‘বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক উৎসব ২০১৮’। উৎসব আয়োজনে বরেণ্য শিল্পী, কবি, নারী ও শিশুদের অংশগ্রহণে বিশেষ বিশেষ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এসব আয়োজনের মধ্যে ছিল স্বরচিত কবিতা পাঠ, নৃত্য প্রযোজনা, সুর ও বাণীতে বঙ্গবন্ধু, চলচ্চিত্র নির্মাণ কর্মশালা, নাটক, অ্যাক্রোবেটিক প্রদর্শনী, প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনী, ঢাকা মহানগরসহ দেশব্যাপী চিত্রাঙ্কন ও ৭ মার্চের ভাষণ প্রতিযোগিতা।

বাংলাদেশ সময়: ০১৫১ ঘণ্টা, মার্চ ১৮, ২০১৮
এইচএমএস/আরএ

রাজধানীর যে ১৮ এলাকায় করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত
করোনা: দেশে ৬১ আক্রান্তের মধ্যে ৩৬ জনই ঢাকার
গাংনীর সেই ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত নন, লকডাউনমুক্ত বাড়ি
তেঁতুলিয়ায় সরকারি নির্দেশ না মানায় ১০ ব্যবসায়ীকে জরিমানা
সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে ত্রাণ নিলেন তাজরীনের শ্রমিকরা


করোনা রোধে | আলাউদ্দিন হোসেন  
বাইরে যাওয়া থামাও | ইমরুল ইউসুফ
বাঘাইছড়িতে জিপ-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে নিহত ১
ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে যোগাযোগ রাখুন
সিএনএন উপস্থাপিকা ব্রুক বাল্ডউইন করোনা আক্রান্ত