php glass

কোথায় এত অসুবিধে মঞ্চশিল্পী পরিচয় বহন করতে: নূনা আফরোজ

বিনোদন ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নূনা আফরোজ। ছবি: রাজীন চৌধুরী

walton

অভিনেত্রী, নাট্যকার, নির্দেশক, রবীন্দ্রপ্রেমী ও গবেষক নূনা আফরোজ। মঞ্চনাটক নিয়ে তার বিস্তর চিন্তা। আর মঞ্চ নাটকের মাধ্যমে রবীন্দ্র চেতনাকে সবার মধ্যে ছড়িয়ে দিতে নাট্যদল ‘প্রাঙ্গনেমোর’ প্রতিষ্ঠা করেন তিনি। তার প্রচেষ্টায় নাট্যদলটি এরইমধ্যে দেশের সীমা ছাড়িয়ে প্রশংসা কুড়িয়েছে আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও।

মঞ্চকর্মী না মঞ্চশিল্পী এই নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে একটি পোস্ট দিয়েছেন ‘আমি ও রবীন্দ্রনাথ’খ্যাত দাপুটে মঞ্চাভিনেত্রী নূনা আফরোজ।

সেখানে তিনি লিখেছেন, দেশের কাছে, সমাজের কাছে, রাষ্ট্রের কাছে, বিশ্বের কাছে আপনার পরিচয় কী? পাসপোর্টে আপনার পরিচয় লিখতে গিয়ে কী লিখবেন মঞ্চকর্মী? অন্য কোনো দেশে গিয়ে কী আপনি পরিচয় দেন আমি মঞ্চকর্মী? নাকি থিয়েটারের পরিচয়টাই দেন না? নাকি অন্য পরিচয় দেওয়াটা আপনার কাছে তখন অধিক সম্মানের হয়?

নূনা আফরোজ। ছবি: রাজীন চৌধুরীকিন্তু যারা মঞ্চের পরিচয় দিতেই বেশি ভালোবাসে? তারা কী বলবে মঞ্চকর্মী?  মঞ্চের লোকদের যখন মঞ্চে ডাকেন বা সম্বোধন করেন বিভিন্ন সময়, তখন কী বলেন মঞ্চকর্মী রামেন্দু মজুমদার কিংবা 
মঞ্চকর্মী শিমুল ইউসুফ বা মঞ্চকর্মী সঙ্গীতা চৌধুরী বা মঞ্চকর্মী তপন হাফিজ বা মঞ্চকর্মী মোহাম্মদ আলী হায়দার বা মঞ্চকর্মী রামিজ রাজু বা আলোকর্মী ঠান্ডু রায়হান বা রূপসজ্জাকর্মী জনি সেন? 

নাচে কেউ নুতন আসলে তাকে কী বলা হয় নৃত্যকর্মী? গানে কেউ নুতন আসলে তাকে কী বলা হয় কন্ঠকর্মী? ছবি আঁকায় কেউ নুতন আসলে তাকে কী বলা হয় চারুকর্মী?  দেখুন, থিয়েটার শিল্পের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সকলেই মঞ্চশিল্পী। যেমন ধরেন,  ডাক্তার- তার প্রথম পরিচয় সে ডাক্তারই।তার পরে হলো সে জুনিয়র ডাক্তার নাকি সিনিয়র ডাক্তার বা কত বছরের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন বা ভালো ডাক্তার না খারাপ ডাক্তার বা কোন বিষয়ের ডাক্তার।

নূনা আফরোজ। রাজীন চৌধুরীহ্যাঁ প্রকৃত শিল্পী হওয়ার যোগ্যতা আমাদের কারোর নেই। প্রকৃত শিল্পী হওয়া মুখের কথা নয়। আমার চারপাশে আমিতো শিল্পীই দেখি না,সব পারফর্মার, হাতেগোনা কয়েকজন ব্যতীত তা যে মাধ্যমেই হোক না কেনো। কিন্তু আমরা সবাই শিল্পের কাজটা করতে এসেছি। তাই পরিচয়টা শিল্পীই হওয়া উচিৎ। শিল্পীর স্তরভেদ অবশ্যই আছে। তার মানে এই নয়তো দেশের কাছে, রাষ্ট্রের কাছে, সমাজের কাছে, বিশ্বের কাছে আমাদের একটি পরিচয় থাকবে না? আমাদের কর্মী হয়ে থাকতে হবে বা লেবার? অন্য দেশের একটি ভিসা ফরম পূরণ করতে গিয়ে আমি আমার পরিচয়ে লিখতে পারবো না আমি থিয়েটার আর্টিষ্ট বা মঞ্চশিল্পী। আমি কোনো অফিস-আদালতে গিয়ে গর্ব নিয়ে বলতে পারবো না- আমি মঞ্চশিল্পী। নাকি সুবিধা মত তখন অন্য পরিচয় ব্যবহার করবো? কোথায় এত অসুবিধে মঞ্চশিল্পী পরিচয় বহন করতে?

আর একটি কথা বলি, নিজেকে এত সহজে কর্মী বলে ফেলাটা ঠিক নয় ভাই । যথার্থ কর্মী হওয়া অনেক কঠিন কর্ম। কর্মী হওয়ার যোগ্যতা সবার নেই, থাকেনা, হয় না। তাছাড়া কর্ম সব খানেই লাগে। কর্ম ছাড়া কোনো সিদ্ধি হয় না। সেটা আলাদা করে বলবার কী আছে? আপনি একাই কর্মী আর কোথাও কর্মী নেই? শিল্পী হয়ে ওঠার চেষ্টা তবু অনেকে করে নিজের স্বার্থে কিন্তু থিয়েটারের স্বার্থে কর্মী হওয়ার চেষ্টা খুব মানুষই করে।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৮ ঘণ্টা, আগস্ট ২৭, ২০১৯
ওএফবি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: মঞ্চ
প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নানা আয়োজন সিএমপির
২ বছরের মধ্যে ডিএনসিসির সব সুবিধা মিলবে অনলাইনে: আতিক
গণপরিবহনে যৌন হয়রানি বন্ধ চান সুজন
১৪২টি পদক নিয়ে ১৩তম আসর শেষ করল বাংলাদেশ
আইয়ুব বাচ্চুকে উৎসর্গ করে ‘উড়ে যাওয়া পাখির চোখ’


মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ছাত্রলীগ নেত্রী নিহত
‘শান্তির দূত’ থেকে যেভাবে গণহত্যার কাঠগড়ায় সু চি 
টিকফা বৈঠক পিছিয়ে মার্চে
ব্যাট হাতে দাপট দেখিয়েছেন যারা
পেশীশক্তি নয়, আদর্শের রাজনীতি করুন: নওফেল