গ্রামের নারীরা এখনো পিছিয়ে: দিলারা জামান

মো. জহিরুল ইসলাম, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

দিলারা জামান

walton

অভিনয় দিয়ে লাখো দর্শকের মন জয় করা দিলারা জামান, ব্যক্তিত্ব ও ভালোবাসা দিয়ে সহকর্মীদের কাছে মায়ের মতোই সম্মান অর্জন করেছেন। 

php glass

আমরা যখন ষাটের দশকে কাজ শুরু করি, তখনকার সঙ্গে আজকের সময়ের অনেক পার্থক্য। এখন শুধু অভিনয়কেই একটি ছেলে বা মেয়ে পেশা হিসেবে নিতে পারেন। কিন্তু তখন এটা চিন্তাই করা যেত না। তবে সিনেমার ক্ষেত্রে বিষয়টি কিছুটা ভিন্ন ছিল। নারীদের অভিনয় করার সুযোগ নিয়ে কথাগুলো বলছিলেন প্রবীণ অভিনেত্রী দিলারা জামান। 

দিলারা জামানদীর্ঘ অর্ধশত বছরেরও বেশি সময় ধরে তিনি বড় ও ছোট পর্দায় অভিনয় করে আসছেন। জয় করেছেন অসংখ্য দর্শকের হৃদয়। নারী দিবস উপলক্ষে নারীদের নানা সুযোগ-সুবিধা ও স্বাধীনতা নিয়ে তিনি কথা বলেছেন বাংলানিউজের সঙ্গে। দিলারা জামান মনে করেন, নারীদের কর্মক্ষেত্রে সুযোগ এখন অনেক বেশি। প্রযুক্তির কল্যাণে এই সুযোগ ধীরে ধীরে আরও বিস্তার লাভ করছে। অভিনয়ের ক্ষেত্রেও চাইলেই নারীরা এখন স্বাচ্ছন্দ্যে কাজ করতে পারছেন। 

তিনি বলেন, আমাদের সময় মানুষ অভিনয়টা নেগেটিভ ভাবে দেখতেন, সেটা এখন আসলে কেউ তেমন ভাবে দেখেন না। মেয়েরা চাইলে অভিনয় করে নিজের ক্যারিয়ার গড়তে পারছেন। এটা আসলে অনেক ভালো একটা দিক।

তার মতে নারীরা এখনো সব বিষয়ে পুরো স্বাধীন না। তবে আগের তুলনায় দেশের নারীরা অনেক এগিয়ে গেছেন। তিনি বললেন, যে মেয়েটি অর্থনৈতিকভাবে স্বাধীন ও সক্ষম, তার মতামত পরিবারের কাছে যতটুকু গুরুত্ব পায়; অন্য ক্ষেত্রে তা কম দেখা যায়। অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী নারীরা অন্যদের চেয়ে বেশি স্বাধীনতা পান।

শহরে কাজের সুযোগ অনেক বেশি থাকলেও গ্রামে এখনো সেভাবে নারীদের কাজের সুযোগ কম বলে মনে করেন দিলারা জামান। পাশাপাশি গ্রামের নারীদের নিরাপত্তা কম বলেও মনে করেন তিনি। নানা সময় পত্রিকায় নারীদের নির্যাতনের খবর দেখি। এখনো অনেক জায়গায় গ্রামের মেয়েরা নিরাপদে স্কুলে যেতে পারে না, পড়াশোনা করতে পারে না। গ্রামের ক্ষমতাবানদের হাতে নির্যাতিত হয়। 

সবশেষে আশাবাদ ব্যক্ত করে দিলারা বলেন, ‘নারীর ক্ষমতায়নকে আমি সাধুবাদ জানাই। বহু বাধার মধ্যেও নারীরা দুর্বার গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। সেটা আসলেই অনেক ভালো লাগে। তবে আমি চাই, নারীদের যাতে আরও স্বাধীন ও নিরাপদভাবে কাজ করার সুযোগ তৈরি হয়। দেশের অর্থনীতিতে আরও অবদান রাখতে পারেন।

বাংলাদেশ সময়: ১৩৩০ ঘণ্টা, মার্চ ০৮, ২০১৯
জেআইএম/এসআইএস

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: বিনোদন
বায়েজিদে পানিবন্দি শতাধিক পরিবার
অসুস্থ ছাত্রলীগ নেতাকে দেখতে গেলেন নওফেল
বান্দরবানে আ’লীগ নেতা হত্যার প্রতিবাদে অর্ধদিবস হরতাল
কল্যাণকামী-বৈষম্যহীন সমাজ চেয়েছিলেন মোজাফফর আহমদ
ভিড় বাড়ছে হকার্স মার্কেটে


গাজীপুরে বসুন্ধরা সিমেন্টের ইফতার মাহফিল
জন্মবার্ষিকীতে সিলেটে কবি নজরুলকে স্মরণ
থানচিতে দেয়াল ধসে শ্রমিকের মৃত্যু
প্রধানমন্ত্রী যা বলেন তাই করেন: রেলমন্ত্রী
‘কে তোমাকে এতো ভালোবাসতে পারে’