দেশে ফেরার ইচ্ছে নেই নায়িকা সোনিয়ার

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ঢালিউডের নব্বুই দশকের সুপরিচিত নায়িকা সোনিয়া লন্ডনে স্থায়ী হয়েছেন। বিয়ের পর থেকে গত প্রায় সাত বছর স্বামীর সঙ্গে তিনি লন্ডনেই অবস্থান করছেন। সেখানকার বাঙালি কম্যুনিটির কাছে তিনি এখন ‘হাসি’ নামে পরিচিত। সোনিয়ার আপাতত দেশে ফেরার কোনো ইচ্ছে নেই। সম্ভাবনা নেই আর কখনো চলচ্চিত্রে অভিনয়ের।

ঢালিউডের নব্বুই দশকের সুপরিচিত নায়িকা সোনিয়া লন্ডনে স্থায়ী হয়েছেন। বিয়ের পর থেকে গত প্রায় সাত বছর স্বামীর সঙ্গে তিনি লন্ডনেই অবস্থান করছেন। সেখানকার বাঙালি কম্যুনিটির কাছে তিনি এখন ‘হাসি’ নামে পরিচিত। সোনিয়ার আপাতত দেশে ফেরার কোনো ইচ্ছে নেই। সম্ভাবনা নেই আর কখনো চলচ্চিত্রে অভিনয়ের।

ঢালিউডের মিস্টি হাসির নায়িকা খেতাব পাওয়া সোনিয়া এখন পুরোপুরিই গৃহিনী। সম্প্রতি তিনি তৃতীয় সন্তানের মা হয়েছেন। ঘর-সংসার আর স্বামী-সন্তান নিয়েই আছেন সোনিয়া। তাকে শেষবার অভিনয়ে দেখা গেছে দেবাশীষ বিশ্বাস পরিচালিত ‘শ্বশুরবাড়ি জিন্দাবাদ’ ছবিতে। এই ছবিটির পর পরই  তিনি বিয়ের পিঁড়িতে বসে পড়েন। ব্যবসায়ী স্বামীর সঙ্গে পাড়ি দেন লন্ডন। এরপর তার দেশে ফেরা হয় নি। সম্প্রতি বাংলানিউজের সঙ্গে যোগাযোগ হলে সোনিয়া জানান, লন্ডনেই তিনি স্থায়ীভাবে সাজিয়েছেন সংসার। হয়তো কোনোদিন স্বামী-সন্তানদের নিয়ে কয়েকদিনের জন্য দেশে বেড়াতে আসতে পারেন। এছাড়া দেশে ফেরার কোনো সম্ভাবনা তার নেই।

বড় হয়ে একজন ব্যারিষ্টার হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন সোনিয়া। কিন্তু সেই স্বপ্ন পূরণের ধারে-কাছে পৌঁছানোর আগেই তার চলচ্চিত্রে অভিষেক হয়ে যায়। ১৯৯১ সালের শেষের দিকে ‘মাস্তান রাজা’ ছবিতে নায়িকা শাবানার কিশোরী বয়সের চরিত্রে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে তিনি চলচ্চিত্রে পা রাাখেন। সোনিয়া অবশ্য খুব ছোটবেলা থেকে বাফাতে নাচ শিখেছেন। চলচ্চিত্রে আসার আগে বিটিভির বিভিন্ন অনুষ্ঠানে তিনি নৃত্য পরিবেশনও করেছেন।

চলচ্চিত্র নায়িকা হিসেবে ভিত্তি দাঁড় করানোর আগেই সোনিয়া মডেলিংয়ের মাধ্যমে দেশ জুড়ে পান সুপরিচিতি। ১৯৯২ সালে আফজাল হোসেনের নিদের্শনায় ‘মিডল সাবান’ এবং সাইদুল আনাম টুটুলের নির্দেশনায় ‘সিটিজেন টেলিভিশনে’র বিজ্ঞাপনে মডেল হিসেবে কাজ করেন।

ঢালিউডে পরিপূর্ণ নায়িকা হিসেবে সোনিয়াকে দেখা যায় নায়ক-রাজ রাজ্জাক পরিচালিত ছবি ‘প্রেম শক্তি’-তে। ব্যবসা সফল এ ছবিতে তার বিপরীতে নায়ক ছিলেন বাপ্পারাজ। এরপর সোনিয়া একে একে অভিনয় করেন ৫০টিরও বেশি ছবিতে। যার মধ্যে উল্লেখযোগ ্যছবি হলো ‘প্রেম প্রতিশোধ’, ‘শত জনমের প্রেম’, ‘ভয়ংকর সাতদিন’, ‘তছনছ’, ‘ওরা দেশের সন্তান’, ‘পরান কোকিলা’, ‘লাভলেটার’ প্রভৃতি ।

চলচ্চিত্রে অভিনয়ের পাশাপাশি সোনিয়া টিভিনাটকেও নিয়মিত অভিনয় করতেন। সোনিয়া অভিনীত উল্লেখযোগ্য নাটকের মধ্যে রয়েছে ‘পড়শী’, ‘বেদের মেয়ে’, ‘নানা রকম মানুষ’, ‘খান বাহাদুরের তিন ছেলে’, ‘প্রান্ত রেখায়’, ‘বাবরী নামের মেয়েটি’, ‘ধূসর প্রহর’ প্রভৃতি । চলচ্চিত্র বা টিভিনাটক কোনোটাই তাকে টানে না বলে জানিয়েছেন সোনিয়া।

বাংলাদেশ সময়  ১৭৩৫, আগস্ট ০৮, ২০১১

সিলেটে করোনা উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসাধীন ৩ জন
বেওয়ারিশ কুকুরগুলোর খাবার দিচ্ছেন পটুয়াখালীর মেয়র
করোনা: আইনজীবীদের প্রণোদনা দেওয়ার দাবি
মোবাইল কলে জানালে পৌঁছে যা‌বে সহায়তা
ক্ষুদ্র-মাঝারি উদ্যোক্তাদের জন্য তহবিল গঠনের আহ্বান 


বরিশাল বিভাগে ২৪৬৪ জনের হোম কোয়ারেন্টিন সম্পন্ন
যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় বিএনপি নেতার মৃত্যু, ফখরুলের শোক
সুন্দরগঞ্জে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেল আরোহী নিহত
লোহাগাড়ায় আমিনুল ইসলামের ত্রাণ পেলো ১৮শ কর্মহীন শ্রমজীবী 
ফেনীতে মারা যাওয়া সেই যুবকের করোনা নেগেটিভ