তদন্ত রিপোর্টের পর ‘মাত্রা’র বিরুদ্ধে মামলা করবেন আবিদের বাবা

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

মানবাধিকার কমিশনের তদন্ত রিপোর্টের পর মামলা করা হবে বিজ্ঞাপনী সংস্থা ‘মাত্রা’র বিরুদ্ধে। ক্লোজআপ-ওয়ান তারকা আবিদ শাহরিয়ারের মৃত্যুর ঘটনায় মানবাধিকার কমিশন তদন্ত করছে।

খুলনা: মানবাধিকার কমিশনের তদন্ত রিপোর্টের পর মামলা করা হবে বিজ্ঞাপনী সংস্থা ‘মাত্রা’র বিরুদ্ধে। ক্লোজআপ-ওয়ান তারকা আবিদ শাহরিয়ারের মৃত্যুর ঘটনায় মানবাধিকার কমিশন তদন্ত করছে।

শনিবার সকালে খুলনা প্রেসক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে একথা বলেন আবিদের বাবা অ্যাডভোকেট মিনা মিজানুর রহমান।

তিনি বলেন, ‘আমরা জানি  আবিদ আর কোনও দিন ফিরে আসবে না। তাকে হারানোর ক্ষতি কোনো মূল্যেই পূরণ করা সম্ভব হবে না। কিন্তু আমরা চাই না কোনো প্রতিষ্ঠান বা ব্যক্তির দায়িত্বের অবহেলায় আর কারো সন্তান অকালে হারিয়ে যাক, দেশ একজন দেশপ্রেমিক সম্ভাবনাময় তরুণ শিল্পীকে হারাক। আমরা স্বনামধন্য বিজ্ঞাপনী সংস্থা ‘মাত্রা’র ভূমিকায় ভাষা হারিয়ে ফেলেছি।’

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘আমরা বুঝে উঠতে পারছি না প্রকৃতির নিয়মে আবিদকে চলে যেতে হলো, নাকি এর পেছনে কোনো কারণ আছে। এসব সন্দেহ বা দ্বিধা আমাদের কখনোই তাড়িত করেনি। কিন্তু আবিদের প্রতিষ্ঠান বিজ্ঞাপনী সংস্থা ‘মাত্রা’ ও প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার অভিনেতা আফজাল হোসেনের ভূমিকা আজ দেশবাসীর কাছে নানা প্রশ্নের জন্ম দিয়েছে। আবিদ তার মাত্রা’র সহকর্মীদের সঙ্গে একটি অফিসিয়াল কর্মসূচিতে কক্সবাজার অবস্থান করছিল। দুর্ঘটনার পরদিনই তার ফিরে আসার কথা ছিল।’

মিনা মিজানুর রহমান বলেন, ‘আমাদের প্রশ্ন ‘মাত্রা’র কক্সবাজারের কর্মসূচিতে ৩৫/৪০ জনের মতো লোক ছিল। এ ধরণের ট্যুরে সাধারণত শিডিউল অনুযায়ী কর্মসূচি বাস্তবায়িত হয়। আর এ ধরণের টিমে চিকিৎসক, নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যবস্থা, গাইডেন্স থাকাও স্বাভাবিক। কিন্তু এতো সব উপেক্ষা করে কীভাবে ছেলেরা সাগর সৈকতের বিপজ্জনক পয়েন্টে খেলাধূলা করতে নেমে গেল। এটা কেন কেউ নিয়ন্ত্রণ করলো না। চারজনের মধ্যে ভাগ্যক্রমে বেঁচে থাকা অজ্ঞাত তরুণকে কেন সেই দিনের ভয়াবহতার কথা মিডিয়ায় বলতে দেয়া হলো না?’

তিনি বলেন, ‘আজ পর্যন্ত আবিদের প্রতিষ্ঠানের কেউ সহানুভূতির হাত বাড়িয়ে দেয়নি। ঢাকায় বিভিন্ন সংগঠন ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে আবিদের প্রতি শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয়। বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল শেষ শ্রদ্ধা জানাতে তাকে শেষ বারের মতো তাদের প্রতিষ্ঠানে নিয়ে গেছে। কিন্তু সেখানে আবিদের সর্বশেষ কর্মস্থল ‘মাত্রা’ প্রধান আফজাল হোসেনসহ কাউকে দেখা যায়নি। এমনকি তাদের কোনো প্রতিনিধি আবিদকে শেষ বিদায় জানাতে খুলনায় আসেনি।’

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কবি আবু বক্কার সিদ্দিক, সাবেক এমপি নূরুল ইসলাম দাদু, অ্যাডভোকেট মঈন উদ্দিন, মিনা সামছুর রহমান, মিনা আজিজুর রহমান, কমরেড হাফিজুর রহমান ভূঁইয়া প্রমুখ।

এর আগে আবিদ শাহরিয়ারের অকাল মৃত্যুতে বিজ্ঞাপনী সংস্থা মাত্রা’র ও এর কর্ণধার আফজাল হোসেনের দায়িত্বহীনতা ও অমানবিক আচরণের প্রতিবাদে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

শিল্পী আবিদ শাহরিয়ার স্মৃতি পরিষদ এ মানববন্ধন কর্মসূচি আহ্বান করে।

মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কবি আবু বক্কর সিদ্দিক,  ওস্তাদ কালীপদ দাশ, শিক্ষাবিদ জাফর ইমাম, শিক্ষাবিদ শংকর মল্লিক, অ্যাডভোকেট মমিনুল ইসলাম, কমরেড হাফিজুর রহমান ভূঁইয়া প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৩০ ঘণ্টা, আগস্ট ০৬, ২০১১

ওসির গাড়িতে গর্ভবতী নারীকে নেওয়া হলো হাসপাতালে
রামগতিতে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় সাংবাদিক নিহত
করোনায় সিরিয়ায় প্রথম মৃত্যু
স্বল্প পরিসরে চেক ক্লিয়ারিং করার নির্দেশ
করোনায় ইতালিতে আরও ৭৫৬ জনের মৃত্যু


করোনাভাইরাস মোকাবিলায় প্রধানমন্ত্রীর বার্তা
প্রধানমন্ত্রীর তহবিলে ১ দিনের বেতন দিলেন সেনা সদস্যরা
মাঠে নেমে সহায়তা করছেন বলিউড তারকারা
ল্যাব না থাকলেও সিংড়ায় গেল দুই'শ করোনা টেস্টিং কিট
মানুষকে টেলিফোনে চিকিৎসাসেবা দিতে ফারাজের উদ্যোগ