বিদেশি পর্যবেক্ষক আনতে ইসিকে সতর্ক থাকতে বললো আ’লীগ

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ইসির সঙ্গে বৈঠক শেষে কথা বলছেন এইচ টি ইমাম-ছবি-বাংলানিউজ

walton

ঢাকা: আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিদেশি পর্যবেক্ষকদের অনুমতি দেওয়ার ক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশনকে সতর্ক থাকতে বললো আওয়ামী লীগ।

রোববার (২ ডিসেম্বর) দুপুরে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) সঙ্গে বৈঠক শেষে দলটির নির্বাচন পরিচালন কমিটির কো-চেয়ারম্যান এইচ টি ইমাম সাংবাদিকদের এমন কথা জানান।

তিনি বলেন, আমরা চাই সুষ্ঠু, সুন্দর, স্বচ্ছ এবং সবার অংশগ্রহণে একটা নির্বাচন, যেটা গ্রহণযোগ্য হবে। এছাড়া একটি বিষয় আমরা আলোচনা করেছি, আমাদের দেশে নির্বাচন পর্যবেক্ষণ সংস্থার সংখ্যা অনেক। ১১৮টি বিভিন্ন সংস্থা নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে নিবন্ধিত। তাদের সদস্য সংখ্যা কয়েক লাখ হবে। তারা সারাদেশে নির্বাচন পর‌্যবেক্ষণ করবে। তারওপর বিদেশে থেকে যদি আমরা আবার আহ্বান করতে থাকি, তাহলে তো এদের দেখাশোনা করতে গিয়ে সিকিউরিটির অবস্থা খারাপ হয়ে যাবে। এ বিষয়ে সতর্ক থাকা দরকার। বিধিমালা যেটি আছে, তাতে স্পষ্ট বলা আছে, স্থানীয় নির্বাচন পর‌্যবেক্ষকরা কিভাবে নির্বাচন পর‌্যবেক্ষণ করবেন, বিদেশি হলেও কী আচরণ করবেন। এগুলো যাতে খুব শক্তভাবে পরিচালনা করা হয়, এগুলো যাতে সবাই মেনে চলেন, সে কথা আমরা বলেছি।

বিদেশি পর‌্যবেক্ষ আসতে নিরুৎসাহিত করছেন, সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে এইচ টি ইমাম বলেন, না। আমরাই বলেছি বিদেশিরা আসতে পারে। কিন্ত বিদেশিরা অনেক সময় সাংবাদিক সেজে আসে, হঠাৎ করেই বলে আমি একজন পর‌্যবেক্ষক। এই ধরনের যাতে না ঘটে। আচরণবিধি অনুযায়ী যেই আসুক, দেশি-বিদেশি যিনিই থাকবেন নির্বাচনে, বাংলাদেশের আইন মেনে চলতে হবে। এটি আমাদের সার্বভৌমত্বের ব্যাপার।

তিনি বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকে কী পর‌্যবেক্ষণ দেওয়া হয়েছে। বলুন? তারা দেখে গেছে, পর‌্যবেক্ষণ করে গেছে এবং বলেছে, বাংলাদেশে সুষ্ঠু-সুন্দর নির্বাচন করা চমৎকার পরিবেশ আছে। অতএব এখানে পর‌্যবেক্ষ পাঠানোর প্রয়োজন নেই।

খালেদার মনোনয়নপত্র বাতিলের বিষয়ে এইচটি ইমাম বলেন, এটা তো নির্বাচন কমিশনের বিষয়। রিটার্নিং কর্মকর্তার ব্যাপার এবং সুপ্রিম কোর্টের ব্যাপার। এরমধ্যে আমি কোনো মন্তব্য করবো না।

এটা কি শুধুই রিটার্নিং কর্মকর্তার বিষয়, এতে কী লেবেল প্লেয়িং ফিল্ড থাকে-এ প্রশ্নের জবাবে তিনি আরও বলেন, এটা কিন্তু রাজনৈতিক দলের প্রধানের বিষয় নয়। এটা একটি দণ্ডিত ব্যক্তির বিষয়। এখানে আইনের কোনো ব্যত্যয় নেই। সবার জন্যই এটা প্রযোজ্য।

এ সময় দলটির আরেক নেতা কর্নেল (অব.) ফারুক বলে, এটা সবার জন্য সমান। কেননা, আইন সবার জন্য এক। দলের প্রধান হলেও কোনো ব্যক্তির জন্য আইন আলাদা হবে না। আমি তো মনে করি এই প্রশ্নের উত্তর হচ্ছে-এতে প্রমাণিত হয় যে, বাংলাদেশের লেবেল প্লেয়িং গ্রাউন্ড আছে। সবার জন্য আইন। দ্যাট ইজ লেবেল প্লেয়িং গ্রাউন্ড।

বাংলাদেশ সময়: ১৬৫৩ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২, ২০১৮
ইইউডি/আরআর

Nagad
বান্দরবান হত্যাকাণ্ড: নিহত ৬ জনের দাহ সম্পন্ন
হাতীবান্ধায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে কৃষকের মৃত্যু 
আ. লীগকে বারবার ক্ষমতায় আনতেই ইসির যতো উদ্যোগ: ফখরুল
বন্ধ পাটকলগুলো আধুনিকায়ন করা হবে: প্রধানমন্ত্রী
করোনায় ২৪ ঘণ্টায় ৪১ মৃত্যু, শনাক্ত ৩৩৬০


চট্টগ্রামেও কোরবানির পশু পরিবহন করবে ট্রেন
ঈদের আগেই বেতন-বোনাস দাবি শিক্ষক-কর্মচারীদের
ফিল্ড হাসপাতালে হাই ফ্লো-ন্যাসাল ক্যানোলা প্রদান
খুলনা জেলা পরিষদের শিক্ষাবৃত্তি পেলো ৪৫০ ছাত্র-ছাত্রী
শূন্য পদে নিয়োগ চান এসআই সুপারিশ বঞ্চিতরা