এবার গ্রাম পুলিশও ভোটের নিরাপত্তায় রাখবে ইসি

সিনিয়র করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

গ্রাম পুলিশ

walton

ঢাকা: আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটের নিরাপত্তায় গ্রাম পুলিশ নিয়োজিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তবে তাদের হাতে অস্ত্র থাকবে না।

নির্বাচনে সশস্ত্র বাহিনী, কোস্ট গার্ড, আনাসার, পুলিশ ও র‍্যাবকে নিয়োজিত করা হয়। কিন্তু এবারই প্রথম প্রান্তিক এ নিরাপত্তা রক্ষীদের নিয়োজিত করা হচ্ছে।
 
সারাদেশে দফাদার ও মহল্লাদার মিলিয়ে গ্রাম পুলিশের সংখ্যা ৪৫ হাজার ৫শ জনের মতো। ইউনিয়ন পরিষদের অধীন এ নিরাপত্তারক্ষীরা স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের কর্মচারী।
 
নির্বাচন কমিশন সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ মঙ্গলবার (২৭ নভেম্বর) নির্বাচন ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান।
 
কমিশনের নির্বাচন ব্যবস্থাপনা শাখা থেকে জানা গেছে, এবারের নির্বাচনে সাতশ কোটি টাকার বাজেট রাখা হয়েছে। যার দুই তৃতীয়াংশ ব্যয় হবে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পেছনে। তবে খাত অনুযায়ী বরাদ্দ এখনো চূড়ান্ত হয়নি।
 
আগামী ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ সময় ২৮ নভেম্বর। মনোনয়নপত্র বাছাই ২ ডিসেম্বর। প্রার্থিতা প্রত্যাহার ৯ডিসেম্বর। আর প্রতীক বরাদ্দ ১০ ডিসেম্বর।
 
বাংলাদেশ সময়: ২১০৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৭, ২০১৮
ইইউডি/এসএইচ

Nagad
সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে তাপস-আতিকের শোক
সাহারার মৃত্যুতে বিরোধীদলীয় নেতা-জাপা চেয়ারম্যানের শোক
করোনায় রিজেন্ট হাসপাতাল মালিকের বাবার মৃত্যু
সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে ওবায়দুল কাদেরের শোক
সাহারা খাতু‌নের মৃত্যুতে মন্ত্রীদের শোক


সাহারা খাতুন ছিলেন আ.লীগের একজন পরীক্ষিত নেতা: রাষ্ট্রপতি
স্বাস্থ্যকর্মীদের বিশেষ সম্মানী দেবে সরকার
আমি পরীক্ষিত ও বিশ্বস্ত সহযোদ্ধাকে হারালাম: প্রধানমন্ত্রী
সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন আর নেই
সৌদি থেকে ফিরলেন আটকে পড়া ৪১৮ বাংলাদেশি