ব্যাংকগুলো সাধারণ মানুষকে ঋণ দেয় না: রেহমান সোবহান

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: নাজমুল হাসান/বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক রেহমান সোবহান বলেছেন, ব্যাংকগুলো সেবা দেয় সমাজরে অ্যালিট শ্রেণীর মানুষকে। যাদের সামাজিক এবং রাজনৈতিক দাপট রয়েছে। কেবল তাদেরকে ঋণ দিতে চায়। এটা অদক্ষ ব্যাংকিং সেবা। এটি সাধারণ মানুষের প্রতি আর্থিক খাতের অবিচার। 

ঢাকা: বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ অধ্যাপক রেহমান সোবহান বলেছেন, ব্যাংকগুলো সেবা দেয় সমাজরে অ্যালিট শ্রেণীর মানুষকে। যাদের সামাজিক এবং রাজনৈতিক দাপট রয়েছে। কেবল তাদেরকে ঋণ দিতে চায়। এটা অদক্ষ ব্যাংকিং সেবা। এটি সাধারণ মানুষের প্রতি আর্থিক খাতের অবিচার।  

মঙ্গলবার রাজধানীর রূপসী বাংলা হোটেলে অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনীতি: কেন্দ্রীয় ব্যাংকের ভূমিকা শীর্ষক এক অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রেহমান সোবহান বলেন, বাংলাদেশের ১৫ শতাংশ মানুষ অর্থনীতির মূল ধারার বাইরে। কিন্তু সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে এদের অর্থনীতির সাথে সম্পৃক্ত করতে হবে। তাদের সম্পদের মালিকা দিতে হবে। প্রান্তিক মানুষদের উন্নয়ন প্রক্রিয়া, বাজেট প্রণয়নে অংশগ্রহণ বাড়াতে হবে।

তিনি বলেন, দেশের বড় এই জনসংখ্যাকে বাইরে রেখে উন্নয়ন সম্ভব নয়। তাদেরকে অর্থনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত করতে হবে। আর সেটি হতে পারে সমষ্টিগত উদ্যোগের মাধ্যমে যৌথ তহবিল গঠন করে। যাতে বড় ধরনের অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে তারা অংশ নিতে পারে।

তিনি বলেন, প্রান্তিক মানুষ ক্ষুদ্র ঋণদাতা প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে সহায়তা নেয়। তারা প্রাতিষ্ঠানিক আর্থিক খাতগুলো থেকে ঋণ সহায়তা পায়না। কিন্তু এটি করতে হবে। প্রয়োজনে ক্ষুদ্র ঋণদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে ব্যাংকগুলোর যোগাযোগ বাড়াতে হবে।

এ সময় তিনি মানুষকে সঞ্চয় বাড়ানোর দিকে আরও নজর দিতে হবে বলে জানান।

একই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেন, সবার জন্য অর্থনীতি নিশ্চিত করতে ক্ষুদ্র এবং সৃজনশীল উদ্যোক্তাদের ঋণের প্রবাহ বাড়াতে হবে।

তিনি বলেন, একটি বিশ্বমন্দা থেকে আরেকটি বিশ্বমন্দায় যাচ্ছি। ইউরোপের ঋণের সঙ্কট এই পরিস্থিতি তৈরি করছে। যার আঘাত পরছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতে। আর এরকম পরিস্থিতিতে সবার জন্য অর্থনীতি নিশ্চিত করা জরুরি। উন্নত অর্থনীতির দেশগুলোও এখন এটি ভাবছে। ক্ষুদ্র ও সৃজনশীল উদ্বোক্তাদের ঋণ দিতে নীতি গ্রহণ করছে।

ড. আতিউর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন সাবেক অর্থমন্ত্রী এম সাইদুজ্জামান, জাতিসংঘে বাংলাদেশ প্রতিনিধি আব্দুল মমিন, বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্থনৈতিক উপদেষ্টা ড. মো. আখতারুজ্জামান।

এতে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ব্যাংক গভর্নরের পরামর্শক ড. হাসান জামান। অনুষ্ঠানে সার্কভুক্ত আটটি দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রতিনিধিরা অংশ নেয়।

বাংলাদেশ সময়: ১৩০৫ ঘণ্টা, ২০ ডিসেম্বর, ২০১১

Nagad
করোনায় আরও এক চিকিৎসকের মৃত্যু
চীনের সঙ্গে ৯০০ কোটি রুপির ব্যবসা বাতিল হিরোর
সিলেটে বিনামূল্যে বাসায় পৌঁছাবে অক্সিজেন সেবা
সাংবাদিক নাজমুল হকের জন্ম
ইতিহাসের এই দিনে

সাংবাদিক নাজমুল হকের জন্ম

স্বর্ণের মাস্ক পরছেন ভারতীয়!


জাপানে বন্যা-ভূমিধস, ১৫ জনের মৃত্যুর আশঙ্কা
ভুতুড়ে বিল: ডিপিডিসির ৫ প্রকৌশলী বরখাস্ত, ৩৬ জনকে শোকজ
ইন্ডাস্ট্রি একাডেমিয়া লিংকেজ তৈরি করা খুবই জরুরি: উপমন্ত্রী
সীমান্তে ২৮টি ভারতীয় গরু জব্দ
লাল-সবুজ পতাকা অস্তিত্বে, তাই শিবনারায়নের পাশে দাঁড়িয়েছি