php glass

পেঁয়াজে নিম্ন আয়ের মানুষের ভরসা ‘ট্রাক সেল’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

টিসিবির ট্রাক সেল থেকে পেঁয়াজ কিনছেন সাধারণ মানুষ। ছবি: শাকিল আহমেদ

walton

ঢাকা: নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের মধ্যে অন্যতম হলো পেঁয়াজ। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে পেঁয়াজের দরে নাভিশ্বাস অবস্থা সাধারণ মানুষের। আমদানি মূল্য বৃদ্ধি, সরবরাহ কম, এমন বহু অজুহাতে বেড়েই চলেছে পণ্যটির দাম। বর্তমানে কেজিপ্রতি দর প্রায় ১৫০ টাকা ছুঁই ছুঁই অবস্থা। ফলে দরিদ্র ও নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য পেঁয়াজ পরিণত হয়েছে দুর্লভ বস্তুতে।

চলমান অবস্থায় দরিদ্র ও নিম্ন আয়ের মানুষেরা মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে খুচরা বাজার থেকে। তাদের একমাত্র ভরসা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) ট্রাক সেল।

তবে সেখানেও ভোগান্তি কম না। দীর্ঘ লাইনে অপেক্ষার পর পাওয়া যাচ্ছে ৪৫ টাকায় এক কেজি পেঁয়াজ। হিমশিম খেতে হচ্ছে বিক্রেতাদেরও। এর আগে ট্রাক সেলে জনপ্রতি দুই কেজি করে বিক্রি করা হলেও আজ (রোববার) পেঁয়াজ কিনতে আসা মানুষের সংখ্যা বাড়ায় কমাতে হয়েছে জনপ্রতি বিক্রির পরিমাণ।

রোববার (৩ নভেম্বর) রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাব ও সচিবালয়ের মধ্যবর্তী এলাকা ঘুরে এমন চিত্রই দেখা গেছে।

জাতীয় প্রেসক্লাব এলাকায় কাজে এসেছিলেন মশিউর নামে এক ব্যক্তি। এসে দেখেন টিসিবির ট্রাক সেলে ৪৫ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে যান তিনি। প্রায় এক ঘণ্টা অপেক্ষার পর ৪৫ টাকা দিয়ে হাতে পান এক কেজি পেঁয়াজ।

মশিউর বাংলানিউজকে বলেন, বাজারে ১৫০ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে। এখান থেকে দুই কেজি কেনার কথা থাকলেও ৪৫ টাকা দিয়ে এক কেজি কিনতে পেরেছি। তবে ভালোই লাগছে। কারণ কম দামে ভালো মানের পেঁয়াজ কিনতে পেরেছি।

এদিকে মানুষের ভিড় বাড়তে থাকায় বেশ হিমশিম খেতে হচ্ছে বিক্রেতাদেরও। অনেকেই ধাক্কা দিয়ে একজন অন্যজনের আগে কেনার চেষ্টা করছেন। তবে শৃঙ্খলা বজায় রেখেই বিক্রি করা হচ্ছে পেঁয়াজ।

টিসিবির বিক্রেতা সাঈদ হোসেন পাপ্পু বাংলানিউজকে বলেন, সকাল থেকে আমরা ৪৫ টাকা কেজি দরে জনপ্রতি দুই কেজি করে পেঁয়াজ বিক্রি করছিলাম। তবে মানুষের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় এখন আমরা এক কেজি করে দিচ্ছি। যাতে সবাই পেঁয়াজ কিনতে পারে।

এ বিষয়ে টিসিবির ডিলার রফিকুল ইসলাম বাংলানিউজকে বলেন, বাজারে পেঁয়াজের দাম বাড়ায় সরকারিভাবে ট্রাক সেলে বিক্রি চলছে অনেক আগে থেকেই। আমরা সরকারি ছুটির দিন ব্যতীত প্রতিদিনই পেঁয়াজ বিক্রি করছি।

‘প্রতিদিন প্রায় এক হাজার কেজি পেঁয়াজ আমরা বিক্রি করছি। তবে মানুষের সংখ্যা বেশি হলে সবাই যাতে পায় এজন্য এক কেজি করে দেওয়া হয়। বাজার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে না আসা পর্যন্ত আমাদের বিক্রি অব্যাহত থাকবে,’ যোগ করেন ডিলার রফিকুল।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫২ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৩, ২০১৯
ইএআর/এসএ

মরুর বুকে বাঘের গর্জন
রহস্যঘেরা বিস্ফোরণ, চুলার ওপর এখনো তরকারি!
রাতে পেঁয়াজের ক্ষেত পাহারায় কৃষক!
বরিশাল আদালতের সহকারী সেরেস্তাদার সাময়িক বহিষ্কার
তামিম-মাশরাফির সঙ্গে ঢাকায় আফ্রিদি


জেনে নিন বিপিএলে কে কোন দলে
বিয়ের দাবি করায় নির্যাতনের শিকার মা-মেয়ে
‘কেউ হতাশ হবেন না, রাষ্ট্র সবার দায়িত্ব নিচ্ছে’
আঙ্কারায় শুরু হচ্ছে বাংলাদেশ-তুরস্ক অর্থনৈতিক কমিশন সভা
রাজধানীতে লিফটচাপায় যুবকের মৃত্যু