php glass

সিসিসিআই’র নতুন নেতৃত্বের দায়িত্ব গ্রহণ অনিশ্চিত!

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ব্যবসায়িক সংগঠন চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (সিসিসিআই) নব-নির্বাচিত পরিচালকদের দায়িত্ব গ্রহণ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

চট্টগ্রাম: ব্যবসায়িক সংগঠন চট্টগ্রাম চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (সিসিসিআই) নব-নির্বাচিত পরিচালকদের দায়িত্ব গ্রহণ অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

বুধবার সংগঠনের বার্ষিক সাধারণ সভায় (এজিএম) ফলাফল ঘোষণার মধ্য দিয়ে নবনির্বাচিত পরিচালকদের দায়িত্ব নেওয়ার কথা।

অবশ্য হাইকোর্টের স্থগিতাদেশের কারণে নতুন নেতৃত্ব  দায়িত্ব নিতে পারছেন না- এমন আশঙ্কার কথা জানিয়েছে কয়েকটি দয়িত্বশীল সূত্র।

চট্টগ্রাম চেম্বার নির্বাচন বর্জনকারী ব্যবসায়ী পরিষদের পরিচালক প্রার্থী আজফার আলী চেম্বার নির্বাচনের ফলাফল বাতিলের জন্য হাইকোর্টে একটি রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত এক সপ্তাহের জন্য ফলাফল ঘোষণার ওপর স্থগিতাদেশ দেয়।

হাইকোর্টের অবকাশকালীন বেঞ্চে ব্যবসায়িক পরিষদের এই পরিচালক প্রার্থী প্রক্সি ভোটের নামে জাল ভোট নেওয়া হয়েছে অভিযোগ করে এই রিট দায়ের করেন। এরই পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক আব্দুল হাই ফলাফলের উপর এক সপ্তাহের স্থগিতাদেশ দিয়ে কারণ দর্শানো নোটিস জারি করেন।

চেম্বার পরিষদের পরিচালক প্রার্থী সৈয়দ মোহাম্মদ নুরুদ্দিন জানান, এতে নতুন নেতৃত্ব বুধবার দায়িত্ব গ্রহণ করতে পারবেন না ।

সাবেক সভাপতি সাইফজ্জামান চৌধুরী জাভেদের নেতৃত্বাধীন ব্যবসায়ী পরিষদ নমিনি ভোটারের নামে ভুয়া ভোট নেওয়ার অভিযোগে এই নির্বাচন বর্জন করেছিল।

চট্টগ্রাম চেম্বারের সদ্য বিদায়ী সিনিয়র সহ-সভাপতি এবং চেম্বার পরিষদের হয়ে বর্তমানে নির্বাচিত পরিচালক আব্দুস সালাম এজিএমর উপর হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ দেওয়ার কথা স্বীকার করে বাংলানিউজকে বলেন, ‘আপনার মতো আমিও শুনেছি, তবে এখনো রায়ের কপি কপি হাতে পাইনি, এক ঘণ্টার মধ্যে পেয়ে যাবো বলে আশা করছি।’

তবে নবনির্বাচিত সভাপতি মোরশেদ মুরাদ ইব্রাহিম স্থগিতাদেশের বিষয়টি প্রতিদ্বন্দ্বী পক্ষের অপপ্রচার বলে দাবি করেছেন।

তিনি বলেন, ‘আগামীকাল এজিএমে’র মধ্য দিয়ে আমরা দায়িত্ব গ্রহণ করবো।’
 
এদিকে চেম্বার নির্বাচন বর্জনকারী চট্টগ্রাম ব্যবসায়ী পরিষদের প্রধান সমন্বয়কারী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ বলেন, ‘নিয়ম অনুযায়ী এজিএমর মধ্যে দিয়ে নতুন পরিচালকমণ্ডলী দায়িত্ব গ্রহণ করেন। যেহেতু হাইকোর্ট এজিএম’র ফলাফল ঘোষণার উপর স্থগিতাদেশ দিয়েছে, তাই নতুন নেতৃত্ব দায়িত্ব গ্রহণ করতে পারবেন না।’

তিনবারের নির্বাচিত সাবেক এই সভাপতি আরো বলেন, ‘বুধবার বর্তমান পরিচালকদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে। এ অবস্থায় নুতন বা পুরাতন নেতৃত্ব কেউ দায়িত্বভার নিতে পারবেন না। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে বাণিজ্য সংগঠন বিভাগের পরিচালককে দায়িত্ব নিতে হবে।’
 
বুধবার দুপুরে আগ্রাবাদস্থ চেম্বার মিলনায়তনে বার্ষিক সাধারণ সভার মধ্যে দিয়ে বর্তমান নেতৃত্ব নতুন নেতৃত্বের হাতে দায়িত্ব হস্তান্তরের কথা রয়েছে।  

বুধবারের এই  সভায় ৭ ডিসেম্বর  অনুষ্ঠিত চেম্বারের দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে  নির্বাচিত পরিচালকদের ফলাফল ঘোষনা, ২০০৯-১০ সালের বার্ষিক কার্যবিবরণী ও আয়-ব্যয়ের অনুমোদন এবং অডিটর নিয়োগসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করার কথা রয়েছে।  বিদায়ী  সভাপতি ও সংসদ সদস্য এম এ লতিফ এ সভায় সভাপতিত্ব করবেন। সভা শেষে নতুন সভাপতি হিসাবে কাজ শুরু করবেন মোরশেদ মুরাদ ইব্রাহিম।
 
উল্লেখ্য প্রতিদ্বন্দ্বী পক্ষের বর্জনের মধ্যে দিয়ে ৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত শতবর্ষী এই চেম্বারের নির্বাচনে এম এ লতিফের নেতৃত্বাধীন চেম্বার পরিষদ জয়ী হয়।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৮ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২১, ২০১০

পর্যটনে দ্রুত দৃশ্যমান কিছু করতে চাই: মাহবুব আলী
পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় ফেরি চলাচল শুরু
দুই হাত হারানো ক্রিকেটভক্ত রইসের মাসিক আয় ১৫ হাজার
দেশে ভ্রমণে আগ্রহ বাড়ছে নারীদের
ঘন কুয়াশার কারণে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বন্ধ


সড়ক দুর্ঘটনায় প্রধান শিক্ষকের মৃত্যু
নম্বরপ্লেট বিহীন বিআরটিসি বাস ফেরত পাঠালেন শ্রমিকরা
ভেজাল-নিম্নমানের আইসক্রিম উৎপাদনে এক ব্যবসায়ীকে জরিমানা
বশেমুরবিপ্রবিতে আক্কাস আলীর বিরুদ্ধে পুনঃতদন্ত কমিটি গঠন
সোনারগাঁয়ে অস্ত্রসহ সন্ত্রাসী আটক