php glass

পুঁজিবাজার: ব্যাংক বীমা ও আর্থিক খাতের শেয়ারে দরপতন

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বৃহস্পতিবার ব্যাংক, বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বেশিরভাগ শেয়ারের দরপতন হয়েছে। অবশ্য গ্রামীণফোনের শেয়ার লেনদেনের উপর ভিত্তি করে সাধারণ মূল্যসূচক আগের দিনের চেয়ে প্রায় ৪৬ পয়েন্ট....

ঢাকা: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) বৃহস্পতিবার ব্যাংক, বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বেশিরভাগ শেয়ারের দরপতন হয়েছে।

অবশ্য গ্রামীণফোনের শেয়ার লেনদেনের উপর ভিত্তি করে সাধারণ মূল্যসূচক আগের দিনের চেয়ে প্রায় ৪৬ পয়েন্ট বেড়ে ৮ হাজার ১৮৭ পয়েন্টে উন্নীত হয়।

সপ্তাহের শেষ দিন ডিএসইতে গ্রামীণফোনের প্রতিটি শেয়ার আগের দিনের চেয়ে ১৫ টাকা ২০ পয়সা বেড়ে ২৩৫ টাকা ৭০ পয়সায় সর্বশেষ লেনদেন হয়।

বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়, এদিন শুধু গ্রামীণফোনের শেয়ারের দাম বাড়ায় সাধারণ সূচক বেড়েছে ৫৪ দশমিক ৭২ পয়েন্ট।

বর্তমানে গ্রামীণফোন শেয়ারবাজারে সবচেয়ে বড় তালিকাভুক্ত কোম্পানি হওয়ার কারণে এই প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম ১ টাকা বাড়লে সূচক বাড়ে ৩ দশমিক ৬ পয়েন্ট। আর এই কারণে ব্যাংক, বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের শেয়ারে দাম কমলেও সাধারণ মূল্যসূচক বেড়ে যায়।

এদিকে, বুধবার বিকাল থেকে বৃহস্পতিবার সারাদিনই বাজারে গুজর ছিল সংসদীয় কমিটির সুপারিশ অনুযায়ী সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (এসইসি) মার্জিন-ঋণ বন্ধ করে দেবে। আর এই কারণে এদিন লেনদেন চলাকালে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে এক ধরনের অস্থিরতা কাজ করেছে। যদিও এই ধরনের খবরের কোনো সত্যাতা পাওয়া যায়নি।

এ ব্যাপারে এসইসির সিনিয়র সদস্য মো. মনসুর আলম বাংলানিউজকে বলেন, মার্জিন ঋণ বন্ধ করার বিষয়ে কমিশন এখনো কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। সংসদীয় কমিটির সুপারিশ লিখিত আকারে পাওয়ার পর এসইসির কমিশন সভায় আলোচনা করে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। এখনই এসইসি বিষয়টি নিয়ে ভাবছে না।

বৃহস্পতিবার ডিএসইতে ব্যাংক, বীমা ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম কমলেও সিরামিকস, প্রকৌশল, টেক্সটাইল, খাদ্য ও জ্বালানি খাতের বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে।

অন্যদিকে এদিন মার্জিন লোন বন্ধের খবরে বাজারে নন-মার্জিন শেয়ারের দাম তুলনামূলকভাবে বেড়ে যায়।
         
দিনশেষে ডিএসইতে লেনদেন হওয়া ২৩২টি কোম্পানির মধ্যে দাম বেড়েছে ১২৫টির শেয়ারের , কমেছে ১০১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৬টি কোম্পানির শেয়ার। লেনদেনের পরিমাণ ছিল ২ হাজার ২৫২ কোটি ৭১ লাখ টাকা। এটি আগের

লেনদেনের ভিত্তিতে (টাকায়) প্রধান ১০টি কোম্পানি হলো- সাউথইস্ট ব্যাংক, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক লি., এবি ব্যাংক, মার্কেন্টাইল ব্যাংক, পিপলস্ লিজিং ফাইন্যান্স অ্যান্ড সার্ভিসেস লি., পাওয়ারগ্রিড, পূবালী ব্যাংক, বেক্সিমকো লি., স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংক ও যমুনা ব্যাংক।

অন্যদিকে দাম বৃদ্ধিতে আজকের প্রধান ১০টি কো¤পনি হলো - ইমাম বাটন, বঙ্গজ লিঃ, মেঘনা কনডেন্স মিল্ক, দুলা মিয়া কটন, সায়হাম টেক্সটাইল, মিথুন নিটিং, সোনালী আঁশ, যমনা ব্যাংক, মুন্নু স্টাফলার ও ফু-ওয়াং সিরামিকস্।

দাম কমার শীর্ষে প্রধান ১০টি কো¤পানি হলো-  জেমীনি সি ফুডস্, রহিম টেক্সটাইল, এইমস্ ১ম মিউচুয়াল ফান্ড, অ্যাপেক্স স্পিনিং, ১ম বিএসআরএস, ফাইন ফুডস্, রেকিট বেঙ্কাইজার, আইসিবি ইসলামী ব্যাংক, ৪র্থ আইসিবি ও বাংলাদেশ শিপিং কর্পোরেশন।

বাংলাদেশ সময়: ১৭৩৭ ঘণ্টা, নভেম্বর ১১, ২০১০

ksrm
বছিলায় জঙ্গি আস্তানায় অভিযান:তদন্ত প্রতিবেদন ১৭ অক্টোবর
খোলা বাজারে ৪৫ টাকা দরে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু টিসিবি’র
বকশীগঞ্জে বজ্রপাতে গ্রাম পুলিশ সদস্যের মৃত্যু
বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারের মৃত্যু
গাজীপুরে বাসের ধাক্কায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী নিহত


যমুনা গ্রুপে ১৫৩ পদে নিয়োগ
শৈলকুপায় সাপের ছোবলে ২ ভাইয়ের মৃত্যু
বাঁশির সুরে ঘুরছে জীবনের চাকা
আইসিসিবিতে পাঁচ দিনব্যাপী ফার্নিচার মেলা
রক্ত চলাচল বাড়িয়ে আরও বেশি অ্যাক্টিভ হতে