ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ৭ মাঘ ১৪২৭, ২১ জানুয়ারি ২০২১, ০৭ জমাদিউস সানি ১৪৪২

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

ইজিবাইক চুরি করে টাকা দাবি, স্ত্রীকে জানালো ‘অপহরণের শিকার’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ২২১৩ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২০
ইজিবাইক চুরি করে টাকা দাবি, স্ত্রীকে জানালো ‘অপহরণের শিকার’

চট্টগ্রাম: নগরের পতেঙ্গা এলাকার মো. মাহবুল আলম নামে এক ব্যক্তির ইজিবাইক ভাড়ায় চালান মো. গিয়াস উদ্দিন। ২১ নভেম্বর ইজিবাইক চালানোর জন্য নিয়ে যান গিয়াস উদ্দিন।

কিন্তু সেদিন বিকেলে আর ইজিবাইক গ্যারেজে ফেরত দেননি তিনি। গিয়াসের মোবাইল নাম্বারও বন্ধ পাওয়া যায়।  

পরদিন গিয়াসের মোবাইল নাম্বার থেকে মাহবুল আলমকে ফোন করে ইজিবাইক ফেরত দেওয়ার জন্য ১ লাখ টাকা দাবি করে অজ্ঞাত ব্যক্তি। আবার একই সময় গিয়াসের স্ত্রীকেও ফোন করে গিয়াস অপরহণের শিকার হয়েছে বলে জানিয়ে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ চাওয়া হয়।

অভিযোগ পেয়ে ‘অপহরণের শিকার’ গিয়াসকে উদ্ধারে নামে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)-৭’র একটি টিম। কিন্তু র‌্যাব জানতে পারে গিয়াস অপহরণের শিকার হননি। কৌশলে টাকা হাতিয়ে নিতে বন্ধু ও সহযোগীদের নিয়ে মালিকের ইজিবাইক চুরি ও নিজে অপহেরণের শিকার হয়েছে বলে নাটক সাজায়।  

র‌্যাব-৭ এর সদস্যরা পতেঙ্গা নাজিরপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে গিয়াস উদ্দিনসহ মোট চারজনকে আটক করে এবং তাদের হেফাজত থেকে চুরি হওয়া ইজিবাইকটি উদ্ধার করে।  

আটক চারজন হলো- মো. গিয়াস উদ্দিন (২৮), মঈনুল ইসলাম (২৬), মো. আনোয়ার হোসেন (৪৫) ও মো. বাবুল উদ্দিন (৪২)।  

র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. মাহমুদুল হাসান মামুন বাংলানিউজকে জানান, ইজিবাইক চুরির দায়ে ও অপহরণের ঘটনা সাজিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টার অভিযোগে চারজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের কাছ থেকে চুরি হওয়া ইজিবাইকটি উদ্ধার করা হয়েছে। তাদের পতেঙ্গা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।  

র‌্যাব-৭ এর চান্দগাঁও ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট আলী আশরাফ তুষার বাংলানিউজকে বলেন, পতেঙ্গা এলাকার মো. মাহবুল আলম নামে এক ব্যক্তির ইজিবাইক ভাড়ায় চালান মো. গিয়াস উদ্দিন। ২১ নভেম্বর ইজিবাইক চালানোর জন্য নিয়ে যান গিয়াস। কিন্তু সেদিন বিকেলে আর ইজিবাইক গ্যারেজে ফেরত দেননি তিনি। গিয়াসের মোবাইল নাম্বারও বন্ধ পাওয়া যায়। পরদিন গিয়াসের মোবাইল নাম্বার থেকে মাহবুল আলমকে ফোন করে ইজিবাইক ফেরত দেওয়ার জন্য ১ লাখ টাকা দাবি করে অজ্ঞাত ব্যক্তি। আবার একই সময় গিয়াসের স্ত্রীকেও ফোন করে গিয়াস অপরহণের শিকার হয়েছে বলে জানিয়ে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ চাওয়া হয়।

তিনি বলেন, অভিযোগ পেয়ে ঘটনাটি তদন্ত করতে গিয়ে জানতে পারি গিয়াস অপহরণের শিকার হননি। কৌশলে টাকা হাতিয়ে নিতে বন্ধু ও সহযোগীদের নিয়ে মালিকের ইজিবাইক চুরি ও নিজে অপহেরণের শিকার হয়েছে বলে নাটক সাজায়। পতেঙ্গা নাজিরপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে গিয়াস উদ্দিনসহ মোট চারজনকে আটক করি।  

বাংলাদেশ সময়: ২২১০ ঘণ্টা, নভেম্বর ২৫, ২০২০
এসকে/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
welcome-ad
Alexa