ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ কার্তিক ১৪২৭, ২৯ অক্টোবর ২০২০, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

চট্টগ্রাম প্রতিদিন

পরিবেশ অধিদফতর: ৬ মাসে চার শতাধিক অভিযান, জরিমানা ১৫ কোটি

সরওয়ার কামাল, স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
আপডেট: ১০২৩ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০
পরিবেশ অধিদফতর: ৬ মাসে চার শতাধিক অভিযান, জরিমানা ১৫ কোটি লোগো।

চট্টগ্রাম: পরিবেশ দূষণ, পাহাড় কাটা, পুকুর ভরাট, পরিবেশ ছাড়পত্রবিহীন প্রতিষ্ঠান পরিচালনাসহ নানা অভিযোগে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিকে জরিমানা করেছে পরিবেশ অধিদফতর।

গত জানুয়ারি থেকে চার শতাধিক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করে পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম অঞ্চল ও মহানগর।

 

করোনার সময় দুই মাস কার্যক্রম বন্ধ থাকলেও করোনার আগে ও পর থেকে এখন পর্যন্ত নিয়মিত এনফোর্সমেন্ট চালিয়েছে পরিবেশ অধিদফতর।  

এসব অভিযানে জানুয়ারি থেকে আগস্ট মাস পর্যন্ত পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম অঞ্চল কার্যালয় পরিবেশ দূষণ, পাহাড় কাটা, পুকুর ভরাট, পরিবেশ ছাড়পত্রবিহীন প্রতিষ্ঠান পরিচালনাসহ নানা অভিযোগে ৩৫৯ প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিকে জরিমানা করেছে মোট ১১ কোটি ৮৪ লাখ ২৬ হাজার টাকা এবং পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয় জানুয়ারি থেকে জুন মাস পর্যন্ত জরিমানা করেছে ৩ কোটি ৯৩ হাজার ২৪০ টাকা।
 
এসব জরিমানার বিপরীতে জানুয়ারি থেকে আগস্ট মাস পর্যন্ত পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম অঞ্চল কার্যালয়ে আদায় হয়েছে ৩ কোটি ৪১ লাখ ৮০ হাজার টাকা এবং জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত চট্টগ্রাম মহানগরে আদায় হয়েছে ৫০ লাখ ৩৮ হাজার টাকা।  

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম অঞ্চল কার্যালয়ে গত জানুয়ারি মাসে মোট ৬০ জন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ১ কোটি ২১ লাখ ১৫ হাজার টাকা, ফেব্রুয়ারি মাসে ৮৪ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ৬ কোটি ৯৩ লাখ ২৫ হাজার টাকা, মার্চ মাসে ১১৯ ব্যক্তি প্রতিষ্ঠানকে ২ কোটি ১১ লাখ ৮০ হাজার টাকা, জুনে ৪ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ৪ লাখ ২০ হাজার টাকা, জুলাই মাসে ১৫ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ৪২ লাখ ১১ হাজার টাকা ও আগস্ট মাসে ৭৭ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ১ কোটি ১১ লাখ ৭৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।  

আদায় হয়েছে জানুয়ারি মাসে ১ কোটি ২৫ হাজার টাকা, ফেব্রুয়ারি মাসে ৮৭ লাখ ৫৫ হাজার টাকা, মার্চ মাসে ১ কোটি ৪ লাখ ৭৪ হাজার টাকা, জুন মাসে ৪ লাখ টাকা, জুলাই মাসে ৩২ লাখ ২১ হাজার টাকা এবং আগস্ট মাসে ১৩ লাখ ৫ হাজার টাকা।  

পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয়ে গত জানুয়ারি মাসে ৬ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ৫ লাখ ৪৬ হাজার টাকা, ফেব্রুয়ারি মাসে ২২ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ১ কোটি ৭৯ লাখ ৯০ হাজার ২৪০ টাকা,  মার্চ মাসে ১৩ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ২২ লাখ ৪৪ হাজার টাকা ও জুন মাসে ৯ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ৯২ লাখ ৯৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।  

আদায় হয়েছে জানুয়ারি মাসে ১ লাখ ৬২ হাজার টাকা, ফেব্রুয়ারি মাসে ১৬ লাখ ১২ হাজার টাকা, মার্চ মাসে ১৪ লাখ ১৪ হাজার টাকা ও জুন মাসে ১৮ লাখ ৫০ হাজার টাকা।  

পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম মহানগর কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মিয়া মাহমুদুল হক বাংলানিউজকে বলেন, পরিবেশ দূষণ, পাহাড় কাটার বিরুদ্ধে আমাদের নিয়মিত অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। পরিবেশ আইন অমান্যকারীদের শাস্তির আওতায় আনা হচ্ছে। পরিবেশের ক্ষতিসাধনকারীদের জরিমানা করা হচ্ছে।  

পরিবেশ অধিদফতর চট্টগ্রাম অঞ্চল কার্যালয়ের পরিচালক মোহাম্মদ মোয়াজ্জম হোসাইন বাংলানিউজকে বলেন, পরিবেশের ক্ষতিসাধন করে এমন কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানকে আমরা ছাড় দিচ্ছি না। কঠোর হয়ে যাদের জরিমানা করা দরকার তাদের জরিমানা করছি, যাদের বিরুদ্ধে মামলা করা দরকার তাদের বিরুদ্ধে মামলা করছি। পরিবেশ রক্ষায় কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছি আমরা।

তিনি বলেন, আমাদের সুস্থ পৃথিবীতে বেঁচে থাকতে হলে পরিবেশ রক্ষা জরুরি। পরিবেশ দূষণ করে, পাহাড় কেটে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট করে জীববৈচিত্র্যের হুমকি হয়ে যারা দাঁড়াবে, তাদের শাস্তির আওতায় আনবো আমরা।  

বাংলাদেশ সময়: ১০১৭ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ২১, ২০২০
এসকে/এসি/টিসি

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।
Alexa