বিটিভির অনুষ্ঠানের মান বাড়ানোর তাগিদ তথ্যমন্ত্রীর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বক্তব্য দেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। ছবি: উজ্জ্বল ধর

walton

চট্টগ্রাম: বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের অনুষ্ঠানের মান বাড়ানোর তাগিদ দিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

php glass

তিনি বলেছেন, চট্টগ্রাম কেন্দ্রের অনুষ্ঠান ৬ ঘণ্টার সম্প্রচার থেকে ৯ ঘণ্টার সম্প্রচারে উন্নীত করেছে সরকার। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে আরও ৩ ঘণ্টা বাড়িয়ে ১২ ঘণ্টার সম্প্রচারে উন্নীত করা হবে। তবে শুধু সম্প্রচার সময় বাড়ালে হবে না, অনুষ্ঠানের মানও বাড়াতে হবে।

শনিবার (১৩ এপ্রিল) বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) চট্টগ্রাম কেন্দ্রের ৯ ঘণ্টা অনুষ্ঠান সম্প্রচারের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

আরও খবর>>
** 
চট্টগ্রামের সংস্কৃতি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে দিন: মেয়র নাছির

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশ পরিচালনার দায়িত্ব পাওয়ার পর ১৯৯৬ সালের ১৯ ডিসেম্বর বাংলাদেশ টেলিভিশন (বিটিভি) চট্টগ্রাম কেন্দ্রের যাত্রা শুরু হয়েছিল। এখন সারাদেশে বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রের অনুষ্ঠান দেখা যায়। আমি নিজেও ঢাকায় বসে এই কেন্দ্রের অনুষ্ঠান দেখি।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রথমে শুধু ১ ঘন্টার অনুষ্ঠান সম্প্রচার হতো। এরপর সেটি দেড় ঘন্টায় উন্নীত করা হয়। সেসময় চট্টগ্রাম কেন্দ্র থেকে সম্প্রচার করা অনুষ্ঠান ঢাকা কেন্দ্রে দেখা বা শোনা যেতো না। এরপর এ কেন্দ্রের অনুষ্ঠান ৩ ঘন্টায় উন্নীত করা হয়। চট্টগ্রাম কেন্দ্রকে পূর্ণাঙ্গ কেন্দ্রে রূপান্তর করার জন্য প্রকল্প গ্রহণ করা হয়।

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, বিটিভির ডিজি সহ যারা এ মাধ্যমটির সঙ্গে যুক্ত, তারা জানেন- প্রকল্প গ্রহণ করার জন্য আমি কতটুকু দৌড়ঝাঁপ করেছি। সর্বশেষে ৪৪ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ করা হয়। সেই ধারাবাহিকতায় ২০১৬ সালে সম্প্রচার ৬ ঘন্টায় উন্নীত করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। একইসঙ্গে ক্যাবল নেটওয়ার্কের মাধ্যমে ক্যাবল টেলিভিশন চ্যানেল হিসেবেও বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্র আত্মপ্রকাশ করে।

‘তবে এখানেই আমরা শেষ করতে চাই না। বিটিভি চট্টগ্রাম কেন্দ্রকে একটি পূর্ণাঙ্গ চ্যানেলে পরিণত করতে চাই। শুধু ক্যাবল লাইনের মাধ্যমে সম্প্রচার নয়, টেরিস্টরিয়াল সম্প্রচারও আমরা শুরু করতে চাই।’ যোগ করেন তথ্যমন্ত্রী।

মানহীন অনুষ্ঠান সম্প্রচারে পীড়াপীড়ি করবেন না

ড. হাছান মাহমুদ বলেন, দেশের বাকি ৬টি বিভাগীয় শহরে বিটিভির কেন্দ্র স্থাপন করার প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে। একনেক ইতোমধ্যে এ প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে। সব মিলিয়ে বিটিভির নেটওয়ার্ককে আমরা এমন জায়গায় উন্নীত করতে চাই- বিটিভিকে এমন জায়গায় নিয়ে যেতে চাই- আগে যেভাবে মানুষ ঘরে ঘরে বিটিভি দেখতো, আবার যেনো সেভাবে দেখে।

তিনি বলেন, বিটিভির সঙ্গে সংশ্লিষ্ট যারা আছেন- তাদের অনুরোধ জানাবো প্রতিটি অনুষ্ঠানের মান রক্ষা করার জন্য। আর যারা শিল্পী, কলাকুশলী আছেন- তাদের অনুরোধ জানাবো প্লিজ, মান সম্মত নয় এমন অনুষ্ঠান সম্প্রচারের জন্য পীড়াপীড়ি করবেন না। এরকম হলে সম্প্রচারের সময় বাড়িয়েও কোনো লাভ হবে না।

এফডিসির আউটলেট হবে চট্টগ্রামে

তথ্যমন্ত্রী বলেন, চট্টগ্রামে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের (এফডিসি) একটি আউটলেট নির্মাণের পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। এ জন্য এখানে কিছু জায়গাও আমরা রেখেছি। যাতে চট্টগ্রাম থেকেও চলচ্চিত্র, শর্ট ফিল্ম, নাটক তৈরি করা যায়। ঢাকায় চলচ্চিত্র, শর্ট ফিল্প, নাটক তৈরি করার সময় প্রয়োজন হলে চট্টগ্রামের আউটলেটও যাতে ব্যবহার করা যায়।

তিনি বলেন, যেহেতু একই মন্ত্রণালয়ের। তাই এফডিসির আউটলেট স্থাপনের জন্য আমরা চিন্তা ভাবনা করছি। প্রাথমিক পরিকল্পনাও নেওয়া হয়েছে। দ্রুত এটি বাস্তবায়ন করা হবে।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন, তথ্য সচিব আবদুল মালেক, বিটিভির মহাপরিচালক এস এম হারুন-অর-রশীদ।

বাংলাদেশ সময়ঃ ১৩০০ ঘণ্টা, এপ্রিল ১৩, ২০১৯
এমআর/এসি/টিসি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: চট্টগ্রাম
নিরঙ্কুশ জয়ের পথে বিজেপি, সমর্থকদের উল্লাস
রোজা রাখতে সম্পূর্ণ অক্ষম হলে ফিদিয়া দিতে হয়
ঈদযাত্রা আরামদায়ক না হলেও স্বস্তির যেন হয়: কাদের
পদ্মাসেতুর ত্রয়োদশ স্প্যান বসানোর কাজ শুরু শুক্রবার
সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন মির্জা ফখরুল


৪১৩ জন ড্রাইভার নিয়োগ দেবে বিআরটিসি
সাভারে নারীসহ ছিনতাইকারী চক্রের ৯ সদস্য আটক
জগন্নাথ হলের ফুটপাত থেকে নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার
খালিদ হোসেনের মৃত্যুতে পররাষ্ট্রমন্ত্রীর শোক
গবেষণায় সময় দেয়ার আহ্বান সাঈদ আল নোমানের