অভিভাবকহীন চট্টগ্রামের বিচারাঙ্গন

969 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
চট্টগ্রামের বিচারাঙ্গনের শীর্ষ দুই পদের একটি জেলা ও দায়রা জজ পদে থাকা বিচারক অবসরে গেছেন গত ১১ জুন। চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ অবসরে গেছেন গত ১০ জুলাই। দুই শীর্ষ বিচারকের শূন্যতায় চট্টগ্রাম আদালত এখন কার্যত অভিভাবকহীন অবস্থায় আছে।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামের বিচারাঙ্গনের শীর্ষ দুই পদের একটি জেলা ও দায়রা জজ পদে থাকা বিচারক অবসরে গেছেন গত ১১ জুন। চট্টগ্রাম মহানগর দায়রা জজ অবসরে গেছেন গত ১০ জুলাই। দুই শীর্ষ বিচারকের শূন্যতায় চট্টগ্রাম আদালত এখন কার্যত অভিভাবকহীন অবস্থায় আছে।

নিম্ন আদালত থেকে মামলা মহানগর দায়রা জজ আদালতে পাঠানো হলেও বিচারক না থাকায় সেগুলে‍া বিচারের জন্য প্রস্তুত করা যাচ্ছেনা। নিম্ন আদালতের আদেশে সংক্ষুব্ধ হয়ে কেউ দায়রা জজ আদালতে আপিল করতে পারছেন না। বিচারাধীন মামলাগুলোর শুধু তারিখ পরিবর্তন হচ্ছে। জমে যাচ্ছে মামলার পাহাড়।

জেলা ও দায়রা জজ আদালতে একই সমস্যা শুরুর পর জেলা পিপি আবুল হাশেম তদবির করে আইন মন্ত্রণালয় থেকে ভারপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজের সুনির্দিষ্ট কিছু ক্ষমতা বাড়ানোর জন্য একটি চিঠি ইস্যু করেছেন। এতে সমস্যা সহনীয় মাত্রায় থাকলেও তা শেষ হয়ে যায়নি।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে রোববার আইনমন্ত্রীর সঙ্গে জরুরি বৈঠক করেছেন চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুর রশিদ।

তিনি বাংলানিউজকে বলেন, আইনমন্ত্রী চট্টগ্রামের জেলা ও দায়রা জজ হিসেবে ময়মনসিংহের বর্তমান জেলা জজ নুরুল হুদা এবং মহানগর দায়রা জজ হিসেবে ফরিদপুরের জেলা জজ আনোয়ারুল হকের নাম প্রস্তাব করে প্রধান বিচারপতির কাছে পাঠিয়েছেন। প্রধান বিচারপতির কাছ থেকে ৪-৫ দিনের মধ্যে একটি সিদ্ধান্ত পাওয়া যাবে বলে আইনমন্ত্রী আমাকে জানিয়েছেন।

আদালত সূত্রে জানা গেছে, চট্টগ্রাম জেলা ও দায়রা জজের অধীন আদালত এবং জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত মিলে মোট ৫১টি (২৯টি ফৌজদারি) আদালতে বর্তমানে মামলা আছে প্রায় দেড় লাখ। এর মধ্যে ফৌজদারি মামলা ১০ হাজার, জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেসিতে আছে ২০ হাজার মামলা এবং বাকি ১লাখ ২০ হাজার দেওয়ানি মামলা রয়েছে। ৫১টি আদালতের মধ্যে জেলা ও দায়রা জজসহ মোট ৯টি আদালত বর্তমানে বিচারকশূন্য অবস্থায় আছে।

জেলা পিপি অ্যাডভোকেট আবুল হাশেম বাংলানিউজকে বলেন, আমি আইন মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে ভারপ্রাপ্ত জেলা ও দায়রা জজের অপরাধ আমলে নিয়ে মামলার বিচারের জন্য প্রস্তুত করার একটি চিঠি ইস্যু করিয়েছি। এতে ভোগান্তি কিছুটা সহনীয় মাত্রায় এসেছে। জেলা ও দায়রা জজ না থাকায় ৫১টি আদালতে নিয়ন্ত্রণ ও তদারক নেই। দ্রুত মামলা নিষ্পত্তির ক্ষেত্রে পদে পদে বাধার সম্মুখীন হচ্ছি।

মহানগর দায়রা জজের অধীন আদালতগুলোতে বর্তমানে মামলার সংখ্যা ২০ হাজার ৯৬টি।  মহানগর দায়রা জজের অধীন আদালত ও মহানগর ম্যাজিস্টেসি কোর্ট মিলে এখানে আদালত রয়েছে মোট ২১টি। আদালতগুলোর মধ্যে মহানগর দায়রা জজসহ ৪টি আদালতে বিচারক নেই। 

চট্টগ্রাম মহানগর পিপি অ্যাডভোকেট মো.ফখরুদ্দিন চৌধুরী বাংলানিউজকে বলেন, মহানগর দায়রা জজ সুনির্দিষ্ট কিছু অপরাধের মামলা আমলে নিতে পারেন। ভারপ্রাপ্ত দিয়ে এসব মামলার আদেশ জারি সম্ভব নয়। ফলে বিচারের জন্য মামলা প্রস্তুত করা যাচ্ছেনা। আবার ভারপ্রাপ্ত বিচারক রুটির ওয়ার্ক করলেও সুনির্দিষ্ট কোন আদেশ দিতে পারছেন না। এতে বিচারপ্রার্থীদের ভোগান্তি হচ্ছে। আইনজীবীরাও নানা ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন।

সূত্র জানায়, মহানগর দায়রা জজের আদালতে বর্তমানে এক হাজার ৭৩৯টি প্রস্তুতকৃত মামলা আছে যেগুলোর বিচার শুরুর জন্য আদালত নির্ধারণ করে পাঠানো যাচ্ছেনা। মহানগর দায়রা জজ থাকলেও সেগুলোর জন্য আদালত নির্ধারণ করে বিচারের জন্য পাঠাতেন।

১৭৩৯টি মামলার মধ্যে দায়রা ২৮৯টি, বিশেষ ট্রাইব্যুনালের ৯২টি, স্পেশাল মামলা ১৮৭টি, ট্রাইব্যুনালের ১টি, মানিলন্ডারিং ১টি, জেল আপিল ১টি, ফৌজদারি আপিল ৪০২টি, ফৌজদারি রিভিশন ৫১৮টি, ফৌজদারি মোশন ৪০টি, ফৌজদারি মিস মামলা ২০৮টি।

১০ জুলাই পর্যন্ত মহানগর দায়রা জজ এস এম মুজিবুর রহমানের ৮দিনের কর্মদিবস এবং ভারপ্রাপ্ত মহানগর দায়রা জজ (প্রথম অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ) জান্নাতুল ফেরদৌসের জুলাই মাসে ১২ দিনের কর্মদিবসে এসব মামলা প্রস্তুত হয়ে এসেছে।

এছাড়া ১০ জুলাই মহানগর দায়রা জজ এস এম মুজিবুর রহমান অবসরে যাবার পর রোববার (৩ আগস্ট) পর্যন্ত তিন শতাধিক মামলা এসেছে আমলে নেয়ার জন্য। গড়ে প্রতিদিন মামলা এসেছে ৩০টিরও বেশি। মহানগর দায়রা জজ না থাকায় এসব মামলা আমলে নেয়া যাচ্ছেনা।

চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুর রশিদ বাংলানিউজকে বলেন, আইনমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে আমি আশ্বস্ত হয়েছি। আশা করছি এ সংকট দ্রুত নিরসন হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৮৩০ ঘণ্টা, আগষ্ট ০৩, ২০১৪

Nagad
যমুনার পানি ফের বিপৎসীমার উপরে, প্লাবিত সিরাজগঞ্জ
করোনায় আক্রান্ত সিএমপির উপ-কমিশনার মিজান আর নেই
দেশে প্রথম আনার চাষ, সফল চুয়াডাঙ্গার মোকাররম
কাঁচা মরিচের দামে কৃষকের মুখে হাসি
পশু বিক্রি: ফেসবুক বেছে নিচ্ছেন প্রান্তিক খামারিরা


বেগমগঞ্জে ৩০ মেট্রিক টন গম জব্দ
করোনা উপসর্গ নিয়ে বিসিএসআইআর কর্মকর্তার মৃত্যু
সভাপতি পদে রাহুলকে চান কংগ্রেসের সাংসদরা
নালিতাবাড়ী-ঝিনাইগাতীতে ২৫ গ্রাম প্লাবিত
বিপিও উদ্যোক্তাদের বিনিয়োগের আহ্বান পলকের