ঢাকা, মঙ্গলবার, ২০ শ্রাবণ ১৪২৭, ০৪ আগস্ট ২০২০, ১৩ জিলহজ ১৪৪১

মুক্তমত

ভারতীয় সংসদে বাংলাদেশ নিয়ে উদ্বেগ

গত রাতেই ঢাকায় পরিচালিত হলো ‘অপারেশন সার্চ লাইট’। সামরিক বাহিনী নিরস্ত্র বাঙালির ওপর এক নিদারুণ হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছে।

স্বাধীনতার পথের বন্ধুরা

আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ মুক্তিযুদ্ধকে সংগঠিত করার জন্য নানামুখি পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের পক্ষে জনমত

ইন্টারনেট অব থিংস এবং স্মার্ট ক্লাসরুম

মানুষের যোগাযোগ ব্যবস্থাকে নাটকীয়ভাবে পাল্টে দিয়েছে ইন্টারনেট। এই পরিবর্তন এত কম সময়ে এবং এত ব্যাপকহারে হয়েছে যে তা সায়েন্স ফিকশন

শক্তির ভারসাম্য খেলায় দৃষ্টি যখন বাংলাদেশে

কিন্তু বাস্তবে তারা ক্ষমতা হস্তান্তর প্রশ্নে কোনো কথা বলা থেকে সচেতনভাবেই বিরত রইল। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কেউ কেউ পাকিস্তানের

‘পাকিস্তান রক্ষা’র জন্য হানাদারদের ভুট্টোর আগাম অভিনন্দন

এ লক্ষ্যে তিনি ভুট্টো ও টিক্কা খানকে কাজে লাগালেন। ১৯৭১ সালের জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত তিনি কয়েকবার ঢাকা আসা-যাওয়া করেন। করাচি

২৫ মার্চ অধিবেশন! অন্তরালে অপারেশন সার্চ লাইট

কিন্তু বাঙালির পরিচয়বাহী এই ভাষা-সাহিত্য-সংস্কৃতিই আমাদের জন্য কাল হয়ে দাঁড়ালো। পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠী বাঙালি জাতীয়তাবাদকে

স্বাধীনতার রক্ত-কথন

নেতাজি ভারতের স্বাধীনতার প্রসঙ্গেই কথাটি বলেছিলেন। কিন্তু স্বাধীনতার সাথে রক্তের এ সম্পর্কের ইতিহাসে কোনো দেশকালের ভেদ নেই।

আজীবন গেয়ে যেতে চান জীবনের জয়গান

ছেলে তখন মেট্রিক পাশ করলো। নিজের খরচ নিজে জোগাড় করছে, পড়ার খরচও। এভাবে বিএ পাস করার পর চাকরি হলো নারায়ণগঞ্জের একটি বেসরকারি

পাঠ্যবই দিয়ে শুরু, শেষ কোথায়?

আমাদের দেশে প্রাইমারিতে যত ছেলেমেয়ে লেখাপড়া করে ইউরোপে অনেক দেশের মোট জনসংখ্যা তার থেকে কম। এই দেশে শুধু যে অনেক ছেলেমেয়ে লেখাপড়া

‘মাঝে মাঝে তব দেখা পাই, চিরদিন কেন পাই না’ ।। নিনি ওয়াহেদ 

যেভাবেই বলি না কেন- আকর্ষণের প্রতি পাল্লাভারী বলে প্রতীয়মান। ডিসেম্বর মাসের ২৬ তারিখ, বেলা তিনটা চল্লিশ মিনিট, জাহাজের চুল্লি

১৯ মিনিটের সেই কালজয়ী ভাষণ

না, ঐতিহাসিক এসব ঘটনার কোনোটাই দেখিনি। কোনো মিছিলে যাইনি, জনসভায় যাইনি। কারণ আমার জন্ম ৭১-এর অনেক পরে। কিন্তু মার্চ এলেই ফিরে যাই

কেন এই সড়ক তাণ্ডব?

সবাই ইতিমধ্যে সড়কে চলমান তা-বের নেপথ্য কারণ সম্পর্কে জেনেছেন। বাসচালক ও অভিযুক্ত-ঘাতক জামির হোসেন এবং চালক মীর হোসেন কারাগার থেকে

আমাদের জীবনে বই আসুক ফিরে ফিরে

আমরা বই পড়ি আর  না পড়ি, মুজতবা আলীর সেই বাণীটি কিন্তু সবাই জানি, ‘রুটি মদ ফুরিয়ে যাবে, প্রিয়ার কালো চোখ ঘোলাটে হয়ে আসবে, কিন্তু

বাংলা ভাষা ও বর্তমান প্রজন্ম | আদনান সৈয়দ

বাংলাদেশ বলুন আর কলকাতা, অথবা নিউইয়র্ক- বাংলা ভাষা এখন সত্যিকার অর্থেই হুমকির সম্মুখীন। কেউ কেউ ভাষাকে বিকৃতি করছে, কেউ ভাষায় আরবি,

কেন ‘প্রশ্নফাঁস মানি না, মানব না’

তাই একটা অপমান এবং লজ্জার ঘটনার থেকেও অনেক বেশি মর্মান্তিক একটা অনুষ্ঠান আমাকে দেখতে হলো। ফাঁস হয়ে যাওয়া প্রশ্ন নিয়ে উত্তেজিত

ইউনেস্কোর ভিডিওতে বাংলা ভাষা না থাকা দুঃখ ও দুর্ভাগ্যজনক

কাঁটা চামচ আর ছুরি দিয়ে কই মাছের দো-পেঁয়াজা কিংবা ইলিশ ভাজি কীভাবে খাওয়া সম্ভব, সাদা ভাতের সঙ্গে আলু ভর্তা আর ডাল কখনও হাত না লাগিয়ে

জিন্নাহর ‘ওসিয়ত’ নাজিমুদ্দেনের ‘নসিয়তে’ বাঙালির ‘না’

ব্রিটিশ শাসনে হিন্দি, বাংলা আর উর্দুর ওপর চাপিয়ে দেওয়া হলো ইংরেজিকে। বৃটিশ রাজ্যের রাষ্ট্রভাষা ছিলো ইংরেজি। ব্রিটিশরা চলে যাওয়ার

আমরা কি তোমাদের ভুলে গিয়েছি?

আমাদের জীবনে ফিরে আসে একাত্তর, ফিরে আসে বায়ান্ন, ফিরে আসে একুশ। আজও এসেছে, আসবে আগামীতেও। কিন্তু কতোটা স্মৃতি নিয়ে ফিরে আসে একুশ?

বাংলা হরফের ওপর শয়তানি আছর

পাকিস্তান সরকার নানামুখী ষড়যন্ত্রের জাল বুনতে থাকলো। এসব ষড়যন্ত্রের মধ্যে অন্যতম হলো, আরবি হরফে বাংলা লেখার প্রচলন। পাকিস্তানের

বঞ্চিত-অবহেলিত এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষকদের দু:খ

একটি দেশ জাতি ও সমাজ তার ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে যে বিশ্বাস, মূল্যবোধ, দেশপ্রেম, দক্ষতা ও নৈতিকতা বোধ দিয়ে গড়ে তুলতে চায় সেই কাজটা সম্পন্ন

Alexa