ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২২ জিলহজ ১৪৪১

ইচ্ছেঘুড়ি

একলা খুকু | নাজিয়া ফেরদৌস

মন চাইছে মেঘের সাথে যেতে বৃষ্টি নিয়ে উঠতে খেলায় মেতে। যেমন খেলে মেঘের সাথে আলো, লুকোচুরি খেলা লাগে ভালো। মস্ত শহর, মস্ত বাড়ি, মস্ত

বাবা আমার | সৈয়দ ইফতেখার

বাবা হলেন আদেশ আমার আজ সফল প্রেরণা বাবা হলেন পথের দিশা সব জয়ের চেতনা। বাবা আমার প্রিয় মানুষ শ্রেষ্ঠ ভালোবাসা বাবা আমার মহান পুরুষ

গন্ধে মিশে আছো আব্বু | সানজিদা সামরিন

আব্বু সেখানেই স্নান করতেন। দুপুরে ভাতঘুমের সময়টায় সে জানালাটা আব্বু খোলা রাখতেন, ভালো হাওয়া আসতো বলে। ছোটবেলায় প্রায়ই বিকেলেই আমি

মা হাতি ও মায়াবতী | সানজিদা সামরিন

জলাশয় থেকে একটুকানি জল পান করে সে হাঁটতে লাগলো গাঁয়ের পথে। সে গাঁয়ের লোকেরা ভীষণ ভালো। বনে এরা কাঠ কাটতে আসে, নিতে আসে ওষুধি গাছ আর

এলো খুশির ঈদ

আজ চুপি চুপি উঠে ছোটনকে না জানিয়ে সেহরী সেরে ঘুমিয়ে পড়েছে ছোট্টি। কাফেলারা চলে যাবার পরও লেপের মধ্যে মাথা ঢুকিয়ে ঘুমের ভান করে শুয়ে

ঈদে প্রকাশ হলো ইকরিমিকরির গান

প্রকাশনাটিতে থেকে এখন পর্যন্ত প্রকাশ পেয়েছে ৬৫টি বই। বেশিরভাগ বই-ই পিকটোরিয়াল, যা একেবারেই ছোট শিশুদের জন্য উপযোগী। এছাড়াও

মিতুলদের ঈদ উপহার | আলমগীর কবির 

বাবার অফিসও ছুটি। তার বাবাকে অন্য সময় তেমন কাছে পেতো না। এখন পেয়েছে। ওদের বাসায় একটা লাইব্রেরি আছে। অনেক অনেক বই। মজার মজার বই।

কবি নজরুল | আবু আফজাল সালেহ

অন্যায় জুলুম নিপীড়িত কলম ধরে পক্ষে মিটিং মিছিল প্রতিবাদে বের হয়ে যায় কক্ষে! লেটোর দলে শ্লোগান যুদ্ধে দাঁড়িয়ে যায় কোন ব্যক্তি?

করোনার ঈদে | রানাকুমার সিংহ

বন্ধুরা সব দূরে যত পড়বে মনে যাক করোনা মিলব সবাই মধুর ক্ষণে। লাচ্ছা সেমাই ফিরনি পায়েস খাবো যে আর বাবা-মায়ের কাছে পাবো কি উপহার?

এবার ঈদে | শাহ্জাহান সিরাজ

ওদের কথা ভেবে মাগো কেমনে নতুন পরব জামা  আমার মতো ওদের যে নেই ধনী কোনো খালা মামা। ঈদের দিনে নতুন জামা নাইবা দিলে এবার ইচ্ছে আমার

তিন্নিদের ঈদ আনন্দ | সুমাইয়া বরকতউল্লাহ্

তার বাবা থাকে বিদেশে। ঈদের দু’দিন আগের রাতে, তার বাবার ছুটি নিয়ে বাড়ি আসার কথা। সবারই আনন্দ। কিন্তু তিন্নির আনন্দ ছিল অন্যরকম।

ভালো থেকো ফুল কুড়ানি | সানজিদা সামরিন

আজ তার জন্মদিন। এবার সে সাত পেরিয়ে আটে পা দেবে। সন্ধ্যায় কেট কাটা হবে, সব বন্ধুরা আসবে। কত্ত মজা হবে! কিছুক্ষণ পর কুহু দেখলো কাজের

বরুণরাজ ও টুকুর কথা | সানজিদা সামরিন

বরুণরাজ বলেন, টুকু ভয় পেলে নাকি? পাবো না তো কী বলো, করো হাঁকাহাঁকি! শুনে তো বরুণরাজ হেসে দেয় গড়াগড়ি গরজে বলেন এবার- আমার ডাকে সাড়া

মায়ের হাসি | আলমগীর কবির

ফুলের ঘ্রাণও হার মেনে যায়  মায়ের স্নেহের কাছে, মায়ের কথায় মন ভরে যায়  খুশির পাখি নাচে। স্রষ্টার কাছে মায়ের চাওয়া  থাকি যেন

মা | শাহ্জাহান সিরাজ

'মা' এই ছোট্ট নামে শিশুর প্রথম বুলি 'মা' এই ছোট্ট নামে দুঃখ ব্যথা ভুলি। 'মা' এই ছোট্ট নামে হৃদয় থাকে ভরা 'মা' এই ছোট্ট নামে

শিশুপাঠ | আবু আফজাল সালেহ

সুয়োরানি দুয়োরানি বৃষ্টি টাপুর-টুপুর শ্রাবণধারা বৃষ্টি ফোঁটায় পানি ভরা পুকুর। শিশুপাঠক নেচে বলে 'আজ আমাদের ছুটি' নোভা-প্রভা

রবির আলো | রানাকুমার সিংহ

রবির গড়া কাব্য-নাটক  গান বলো বা ছড়া কাকুর কাছে বেশিরভাগই রয়নি বাকি পড়া। কাকু বলেনমন দিয়ে শোন পড়বি রবির লেখা এই জীবনে শিখবি

শ্রমিক তুমি | আলেক্স আলীম

তোমার রক্ত তোমার মাংস তোমার মেধা ঘাম। সভ্যতাতে সবকিছু আজ  ফলায় অবিরাম। তবু তোমার ভাগ্য বদল কেবল গল্প কথা! মুনাফাখোর দেখাচ্ছে

করোনাকে ভয় নয়, সচেতন থাকো

জানি। কতদিন বন্ধুদের সঙ্গে দেখা নেই, কথা নেই, বাইরে খেলতে যাওয়া তো একদম বারণ।  ঘরবন্দি থাকতে থাকতে খুব দুশ্চিন্তাও হচ্ছে তাই না?

ঘরের মধ্যে খেলো | শাহ্জাহান সিরাজ

বন্ধুর বাড়ি দিয়ে এসো ক্যারাম খেলে আসি ঘরে বসে কার্টুন দেখে পাচ্ছে না আর হাসি। মা বলে দেন, শোনরে খোকা বাইরে এখন যাস নে চারিদিকে

এই বিভাগের সর্বাধিক জনপ্রিয়

Alexa