মেলায় পাঠকের বিশেষ নজর বাংলা একাডেমির বইয়ে

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

বইমেলায় বাংলা একাডেমির স্টল। ছবি- ডি এইচ বাদল

walton

বইমেলা থেকে: অমর একুশে বইমেলার আয়োজক বাংলা একাডেমি। তবে সংস্থাটির মূল কাজ গবেষণা আর বই প্রকাশ। বাংলা একাডেমি থেকে প্রকাশিত সুনির্বাচিত সেসব বইয়ের ব্যাপারে সবসময়ই পাঠকের বিশেষ আগ্রহ লক্ষ্য করার মতো। এবারও তার ব্যতিক্রম হয়নি। পাঠকরা তুমুল আগ্রহ নিয়ে কিনছেন বাংলা একাডেমির বই। এরই মাঝে এবারের মেলায় বাংলা একাডেমির প্রকাশিত বইয়ের বিক্রি প্রায় দুই কোটি টাকার মতো। 

সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) মেলায় গিয়ে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এবার বাংলা একাডেমির বইয়ের মধ্যে পাঠকদের পছন্দের শীর্ষে রয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নতুন বই ‘আমার দেখা নয়াচীন’। এর সঙ্গে তাল মিলিয়ে বিক্রি হচ্ছে বঙ্গবন্ধুর আরেক বই 'কারাগারের রোজনামচা'ও। এর বাইরে একাডেমি প্রকাশিত অভিধানগুলোরও রয়েছে ব্যাপক চাহিদা। 

১৯৫৬ সালে প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত বাংলা একাডেমি প্রকাশ করেছে ছয় হাজারের মতো বই। এর মধ্যে এখন সহজলভ্য হাজার দেড়েক। সম্প্রতি নতুন ও পুনর্মুদ্রিত হয়ে এসেছে আরও শতাধিক বই।

এবারের মেলার দুই প্রাঙ্গণে বাংলা একাডেমির সাতটি বিক্রয়কেন্দ্র রয়েছে। এর মধ্যে দুই প্রাঙ্গণে দুটি প্যাভিলিয়ন, চার ইউনিটের কয়েকটি স্টল, শিশু-কিশোর উপযোগী বইয়ের জন্য একটি স্টল, একাডেমির সাহিত্য মাসিক 'উত্তরাধিকার'-এর জন্য একটি স্টল। পাশাপাশি বাংলা একাডেমির ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ ভবনের নিচতলায় নিজস্ব বিক্রয়কেন্দ্র থেকেও বই কিনতে পারছেন পাঠকরা।

বাংলা একাডেমির বইয়ে পাঠকের বিশেষ আগ্রহের ব্যাপারে মেলা পরিচালনা কমিটির সদস্য সচিব ও একাডেমির বিক্রয় ও বিপণন বিভাগের পরিচালক ড. জালাল আহমেদ বাংলানিউজকে বলেন, বাংলা একাডেমি দক্ষ সম্পাদনার মাধ্যমে সবসময় মানসম্মত বই প্রকাশ করে। যা পাঠককে সহজেই আকৃষ্ট করে।

‘একাডেমির বইয়ের মধ্যে এবার সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে বঙ্গবন্ধু রচিত ‘আমার দেখা নয়াচীন’। ইতোমধ্যেই প্রথম মুদ্রণের বিশ হাজার কপি বিক্রি শেষে নতুন করে এ বইয়ের আরও দশ হাজার কপি নিয়ে আসা হয়েছে। এছাড়া বিভিন্ন ধরনের অভিধানসহ বঙ্গবন্ধু রচিত কারাগারের রোজনামচা, পার্লামেন্টারি শব্দকোষ, তিতাস একটি নদীর নাম, শকুন্তলাসহ মুক্তিযুদ্ধ ও ভাষা আন্দোলনের ওপর গবেষণাধর্মী বইগুলো বেশি চলছে।’

সোহরাওয়ার্দী উদ্যান অংশে বাংলা একাডেমির প্যাভিলিয়নের দায়িত্বে থাকা একাডেমির পাণ্ডুলিপি সম্পাদক জাকির হোসেন শিকদার বাংলানিউজকে বলেন, ‘আমার দেখা নয়াচীন’ ও ‘কারাগারের রোজনামচা’ ছাড়াও ‘আধুনিক বাংলা অভিধান’ বিক্রি হচ্ছে সবচেয়ে বেশি। এর বাইরে বাংলা থেকে ইংরেজি অভিধান, ইংরেজি থেকে বাংলা অভিধান, ব্যবহারিক বাংলা অভিধান, উচ্চারণ অভিধান, প্রমিত বাংলা ব্যকরণ ভালো বিক্রি হচ্ছে। মুজিববর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর লেখা বইসহ তাকে নিয়ে রচিত শত গ্রন্থের আওতাভুক্ত ২৬টি নতুন বই প্রকাশ করেছে একাডেমি। এর মধ্যে হারুন-অর-রশীদ রচিত ‘বঙ্গবন্ধুর দ্বিতীয় বিপ্লব : কী ও কেন’, মিল্টন বিশ্বাস সম্পাদিত ‘উপন্যাসে বঙ্গবন্ধু’সহ বঙ্গবন্ধুবিষয়ক আরও কিছু বই টানছে পাঠকদের।

বাংলাদেশ সময়: ১৪৫৭ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০২০
ডিএন/এইচজে

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: বইমেলা অমর একুশে গ্রন্থমেলা ২০২০
করোনায় আক্রান্ত হয়ে কাউন্সিলর মাজহারের মৃত্যু
শিবগঞ্জে বজ্রপাতে গৃহিণীর মৃত্যু
ধান মাড়াই মেশিনে চাপা পড়ে স্কুল ছাত্রের মৃত্যু
নোবেলের বাবা মোজাফফর নান্নু করোনা আক্রান্ত
বিতর্ক পিছু ছাড়ছে না নোবেলের, এবার তৃতীয় বিয়ের খবর!


গোবিন্দগঞ্জে মোটরসাইকেলের ধাক্কায় কিশোরের মৃত্যু
বরগুনায় আরেক নয়নের তাণ্ডব, হত্যার অভিযোগ আ’লীগ নেতার দিকে 
জোভান-ফারিনের 'ফেক প্রেম'
ডা. জাফরউল্লাহর শরীরে প্লাজমা থেরাপি প্রয়োগ
বগুড়ায় যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা