‘বাংলাদেশের সাহিত্যে ঢেউ বেশি’

ফিচার রিপোর্টার | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

‘সাহিত্য ও সাংবাদিকতা: দ্বৈতসত্তার মিল-অমিল’ শীর্ষক আলোচনা। ছবি: ডিএইচ বাদল

walton

ঢাকা: বাংলাদেশ সবসময়ই স্পন্দনায়ন একটি জায়গা। এজন্য বাংলাদেশের যে সাহিত্য, তার ক্ষেত্রে আমি খুবই আশাবাদী। স্পন্দনায়ন জায়গা থেকে সাহিত্যের একটি প্রবাহ তৈরি হয়, যেটি পশ্চিমবঙ্গে অনেকটা ধীর নদী প্রবাহের মতো। বাংলাদেশের সাহিত্যে ঢেউ বেশি, পশ্চিমবঙ্গে স্থির জলের বহতা। তবে সাহিত্যের প্রবাহ দুই বাংলাতেই বহমান এবং বড় সাহিত্যিকরা এই সময়ের মধ্যেই আছেন বলে আমি মনে করি।

ঢাকা লিট ফেস্টের তৃতীয় ও শেষ দিন শনিবার (৯ নভেম্বর) বাংলা একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে আয়োজিত ‘সাহিত্য ও সাংবাদিকতা: দ্বৈতসত্তার মিল-অমিল’ শীর্ষক আলোচনায় এমনটিই বলেন পশ্চিমবঙ্গের কবি ও সাংবাদিক মৃদুল দাশগুপ্ত।

আলোচনায় আরও অংশ নেন কবি ও সাংবাদিক সাজ্জাদ শরীফ এবং কবি ও সাংবাদিক মুস্তাফিজ শফি। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন নিউজ টুয়েন্টিফোরের প্রধান বার্তা সম্পাদক শাহনাজ মুন্নী।

আলোচনায় মৃদুল দাশগুপ্ত বলেন, আমি কবিতা এবং সাংবাদিকতাকে একসঙ্গে দেখি না। দু’টো আলাদা আলাদা বিষয়। সাংবাদিকতা কাঠখোট্টা টাইপের একটা জিনিস। আর কবিতা মনের আবেগের সঙ্গে রঙ মিশিয়ে সুন্দর করে ফুটিয়ে তোলা। সেই জায়গা থেকে আমি বুক ও মাথা দিয়ে কবিতা লেখার চেষ্টা করি।

মুস্তাফিজ শফি বলেন, সাংবাদিকতা পেশায় থেকে সাহিত্যে সময় দেওয়া কষ্টকর। কাজের চাপ সবসময়ই থাকে। সেখান থেকে একটু সময় বের করে সাহিত্যে দিলে পরিবার-পরিজনকে আর সময় দেওয়া হয় না। তাই সাংবাদিকতা ও সাহিত্যে, দু’টোর জন্য সময় এবং মানসিকতার আলাদা আলাদা সমন্বয় করাটা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। আর এটা যখন পরিপূর্ণভাবে হয় না, তখনই সাহিত্যের ক্ষতি হয়।

শনিবার ছিল ঢাকা লিট ফেস্টের শেষ দিন। ছবি: ডিএইচ বাদল

স্বপ্ন এবং কল্পনার বড় অংশ সাংবাদিকতায় দেওয়ার কারণে কবিতা ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে উল্লেখ করেন সাজ্জাদ শরীফ। তিনি বলেন, স্বপ্ন এবং কল্পনার বড় অংশ সাংবাদিকতায় দিয়েছি। ফলে কবিতা ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। কেননা, সাংবাদিকতা ও কবিতার শব্দ আলাদা। আর আলাদা আলাদা শব্দকে দু’বার গ্রহণ করাটা বেশ কঠিন। তবে কবিতা লেখার প্রক্রিয়া একেক জনের কাছে একেক রকম হওয়ায় এটা অনেকটা ব্যক্তির ওপরও নির্ভর করে।

কবিতা ও সাংবাদিকতার ভেতর বিভেদ থাকলেও বিস্তৃত এই পথ সমন্বয় করেই কবিতা এবং সাংবাদিকতা নিজেদের পথে আরও এগিয়ে যাবে এমনটাই প্রত্যাশা করেন সঞ্চালক ও নিউজ টুয়েন্টিফোরের প্রধান বার্তা সম্পাদক শাহনাজ মুন্নী।

বাংলাদেশ সময়: ১৯১১ ঘণ্টা, নভেম্বর ০৯, ২০১৯
এইচএমএস/এইচএডি/

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: শিল্প-সাহিত্য
বিএনপির ভোট করার অভ্যাস নেই: আইনমন্ত্রী 
পিকআপভ্যানের মুরগির খাঁচা থেকে গাঁজা জব্দ, আটক ৩
ক্যারিয়ারের শেষ টেস্ট খেলতে নেমে শাস্তি পেলেন ফিল্যান্ডার
‘নির্দেশ মানতে গিয়ে মার খেতে হয়েছে’
সিলেটে বাসচাপায় বৃদ্ধ নিহত


ওয়ারীতে শ্রমিকদল নেতা গুলিবিদ্ধ
মুক্তিযোদ্ধা হোসেন আলী হত্যা মামলায় ৩ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ
‘করোনা ভাইরাস রোধে প্রবেশদ্বারে স্ক্যানার বসানো হয়েছে’
‘ধর্ম ব্যবহার করে কেউ যেনো সাম্প্রদায়িকতা না ছড়ায়’
সেরা স্টল বিভাগে পুরস্কার পেল গ্রীন ডেল্টা