php glass

গৃহস্থালি কাজে নারীর স্বীকৃতির জন্য কাজ করছে সরকার

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

নির্বাচিত আলোকচিত্র ও ফটোস্টোরি নিয়ে প্রদর্শনী। ছবি: বাংলানিউজ

walton

ঢাকা: গৃহস্থালির সেবামূলক কাজ বিষয়ক জাতীয় পর্যায়ে আলোকচিত্র প্রতিযোগিতার মাধ্যমে নির্বাচিত আলোকচিত্র ও ফটোস্টোরি নিয়ে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে শুরু হয়েছে চার দিনব্যাপী বিশেষ প্রদর্শনী। এটি আগামী ৫ নভেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে।

শনিবার (২ নভেম্বর) জাতীয় চিত্রশালা প্লাজায় আলোকচিত্র প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান করেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। যৌথভাবে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে অ্যাকশনএইড বাংলাদেশ এবং দৃক।

বক্তব্যে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, গৃহস্থালির সেবামূলক কাজে নারীর স্বীকৃতির জন্য কাজ করছে সরকার। পাশাপাশি, নারীর গৃহস্থালির কাজ পুনর্বন্টন ও হ্রাসে প্রয়োজনীয় অবকাঠামোগত উন্নয়নেও কাজ চলছে।

তিনি বলেন, নারী যে বিশাল পরিসরে কাজ করে, তা মূল্যায়ন করা কঠিন। তবে, তা অস্বীকার করার সুযোগ নেই। নারীর বিরুদ্ধে অন্যায়-অত্যাচার প্রতিরোধে তার প্রতি যথাযথ সম্মান ও স্বীকৃতি দেওয়া জরুরি। নারী-পুরুষ উভয় মিলেমিশে যদি ঘরের কাজগুলো ভাগ করে নেয়, তাহলে তা পরিবার ও সমাজে শান্তি নিশ্চিতে সাহায্য করবে।

প্রদর্শনী সবার জন্য উন্মুক্ত। ছবি: বাংলানিউজ

অনুষ্ঠানে গৃহস্থালির সেবামূলক কাজ নিয়ে গবেষণার বিশেষ দিকগুলো উপস্থাপন করেন রিসার্চ ইনিশিয়েটিভ বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক মেঘনা গুহঠাকুরতা।

তিনি বলেন, গাইবান্ধা ও লালমনিরহাটের ১০টি ইউনিয়নে ২০১৮ সালে পরিচালিত এক গবেষণামতে, নারীরা গৃহস্থালির সেবামূলক কাজে দৈনিক প্রায় সাত ঘণ্টা ব্যয় করে, পুরুষেরা ব্যয় করে তিন ঘণ্টারও কম। এক্ষেত্রে ঘরের কাজে পুরুষের অংশগ্রহণ বৃদ্ধিতে নারী-পুরুষ সবার দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন প্রয়োজন। নারীর সুরক্ষা ও সুবিধা নিশ্চিতে অবকাঠামোগত উন্নয়ন প্রয়োজন।

সভাপতির বক্তব্যে অ্যাকশনএইড বাংলাদেশের কান্ট্রি ডিরেক্টর ফারাহ্ কবির বলেন, সরকারি নীতিমালায় যদি গৃহস্থালির সেবামূলক কাজকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হয়, তবে ইউনিয়ন পর্যায়েও নারীর জন্য সুযোগ-সুবিধা পৌঁছে দেওয়া সম্ভব। প্রান্তিক পর্যায়ের নারীরাও যাতে ঘরের কাজের পাশাপাশি আয়মূলক কাজে যুক্ত হতে পারে, সেজন্য সুযোগ-সুবিধা তৈরিতে প্রয়োজনে সরকারি নীতিমালাতেও, বিশেষ করে সরকারের পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনায় পরিবর্তন আনতে হবে।

অনুষ্ঠানে নিজের জীবনের অভিজ্ঞতার কথা জানান নারী কৃষক বিথী বেগম।

প্রতিযোগিতার নির্বাচনী প্রক্রিয়া নিয়ে আলোচনা করেন আলোকচিত্র নির্বাচনী কমিটির অন্যতম সদস্য আলোকচিত্রী জান্নাতুল মাওয়া। প্রতিযোগিতায় প্রথম হয়েছেন সালাহউদ্দিন আহমেদ, দ্বিতীয় হয়েছেন ফারহানা আক্তার এবং যৌথভাবে তৃতীয় হয়েছেন রাফায়াত হক খান ও শাহ নেওয়াজ সৈকত। এছাড়া, বিশেষ সম্মাননা পেয়েছেন ফারহানা সেতু, শাম্মু আজিম, সুমন পাল, শুভ্র পাল ও শামীম শাহনেওয়াজ।

আয়োজকরা জানান, আয়োজনের অংশ হিসেবে বিজয়ীদের ছবিগুলো বিভিন্ন এলাকার জনসাধারণের সামনে তুলে ধরা হবে রিকশা ক্যারাভানের মাধ্যমে, যা আগামী তিনদিন ঢাকা শহরের আনাচে-কানাচে ঘুরে বেড়াবে।

বাংলাদেশ সময়: ১২৫৫ ঘণ্টা, নভেম্বর ০২, ২০১৯
ডিএন/একে

মাশরাফি-তামিমদের সংগ্রহ ১৩৪
গোপালগঞ্জে নবসজ্জিত পূর্ত ভবনের উদ্বোধন
রূপপুর বালিশকাণ্ড: ১৩ প্রকৌশলী গ্রেফতার
মানুষের জন্য হিরো থেকে জিরো হতে চাই: ইলিয়াস কাঞ্চন
আইসিজেতে রোহিঙ্গা গণহত্যা মামলার শেষ দিনের শুনানি শুরু


সেই কারখানার বিরুদ্ধে মামলা করেছিল শ্রম মন্ত্রণালয়
হাইকোর্টের সামনে মিছিলের চেষ্টা, আটক ২
প্রতি কেজি পেঁয়াজের প্লেন ভাড়া ১৫০ টাকা!
সাংবাদিকের ভয়ে ফ্রিজের মধ্যে লুকালেন বরিস!
কেরানীগঞ্জে অগ্নিকাণ্ড: আটজন লাইফসাপোর্টে