php glass

‘শিশুদের মধ্যে বন্ধুত্ব ও ভ্রাতৃত্ববোধের সৃষ্টি হবে’

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

শিশুদের সঙ্গে মেয়র। ছবি: বাংলানিউজ

walton

ঢাকা: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, ‘পেইন্ট ইওর ড্রিম’ প্রদর্শনীর মাধ্যমে বাংলাদেশের শিশুরা ভিন দেশের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য সম্পর্কে জানতে পারবে। এ শিশুদের মধ্যে বন্ধুত্ব ও ভ্রাতৃত্ববোধের সৃষ্টি হবে। আমরাও সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে এ রকম দলগত আর্ট প্রদর্শনীর আয়োজন করবো। এতে দেশের শিশুরা উপকৃত হবে।

শুক্রবার (১৮ অক্টোবর) সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় বাংলাদেশ ক্লাবে ফোকাস বাংলাদেশের আয়োজনে চতুর্থ ‘পেইন্ট ইওর ড্রিম’ আন্তর্জাতিক চিল্ডেন আর্ট ফেস্টিভ্যাল-২০১৯ এর পুরস্কার ও সনদ বিতরণ অনুষ্ঠান শেষে এসব কথা বলেন মেয়র।

মেয়র বলেন, বাংলাদেশ, ভারত, নেপাল, চীন, থাইল্যান্ডসহ ৭টি দেশের ৪৬৫জন শিশু শিল্পী এতে অংশ নেয়। সত্যি এটি একটি ভিন্নধর্মী উদ্যোগ। বিভিন্ন দেশের সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ড, ঐতিহ্য শিশুশিল্পীদের দলগত প্রদর্শনীতে উঠে এসেছে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিল্পী হামিদুজ্জামান খান, আইভি জামান, তাসকিন আহমেদ, মো.শাহেদ হোসেন, রাজেশ মানেনদার, মো.কাউসার হোসেন, মোহাম্মদ ইমদাদুর রাশেদ সুখন প্রমুখ।

পুরস্কার ও সনদ বিতরণ অনুষ্ঠানে ফোকাস বাংলাদেশের সমন্বয়কারী ও প্রদর্শনীর আয়োজক শিল্পী কাওসার হোসেন জানান, দুইদিনব্যাপী ‘পেইন্ট ইওর ড্রিম’ শীর্ষক দলগত প্রদর্শনীতে ৪ থেকে ১৫ বছরের শিশু শিল্পীরা তিনটি গ্রুপে অংশ নেন।

শনিবার (১৯ অক্টোবর) শিশুশিল্পীদের নিয়ে চিত্রাঙ্কন সংক্রান্ত দিনব্যাপী কর্মশালা আয়োজনের মধ্য দিয়ে উৎসব শেষ হবে।

বাংলাদেশ সময়: ১৯৩৬ ঘণ্টা, অক্টোবর ১৮, ২০১৯
পিএস/এইচএডি

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন
আশুলিয়ায় শ্রমিককে মারধরের ঘটনায় যুবলীগ নেতা গ্রেফতার
সংঘাতের অভিশাপে বিবর্ণ ইরাকের আকর্ষণীয় পর্যটনকেন্দ্র
মনিটরিং দল আসছে টের পেয়ে ২৬০ টাকা কেজির পেঁয়াজ ২০০
প্রতিবন্ধী যুবককে মারধরের অভিযোগ, এসআই-নায়েক প্রত্যাহার
পর্দা নামলো ফোকফেস্টের পঞ্চম আসরের


সিলেটে প্রাথমিক-ইবতেদায়ী পরীক্ষায় বসছে ২ লাখ শিক্ষার্থী
সিরিয়াল কিলার কালা মনির এবার পুলিশের খাঁচায়
টেস্টে আমি যা ভেবেছিলাম এর চেয়ে খারাপ হয়েছে: পাপন
টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারাটা মেনে নিতে পারছেন না পাপন
মাঠ ছাপিয়ে দর্শক উচ্ছ্বাস চন্দনা মজুমদার আর জুনুনে