চলছে শিল্পী মনিরুল ইসলামের একক চিত্র প্রদর্শনী

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

গুলশানে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের নতুন সাংস্কৃতিক কেন্দ্র এবং আর্ট গ্যালারি বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জ এর উদ্বোধন উপলক্ষে ১০ ডিসেম্বর   থেকে শুরু হলো শিল্পী মনিরুল ইসলামের ‘Of Rupture and Continuity’ শিরোনামে দুই সপ্তাহব্যাপী একক চিত্রকলা প্রদর্শনী ।

চলছে ঢাকার গুলশান বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জে শিল্পী মনিরুল ইসলামের ‘Of Rupture and Continuity’ শীর্ষক একক চিত্রকলা প্রদর্শনী। গুলশানে বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের নতুন সাংস্কৃতিক কেন্দ্র এবং আর্ট গ্যালারি বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জ এর উদ্বোধন উপলক্ষে  ১০ ডিসেম্বর বিকেলে বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জে দুই সপ্তাহব্যাপী এ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

এছাড়া  ডা. দীপু মনি এদিন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের কুড়ি বছরের কার্যক্রমের ওপর দুই ভলিউমে প্রকাশিত প্রামানিক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচনও করেন।

স্পেন প্রবাসী ও আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন শিল্পী মনিরুল ইসলাম ১৯৪৩ সালে জামালপুরে জন্মগ্রহণ করেন। এ পর্যন্ত তাঁর প্রায় ৩৪ টি একক প্রদর্শনী আয়োজিত হয়েছে এবং দেশে ও বিদেশে বহু দলবদ্ধ প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করেছেন। তিনি ১৯৯৩ ও ১৯৯৭ সালে ছাপচিত্রে অবদানের জন্য স্পেন সরকার কর্তৃক প্রদত্ত ‘ন্যাশনাল অ্যাওয়ার্ড অব্ স্পেন’, ১৯৯৯ সালে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ জাতীয় পুরস্কার ‘একুশে পদক’, ২০০৭ সালে বিদেশে বসবাসরত বাংলাদেশী (এনআরবি) হিসেবে চারুকলায় বিশেষ অবদানের জন্য ‘স্কলারস অব্ বাংলাদেশ’ এবং ২০১০ সালে চিত্রকলায় একাগ্র সাধনা ও চর্চার জন্য স্পেন সরকারের ‘ক্রস অব অফিসার অব দ্য অর্ডার অব কুইন ইসাবেলা’ পুরস্কারসহ দেশে বিদেশে অসংখ্য পুরস্কার লাভ করেন।

মনিরুল ইসলাম ১৯৬৯ সালে সাংস্কৃতিক কার্যক্রম বিনিময়ের অংশ হিসেবে স্পেন সরকারের দেয়া বৃত্তি নিয়ে স্পেনে যান এবং তখন থেকে বর্তমান সময় পর্যন্ত স্পেনে বসবাস করছেন এবং ফ্রিল্যান্স শিল্পী হিসেবে কাজ করছেন।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বরেণ্য শিল্পী কাইয়ুম চৌধুরী। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন শিল্পী মনিরুল ইসলাম, বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক লুভা নাহিদ চৌধুরী এবং বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জ এর পরিচালক নওশিন খায়ের।

মনিরুল ইসলামের যে-কোনো প্রদর্শনী বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গনকে করে তোলে সমৃদ্ধ। তাঁর চিত্রকর্ম দিয়ে এই নতুন গ্যালারির যাত্রা শুরু হলো। ফলে বেঙ্গল আর্ট লাউঞ্জে বিচ্ছিন্নতা ও ধারাবাহিকতা বিষয়ে ‘Of Rupture and Continuity’ শীর্ষক এই প্রদর্শনীটি  এদেশের শিল্পানুরাগীদের হৃদয় ও মনে নতুন উপলব্ধির জন্ম দেবে বলেই আশা করা যায়।

প্রদর্শনীতে মোট চিত্রকর্মের সংখ্যা ৪৪ টি।

প্রদর্শনী চলবে  প্রতিদিন দুপুর ১২ টা থেকে রাত  ৮ টা পর্যন্ত। শেষ হবে ২৩ ডিসেম্বর।


বাংলাদেশ সময় ১১৫২, ডিসেম্বর ৮, ২০১১

সন্ত্রাসী-পুলিশি হামলার প্রতিবাদে সাংবাদিকদের মানববন্ধন
খাগড়াছড়িতে স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড
খুলনায় এমপি নারায়ণ চন্দের ছেলের আত্মহত্যার চেষ্টা
মাকে নিয়ে তীর্থে নয়, ক্যাসিনোয় গেলেন অক্ষয়
শীতকালীন রোগে মৃত্যু ৫৭ জনের


মনিরামপুরের সাবেক ওসি ছয়রুদ্দিনকে আত্মসমর্পণের নির্দেশ
মোদী-অমিতের মিথ্যা কথার তালিকা দিল কংগ্রেস
পুলিশকে জনগণের পক্ষে কাজ করার আহ্বান ইশরাকের
‘ই-পাসপোর্ট ডিজিটাল জগতে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করবে’
সিএএ স্থগিত করতে ভারতীয় সুপ্রিম কোর্টের অস্বীকৃতি