কবিতায় রফিক আজাদ যোগ করেছেন স্বতন্ত্র মাত্রা

ইউনিভার্সিটি করেসপন্ডেন্ট | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

‘কবি রফিক আজাদ: শ্রদ্ধাঞ্জলি’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠানে আলোচক ও অতিথিরা। ছবি : বাংলানিউজ

walton

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: বাংলাদেশে কবিতার ধারায় রফিক আজাদের কবিতা স্বতন্ত্র এক মাত্রা যোগ করেছে বলে মনে করেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক বিশ্বজিৎ ঘোষ।

php glass

বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে বাংলা একাডেমির মূলমঞ্চে ‘কবি রফিক আজাদ: শ্রদ্ধাঞ্জলি’ শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠানে তিনি এ অভিমত ব্যক্ত করেন। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে অধ্যাপক বিশ্বজিৎ বলেন, প্রথম দিকে তার কবিতা ছিল প্রায়ই বিষয়হীন। কিন্তু ক্রমেই সৃষ্টির অবয়ব পেরিয়ে নানা বিষয়-বৈচিত্র্য, মধ্যবিত্ত জীবন, প্রেম-বিরহ, মানুষের মুক্তি, সমকালীন রাজনীতি, নারী ভাবনা, কৃষক জীবন ও আদি নৃগোষ্ঠী- এসব নিয়ে গড়ে উঠেছে রফিক আজাদের কবিতার শরীর। বাংলাদেশের কবিতার ধারায় রফিক আজাদের কবিতা যোগ করেছে স্বতন্ত্র এক মাত্রা।

নিরন্তন সাধনায় কবি রফিক আজাদ নিজস্ব শিল্প-ভুবন তৈরি করেছেন উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিষয়-বৈচিত্র্যে ও প্রকার-প্রকরণে তিনি সাজিয়ে তুলেছেন কবিতার ভুবন। তার কবিতার মূল সুর ব্যক্তির অন্তর্গত উপলব্ধি। ব্যক্তির সীমানা ছাড়িয়ে তার কবিতায় নিরবে ভেসে ওঠে স্বদেশের চিত্র। তার কণ্ঠে শোনা যায়, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর যাপিত জীবনের সুর আর স্বর।

বাংলা একাডেমির এ ফেলো আরো বলেন, রাজনীতির ক্ষেত্রে শূন্যতা কবির কাছে ধরা দিয়েছে ভয়াবহরূপে। দেশজুড়ে নেমে আসা গভীর অন্ধকার স্বাধীনতাপ্রিয় এ কবিকে ব্যথিত করে। স্বৈরতন্ত্র, বিপন্ন অর্থনীতি, পঙ্গু রাজনীতি এবং অসহায় ও মানবতার নিষ্ঠুর চালচিত্র হয়ে ওঠে রফিক আজাদের কবিতা।

কথাশিল্পী রশীদ হায়দারের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে আলোচনায় আরো অংশ নেন অসীম সাহা ও ফারুক মাহমুদ।

বাংলাদেশ সময়: ২১৩৬ ঘণ্টা, ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৯
এসকেবি/এমএমইউ

ক্লিক করুন, আরো পড়ুন: বইমেলা
বিক্রি শুরু সকালে, রাতেই কমলাপুরে টিকিট প্রত্যাশীরা
গোপালগঞ্জে মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ব্যবসায়ী নিহত 
জাগরণের পুরোধা রাজা রামমোহন রায়ের জন্ম
ডিজিটাল ডাক সেবা নিশ্চিত করার নির্দেশ
কলেজছাত্র তাসিন হত্যার বিচার দাবি


বাড়ি বাড়ি গিয়ে ধান কিনলেন ইউএনও
কালুখালী উপজেলা নির্বাচনে ১৬ প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা
নাটোরে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান কেনা শুরু
বাকেরগঞ্জে পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু
বাংলাদেশের হাসপাতালগুলোতে ১৫০ শতাংশ বেড বেড়েছে