php glass

বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের কলেজ কর্মসূচীর ২৫ বছর পূর্তি

| বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton

তরুণরা হচ্ছে শুভ শক্তি। তারা বড় হোক। থাকুক সুন্দর চিন্তা। সমাজ পরিবর্তনে তাদের থাকুক বড় কোনো পরিকল্পনা। শনিবার বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে কলেজ কর্মসূচির ২৫ বছরপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত এ কথাগুলো বলেন বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ।

ঢাকা: তরুণরা হচ্ছে শুভ শক্তি। তারা বড় হোক। থাকুক সুন্দর চিন্তা। সমাজ পরিবর্তনে তাদের থাকুক বড় কোনো পরিকল্পনা।

শনিবার বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রে কলেজ কর্মসূচির ২৫ বছরপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত এ কথাগুলো বলেন বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ।

তিনি বলেন, ‘আমি শিক্ষক, প্রতি বছর শত শত ছেলেমেয়ে এখানে আসে। তারা পড়াশোনা করছে। বড় হচ্ছে, সমৃদ্ধ হচ্ছে। তাদের একত্রিত করতে পেরেছি, এটা আমার কাছে ভাল লাগছে। এটাই আমার বড় অর্জন।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি চাই, আজকের তরুণরা আরো বড় হোক। স্বপ্নধারক হোক। সমাজ পরিবর্তনে তারা আরও এগিয়ে আসুক।’

১৯৮৪ সালে হাতেগোনা কয়েকজন কলেজ ছাত্র নিয়ে শুরু হয় এই কর্মসূচি। দীর্ঘ সময়ের পথ পাড়ি দিয়ে আজ এই কর্মসূচি পালন করছে তার রজতজয়ন্তী। এই উপলক্ষে সকাল ৯টায় র‌্যালি বের করা হয়। ছাত্র-ছাত্রীদের অংশগ্রহনে সারাদিনের জন্য নাচ, গান, আড্ডার ব্যবস্থা করা হয়েছে কেন্দ্রের নতুন ভবনে।

সকাল ৯টায় শুরু হয়ে রাত ৯টা পর্যন্ত চলবে এই অনুষ্ঠান।

বিভিন্ন ব্যাচের সদস্য হিসাবে অনুষ্ঠানে অংশ নেন প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থী ও ২৫ বছর পূর্তি উৎসবের আহবায়ক ফরিদা হাফিজ, টিভি ব্যক্তিত্ব আব্দুন নূর তুষার, সাপ্তাহিক পত্রিকার সম্পাদক গোলাম মতূর্জা, নাট্যব্যক্তিত্ব শামীম শাহেদ প্রমুখ।

বাংলাদেশ সময়: ১৫১৯ ঘণ্টা, ডিসেম্বর ২৫, ২০১০

শ্রীমঙ্গলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে যুবকের মৃত্যু
এখন কী করবে বিএনপি?
নেত্রকোণাকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন কিশোরগঞ্জ
‘খালেদা জিয়ার জামিন ঠেকানো নিয়ে ব্যস্ত সরকার’
দশ বছর পর ছোট পর্দায় ফিরছেন পার্নো মিত্র


করণীয় ঠিক করতে বৈঠকে বিএনপি
হল থেকে বহিরাগত আটক, চবি শিক্ষার্থীকে শোকজ
পুড়ে যাওয়া ছোট ভাইকে নিয়ে বেরিয়েছেন বড় ভাই
উদাসীনতায় ও আইনের প্রয়োগ না হওয়ায় নির্মাণ ঝুঁকি কমছে না
নানা আয়োজনে ডিজিটাল বাংলাদেশ দিবস- ২০১৯ উদযাপন