অটিজম শিশুদের জন্য ভালবাসা

সাখাওয়াত সাকিল | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

অটিজম শিশুদের জন্য ভালবাসা।

ঢাকা: স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ইনলাইটেন সোসাইটি ফাউন্ডেশন জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মবার্ষিকী ও শিশু দিবসে ভালবাসার বার্তা নিয়ে পৌঁছে যায় অটিজম শিশুদের মধ্যে। তাদের মধ্যে আনন্দ অনুভূতি ভাগাভাগি করে এক হয়ে যায় সংগঠনটি।

সংগঠনটি রাজধানীর মিরপুরে অবস্থিত অটিজম শিশুদের জন্য বিশেষভাবে পরিচালিত স্কুল "Autistic Children's Welfare Foundation স্কুলের ২৬জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ দেওয়া। সেসঙ্গে একটি চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার আয়োজন করে এবং বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে শিশুদের নিয়ে কেক কাটে।

অটিজম শিশুদের সঙ্গে আনন্দ ভাগাভাগি করে নেওয়ার পাশাপাশি মানসিক ও শারীরিক প্রতিবন্ধী শিশুদের অধিকার সম্পর্কে সমাজের সবার কাছে বার্তা দিতেই ইনলাইটেন সোসাইটি ফাউন্ডেশনের এ উদ্যোগ। সমাজের বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষের সহযোগিতা পেলে প্রতিবন্ধী এসব শিশুরাও সাধারণ মানুষের মতো জীবন যাপনের সুযোগ পাবে।

অটিজম শিক্ষার্থীরা সব কষ্ট ভুলে আনন্দের সঙ্গে দিনটি উদযাপন করে। রঙিন পেন্সিল হাতে তারা কল্পনার ছবি আঁকে। স্বাধীন বাংলাদেশ, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, সেসঙ্গে প্রকৃতির অপার সৌন্দর্যকে ফুটিয়ে তোলে রঙ তুলির ছোঁয়ায়। এ সময় প্রতিটি শিক্ষার্থীদের মধ্যে শিক্ষা উপকরণ বিতরণ করে ইনলাইটেন সোসাইটি ফাউন্ডেশন।

ওই দিন সকাল ১০টায় শুরু হওয়া চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও শিক্ষা উপকরণ বিতরণের এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিল অটিস্টিক চিলড্রেনস ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ ডা. মারুফা বেগম এবং শামীম আহমেদ ও ইনলাইটেন সোসাইটি ফাউন্ডেশনের উদ্যোক্তা সজীব রায়।

এছাড়াও ইনলাইটেন সোসাইটির অন্যান্য সদস্যের মধ্যে উপস্থিত ছিল রাফিউল আহমেদ পিয়াস, সাখাওয়াত সাকিল, সুজন সাহা, তানভীর শুভ, আফ্রিদা জাহান চৌধুরী, আসিফা হোসেন, প্রিয়াংকা রায়, অনুপম দেব নাথ, ইমন সাহা, মারিয়া, জাওয়াদ উদ্দিন, সুমাইয়া রেজিয়া প্রমুখ।

সমাজের বিভিন্ন শ্রেণীর মানুষের সহযোগিতা পেলে মানসিকভাবে প্রতিবন্ধী এসব শিশুরাও সাধারণ মানুষের মতো জীবনযাপনের সুযোগ পাবে।

অটিস্টিক চিলড্রেনেস ওয়েলফেয়ার ফাউন্ডেশন বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠানটির অধ্যক্ষ ডা মারুফা বেগম জানান, আটিজম শিশুদের জন্য পরিচালিত এ স্কুলটিতে প্রতিটি বাচ্চার সব সময় বিশেষ যত্ন নেওয়া হয়। শিশুদিবস উপলক্ষে শিশুদের জন্য ইনলাইটেন সোসাইটি ফাউন্ডেশনের এ আয়োজন করার জন্য বিশেষ ধন্যবাদ জানাই। আমরা চাই সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষ এ সব শিশুদের পাশে এগিয়ে আসুক। ভালবাসার হাত বাড়িয়ে দিক”।

ইনলাইটেন সোসাইটি ফাউন্ডেশনের উদ্যোক্তা সজীব রায় বলেন, “শিশুরাই জাতির ভবিষ্যৎ। অটিজম শিশুদের মধ্যে আনন্দ পৌঁছে দিতে এবং তাদের সেই আনন্দের অংশীদার হতে আমাদের এ আয়োজনের প্রচেষ্টা ছিল। আমরা সমাজের সবার কাছে একটি বার্তা দেওয়ার উদ্দেশ্য নিয়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি। সমাজের সবার এগিয়ে এলে এসব শিশুরাও সাধারণ শিশুদের মতো জীবনজাপন করতে পারবে। আমাদের সবারই উচিত এসব শিশুদের বন্ধু হয়ে তাদের পাশে থাকা তাদের মানসিক ও শারীরিক সাপোর্ট দেওয়া”।

স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ইনলাইটেন সোসাইটি ফাউন্ডেশন ইতোপূর্বে বিভিন্ন সামাজিক ও মানবিক কার্যক্রম করেছে। গতবছর প্রতিষ্ঠানটি সুবিধা বঞ্চিত ১শ’র বেশি ছিন্নমূল পথ শিশুদের নিয়ে এয়ারপোর্ট রেলস্টেশনে “পথ শিশুদের জন্মদিন উৎসব” নামক অনুষ্ঠান করেছে।

বাংলাদেশ সময়: ১৫৩৯ ঘণ্টা, মার্চ ১৯, ২০১৮

এএটি

চুপচাপ জামায়াত
সহকারী পরিচালক নেবে বাংলাদেশ ব্যাংক
খালেদার আসনে সরব আ’লীগ, নীরব বিএনপি
বলেশ্বর নদ থেকে আগ্নেয়াস্ত্রসহ দস্যু আটক
আত্মবিশ্বাসী আফগানদের সামনে ধারাবাহিক বাংলাদেশ
সিলেট-৬ আসনে নাহিদের প্রতিদ্বন্দ্বী কে?
ঘরের মাঠে সিটির হার
আগুনমুখা নদীতে ভাসমান মরদেহ
রোমার বিপক্ষে রিয়ালের দাপুটে জয়
আর্থিক সহযোগিতা পেলে বাঁচবে শিশু জুনায়েদ