php glass

একজনকে বাঁচাবেন, নাকি পাঁচজনকে!

মনোকথা ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: ইন্টারনেট

walton

দু’টির মধ্যে একটি বেছে নিতে হবে আপনাকে। আপনিই সিদ্ধান্ত নেবেন একজনকে বাঁচাবেন, নাকি পাঁচজনকে!
প্রায়ই আমরা সিদ্ধান্তহীনতায় পড়ে যাই, বিশেষত নৈতিকতার প্রশ্নে।

ঢাকা: দু’টির মধ্যে একটি বেছে নিতে হবে আপনাকে। আপনিই সিদ্ধান্ত নেবেন একজনকে বাঁচাবেন, নাকি পাঁচজনকে!
প্রায়ই আমরা সিদ্ধান্তহীনতায় পড়ে যাই, বিশেষত নৈতিকতার প্রশ্নে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, মানুষের নৈতিক বোধ গড়ে ওঠে শিশুকালেই। যে কারণে শিশুদের নৈতিক শিক্ষা দেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। যে কারণে শিশুদের নীতি বাক্যা পড়ানো হয় ‘সকালে উঠিয়া আমি মনে মনে বলি/ সারাদিন আমি যেনো ভালো হয়ে চলি’।

সম্প্রতি উত্তর ক্যারোলিনার অ্যায়েক ফরেস্ট ইউনিভার্সিটির মনোবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ই. যে. মেসিক্যামো তার দুই বছর বয়সী ছেলে নিকোলাসকে একটি নৈতিক দ্বন্দ্বের সমাধান করতে দেন।

পরীক্ষা: ট্রেন কোন পথে পাঠাবে নিকোলাস।

দ্বন্দ্ব: ট্রেনের দুইটি ট্র্যাক। একদিকে পাঁচটি পুতুল, অন্যদিকে একটি পুতুল। কাকে ক’জনকে বাঁচাবে নিকোলাস।

মেসিক্যামো বলেন, আমি শিক্ষার্থীদের নৈতিক শিক্ষার পাঠ দেই। ক্লাসের প্রথম দিনেই আলোচনা হয় নৈতিক শিক্ষা নিয়ে।
‘রাতে বাসায় ফিরে দেখি আমার ছেলে ট্রেন নিয়ে খেলছে। দেখার চেষ্টা করি, নৈতিক সিদ্ধান্তে তার অবস্থান কেমন’।

খুব স্বাভাবিক সমাধান হওয়া উচিৎ ছিলো- যে ট্র্যাকে একজন আছে সেদিকে ট্রেন চালানো। কিন্তু নিকোলাসের মনে তা আসেনি।
পুরো সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিষয়টি মেসিক্যামো ভিডিও করে ইউটিউবে আপলোড করেন। তিনদিনে ভিডিওটি ২৬,০০০০ লাখ মানুষ দেখে।


নিকোলাস একা ট্র্যাকে থাকা ব্যক্তিকে তুলে নিয়ে পাঁচজনের পাশে রাখে। এবং তাদের ওপর দিয়ে ট্রেন চালিয়ে দেয়।

মেসিক্যামো বলেন, আমি প্রায়ই আমার স্ত্রীর সঙ্গে আলাপ করি আমাদের সন্তান নৈতিক শিক্ষায় ঠিক মতো শিক্ষিত করে তুলতে আমাদের কি কি করা উচিৎ।

ভিডিওতে একজন মজা করে লিখেছেন, নিকোলাসের সহজ সমাধান।

আরেকজন লিখেছেন, পাঁচজনকে হত্যা করে একজনকে বাঁচিয়ে রাখলে সাক্ষী থেকে যাচ্ছে। তাই সবাইকে মেরে ফেলার সিদ্ধান্তই যৌক্তিক।

বাংলাদেশ সময়: ২২০৯ ঘণ্টা, সেপ্টেম্বর ০২, ২০১৬
এটি

পরিবহন ধর্মঘট আর নেই: ওবায়দুল কাদের
বকেয়া বেতনের দাবিতে আশুলিয়ায় পোশাক শ্রমিকদের বিক্ষোভ
৪৫ টাকায় টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি জোরদার
‘বিদেশি বিনিয়োগকারীদের উৎসাহে কাজ করছে সরকার’
দুর্ভিক্ষের ‘পদধ্বনি শুনতে’ পান ব্যারিস্টার মওদুদ


অনার্স ২য় বর্ষের ২৫ নভেম্বরের পরীক্ষা স্থগিত
মরিনহোর প্রথম টার্গেট দিবালা 
‘বেলাশেষে’র হিন্দি রিমেকে ঋষি-নীতু
ভারতজুড়ে এনআরসি পরিকল্পনায় ত্রিপুরায় মিশ্র প্রতিক্রিয়া
টাঙ্গাইলে ১৪৪ ধারা জারি, অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন