php glass

অ্যাংজাইটি প্রতিরোধে কার্যকরী ৬ খাবার

মনোকথা ডেস্ক | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

ছবি: সংগৃহীত

walton

গবেষণায় দেখা গেছে, আমেরিকায় অ্যাংজাইটির সমস্যায় ভুগছেন প্রায় ৪০ লাখ প্রাপ্তবয়স্ক। যাদের অ্যাংজাইটির সমস্যা রয়েছে তারা অনেকেই ঝুঁকে পড়ছেন দীর্ঘমেয়াদী ওষুধের ওপর। যদিও এসব ওষুধ নির্দিষ্ট সময়ের পর ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া খাওয়া ঠিক নয়...

ঢাকা: গবেষণায় দেখা গেছে, আমেরিকায় অ্যাংজাইটির সমস্যায় ভুগছেন প্রায় ৪০ লাখ প্রাপ্তবয়স্ক। যাদের অ্যাংজাইটির সমস্যা রয়েছে তারা অনেকেই ঝুঁকে পড়ছেন দীর্ঘমেয়াদী ওষুধের ওপর। যদিও এসব ওষুধ নির্দিষ্ট সময়ের পর ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া খাওয়া ঠিক নয়, তবুও অনেকে ভোগান্তি এড়ানোর সহজ মাধ্যম হিসেবে ওষুধ খেয়ে যাচ্ছেন।

 

আমাদের শরীর ও মন একে অপরের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। তাই সঠিক খাবার আপনার মানসিক স্বাস্থ্যকেও ভালো রাখে। এদিক থেকে অ্যাংজাইটি প্রতিরোধকারী বিশেষ কয়েকটি খাবার রয়েছে কার্যকরী ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন। আসুন জেনে নিই-

ক্যামোমাইল চা
প্রাকৃতিক অ্যান্টি-অ্যাংজাইটি মেডিসিন বলা যেতে পারে একে। হালকা ও ঠাণ্ডা ক্যামোমাইল চা মাত্র কয়েক সপ্তাহের মধ্যে অ্যাংজাইটির সমস্যা সমাধান করতে সক্ষম।

 

কাঁচাহলুদ
অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট হলুদ নিউরোপ্রোটেকটিভ কোয়ালিটি সম্পন্ন। এটি মুড ভালো রাখে। মেজর ডিপ্রেশন ও অ্যাংজাইটি ডিজঅর্ডারে এটি কার্যকরী একটি উপাদান।

অ্যাভোকাডো
অ্যাভোকাডো অ্যাংজাইটি প্রতিরোধকারী সুপারফুডগুলোর মধ্যে একটি। এটি ভালো ব্রেইনফুডও। এর মধ্যকার পটাশিয়াম রক্তচাপ কমায়। এতে রয়েছে উপকারী বি ভিটামিন ও মনোআনস্যাচুরেটেড ফ্যাট যা নিউরোট্রান্সমিটার ও মানসিক স্বাস্থ্যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

শতমূলী
শতমূলীতে রয়েছে উন্নতমানের ফলেট, গুরুত্বপূর্ণ ভিটামিন বি যা শরীরে পৌঁছে ফলিক এসিডে পরিণত হয়। শরীরে ফলিক এসিডের ঘাটতি থাকলে মানসিক অবসাদ ও অ্যাংজাইটি হতে পারে। শতমূলীতে আরও রয়েছে ভিটামিন সি ও ফাইবার।

ডার্ক চকলেট
জার্নাল অব সাইকোফার্মাকোলজিতে প্রকাশিত প্লেসবো-নিয়ন্ত্রিত পরীক্ষায় দেখা যায়, যারা প্রতিদিন অন্তত ৪৪ মিলি ডার্ক চকলেট পানীয় পান করেন তারা অন্যদের চেয়ে অনেক বেশি মানসিক স্বস্তি অনুভব করেন। রক্তচাপ ও হৃদরোগ কমানোর পাশাপাশি ফাইবার রক্তে শর্করার পরিমাণ কমায় ও শক্তি সঞ্চয় করে।

গ্রিক ইয়োগার্ট
চিনি ছাড়া প্লেইন গ্রিক ইয়োগার্ট শরীরের পক্ষে অত্যন্ত উপকারী। ফ্যাট ফ্রি গ্রিক ইয়োগার্টের প্রতি ১৭০ গ্রামে রয়েছে ২২ গ্রাম প্রোটিন ও ১২০ ক্যালরি। রক্তচাপ কমানোর মাধ্যমে এটি অ্যাংজাইটি হ্রাস করে। পাশাপাশি শরীরে ভিটামিন বি৬ ও বি১২ এর ঘাটতি পূরণ করে। গ্রিক ইয়োগার্ট ম্যাগনেসিয়াম, ক্যালসিয়াম, পটাশিয়াম ও প্রোটিন যা একসঙ্গে মিলে দ্রুত অ্যাংজাইটি দূর করে।

তথ্যসূত্র: ইন্টারনেট।

বাংলাদেশ সময়: ০০৪৪ ঘণ্টা, এপ্রিল ০৩, ২০১৬
এসএমএন/এসএস

রাজধানীর মিরপুরে দুইজনের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার
ব্যাটসম্যানদের আত্মবিশ্বাসের অভাব রয়েছে: ডমিঙ্গো
এতিম সাজিয়ে দম্পতির কাছে চুরি করা শিশু বিক্রি
পাকুন্দিয়ায় প্রিমিয়ার ক্লাব ফুটবলের ফাইনাল অনুষ্ঠিত
করফাঁকির অভিযোগে ৫৫০০ কেজি তামাক জব্দ


শিপিং রিপোর্টার্স ফোরামের নতুন কমিটি
কেরানীগঞ্জে উদ্ধার কদমতলীর অপহৃত নারী, আটক ১
বেনাপোল কাস্টমসে নিয়োগ পরীক্ষার্থীদের ভোগান্তি 
জ্যাঠা শ্বশুরের বিরুদ্ধে গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগ
শ্রীমঙ্গলে ক্রেতা সেজে দুটি ডাহুক উদ্ধার