ঘুম না এলে যা খাবেন

2751 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
সারাদিন কর্মব্যস্ত দিন পার করে যখন রাতে ঠিকমতো ঘুমাতে পারেন না, তখন নিশ্চয়ই খুব অস্বস্তি হয়। আর রাতে পরিপূর্ণ ঘুম না হলে শরীর-মন পরের দিন কাজ করার শক্তি ও উৎসাহ পায় না।

ঢাকা: সারাদিন কর্মব্যস্ত দিন পার করে যখন রাতে ঠিকমতো ঘুমাতে পারেন না, তখন নিশ্চয়ই খুব অস্বস্তি হয়। আর রাতে পরিপূর্ণ ঘুম না হলে শরীর-মন পরের দিন কাজ করার শক্তি ও উৎসাহ পায় না।

শরীরের শক্তি বাড়ানো ও শরীরকে সুস্থ রাখতে খাদ্যের পাশাপাশি পর্যাপ্ত ঘুমের প্রয়োজনীয়তাও রয়েছে। পর্যাপ্ত ঘুম না হলে শরীর দুর্বল হওয়ার পাশাপাশি মেজাজও খিটখিটে হয়ে যায়। এছাড়া স্ট্রেস বেড়ে যাওয়া আর অলসতা কাজ তো করেই।

যারা দীর্ঘদিন ধরে এ সমস্যায় ভুগছেন, তারা অনেকেই ঘুমের ওষুধের আশ্রয় নিচ্ছেন। তবে ঘুমের ওষুধ প্রাথমিক অবস্থায় ভালো কাজ করলেও, পরবর্তী এর পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

তাই এবারের আয়োজন বেশকিছু সহজ সমাধান নিয়ে। শুধুমাত্র কিছু ঘরোয়া খাবার-দাবার খেয়েই যদি রাতে শান্তিতে ঘুমানো যায়, তাহলে আর কী চাই! দেখে নিন কী খেয়ে ঘুমাবেন রাতে।

দুধ

রাতে দুধ খেয়ে ঘুমানোর অভ্যাস অনেকেরই রয়েছে। একগ্লাস হালকা গরম দুধ খেয়ে ঘুমালে দ্রুত ঘুম আসবে। কারণ, এতে রয়েছে ক্যালসিয়াম। ক্যালসিয়াম পেশির জড়তা দূর করে ও শরীরের মেলাটোনিন হরমোন নিঃসরণ নিয়ন্ত্রণ করে। এছাড়াও দুধে রয়েছে অ্যামিনো এসিড যা সেরোটোনিন উৎপাদনে সাহায্য করে। সেরোটোনিন এমন একটি রাসায়নিক উপাদান যা স্নায়ুর কার্যকারিতা স্বাভাবিক রাখে ও প্রশান্তি তৈরিতে অগ্রদূত হিসেবে কাজ করে।

চেরি

চেরি ফল ঘুমের ভালো প্রাকৃতিক ওষুধ। চেরি মেলাটোনিন তৈরিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে। মেলাটোনিন হরমোন শান্তিপূর্ণ বিশ্রামে সহায়তা করে।

আখরোট

আখরোট ট্রিপটোফিনের ভালো উৎস। এর অ্যামিনো এসিড উপাদান শরীরে সেরোটোনিন ও মেলাটোনিন তৈরি করে ঘুমচক্র নিয়ন্ত্রণ করে। এছাড়াও যুক্তরাষ্ট্রের টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা অনুযায়ী, আখরোট নিজেই মেলাটোনিনের ভালো উৎস, ফলে ঘুম নিয়ন্ত্রণ করে সহজেই।

আমন্ড

আমন্ডে রয়েছে উচ্চমানের ম্যাগনেসিয়াম যা ঘুমের পক্ষে প্রয়োজনীয় একটি উপাদান। অর্থোমলিক্যুলার মেডিসিন জার্নালের একটি গবেষণার তথ্যে জানা গেছে, যখন শরীরে ম্যাগনেসিয়ামের মাত্রা কমে যায় তখন ঘুমে সমস্যা দেখা দেয়। 

পনির

পনির, টকদই ও দুধে প্রচুর ক্যালসিয়াম থাকে। আর ক্যালসিয়াম মস্তিষ্ককে এসব উপাদান থেকে পাওয়া ট্রিপটোফেনকে মেলাটোনিনে রূপান্তর করতে সাহায্য করে।

লেটুসপাতা

অল্প আঁচে তিন থেকে চারটি বড় লেটুসপাতা এক কাপ পানিতে ১৫ মিনিট সেদ্ধ করুন। তারপর ছেঁকে তাতে দু’টি পুদিনা পাতা ছেড়ে ঢেকে রাখুন। বিছানায় যাওয়ার আগে পান করুন। দেখবেন, ঘুমে একেবারে কাদা হয়ে গেছেন!
 
বাংলাদেশ  সময়: ০১১৬ ঘণ্টা, মার্চ ২৪, ২০১৫

আক্রান্ত গার্মেন্টস কর্মকর্তার ৫ সহকর্মী কোয়ারেন্টিনে
চাঁদপুর লকডাউন
জন্মদিনে নিঃসঙ্গ জয়া, আবেগঘন বার্তা অভিষেক-শ্বেতার
বরিশালে অটোরিকশায় বাসদের ফ্রি অ্যাম্বুলেন্স সেবা
খুনি মাজেদের ফাঁসি যেকোনো সময়


করোনা চিকিৎসার সরঞ্জাম দিল চায়না রেলওয়ে গ্রুপ
পুলিশ সদস্যদের সুরক্ষা নিশ্চিতে সদরদপ্তরের আহ্বান
করোনার কারণে বাংলাদেশ সফরে আসছে না অস্ট্রেলিয়া
রোববার থেকে ব্যাংক লেনদেন আড়াই ঘণ্টা
মার্কিন নাগরিকদের জন্য বিশেষ ফ্লাইট ১৩ এপ্রিল