রাগ নিয়ন্ত্রণে মনকে বোঝান সবার আগে

3120 | বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

walton
রাগ মানুষের এক ধরনের সাধারণ, স্বাভাবিক আবেগ। কম হোক বা বেশি- প্রতিটি মানুষের মধ্যেই রাগ থাকে। এটা খুব স্বাভাবিক। কিন্তু রাগ যখন বাড়াবাড়ি পর্যায়ে চলে যায়, তখন সেটা নিয়ে একটু ভাবতেই হবে।

রাগ মানুষের এক ধরনের সাধারণ, স্বাভাবিক আবেগ। কম হোক বা বেশি- প্রতিটি মানুষের মধ্যেই রাগ থাকে। এটা খুব স্বাভাবিক। কিন্তু রাগ যখন বাড়াবাড়ি পর্যায়ে চলে যায়, তখন সেটা নিয়ে একটু ভাবতেই হবে।

আপনি যদি খুব সহজেই রেগে ওঠেন এবং তা নিয়ন্ত্রণ করতে না পারেন, তাহলে তা আপনার ব্যক্তিগত ও সামাজিক জীবনে খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে। আশেপাশের মানুষেরাও বিরক্ত হয়ে উঠতে পারে আপনার ওপর। এ ধরনের সমস্যা যেন না হয় সেজন্য রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে হবে আপনাকে।

এটা খুব সহজ কাজ নয়। ধীরে ধীরে রাগকে নিজের বশে আনতে হবে। সেক্ষেত্রে কিছু বিষয় নিজের মনে গেঁথে নিতে হবে, যা আপনার রাগ কমাতে সাহায্য করবে। রাগ সম্পর্কে কিছু বিষয় আপনাকে জানতে হবে, বারবার নিজেকে এগুলো বোঝাতে হবে। তাহলে ধীরে ধীরে একটা সময় আপনি রাগ নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন। এখানে রইল রাগ নিয়ন্ত্রণের জন্য কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, যা আপনার মনকে বোঝাতে হবে।

কেন রেগে যাচ্ছেন?
নিজের রাগটাকে নিয়ন্ত্রণ করতে সবার আগে যেটা জানতে হবে সেটা হচ্ছে আপনি ঠিক কী কারণে রেগে যাচ্ছেন। অনেক সময় মানুষ সুনির্দিষ্ট কোনো কারণ ছাড়াই রেগে যায়। তাই নিজেই নিজেকে প্রশ্ন করুন, কেন রেগে আছি আমি? নিজেই খুঁজে বের করুন উত্তরটি।

রাগ শুধু সময় নষ্ট করে
নিজেকে যখন প্রশ্ন করবেন, কেন আপনি রেগে আছেন, সে প্রশ্নের কোনো সুনির্দিষ্ট উত্তর যদি না পান তবে মনকে বোঝান আপনি অকারণেই রেগে যাচ্ছেন। এই রাগ আপনার অনেকটা সময় কেড়ে নিচ্ছে। এ সময়ে আপনার আনন্দে থাকার কথা ছিল, একটা কাজ শেষ করার কথা ছিল। রাগ আপনাকে সেটা করতে দিচ্ছে না। সুতরাং আপনার রেগে গেলে চলবে না, রাগ আপনার অনেকটা সময় নিয়ে নেবে, কিন্তু কোনো উপকারে আসবে না।

রাগ কোনো সমাধান নয়
আপনি যদি কোনো যুক্তিসঙ্গত কারণে রেগে গিয়ে থাকেন, তাহলে রাগ আপনার সেই সমস্যার কোনো সমাধান করতে পারবে না। বরং রেগে গিয়ে আপনি সমস্যাটাকে আরো জটিল করে তুলছেন। তাই না রেগে শান্ত হয়ে ভেবে সমস্যার সমাধান বের করতে হবে। এই কথাটাই নিজেকে বোঝান। যদি কোনো মানুষের উপরে আপনি রেগে থাকেন, তাহলে মনকে বোঝান, কোনো মানুষই পারফেক্ট নয়। তাই সবার সব কাজ, আচার-ব্যবহার আপনার ভালো লাগবে এমনটা নয়। একইভাবে হয়তো আপনার অনেক কাজও অন্যদের ভালো লাগে না। এটাই স্বাভাবিক। এজন্য রেগে যাওয়ার কিছু নেই।

অন্য আবেগের ফলাফল রাগ
রাগ যে সবসময় রেগে যাওয়ার মতো কোনো কারণ থেকে হয় তা নয়। অনেক সময় ক্ষোভ, কষ্ট, মন খারাপ, বিষণ্ণতা বা অন্য কোনো আবেগ-অনুভূতি মানুষকে রাগিয়ে তোলে। সেক্ষেত্রে আপনার রাগের পেছনে কোনো আবেগ লুকিয়ে আছে তা খুঁজে বের করতে হবে এবং সেই আবেগের কারণটি চিহ্নিত করে তার সমাধান করতে হবে। এজন্য রেগে ওঠার কিছু নেই, এবং আপনি অকারণেই রাগছেন- মনকে এটি বোঝান।

রাগ নিয়ন্ত্রণে আনতে হবে ধীরে-সুস্থে, ধৈর্য নিয়ে। এজন্য সবচেয়ে আগে প্রয়োজন নিজের মনকে বোঝা এবং বোঝানো। তবে নিজে বারবার চেষ্টা করেও যদি এই বিষয়গুলো মনকে বোঝাতে ব্যর্থ হন এবং আপনার রাগ যদি দিন দিন বাড়তে থাকে, আর তা যদি অস্বাভাবিক পর্যায়ে চলে যায়, তাহলে অবশ্যই একজন মনোরোগ বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন।

বাংলাদেশ সময়: ২০১৯ ঘণ্টা, ম‍ার্চ ০৩, ২০১৫

করোনা: হবিগঞ্জের সড়কে সড়কে র‍্যাবের টহল ও মাইকিং
বীরবিক্রম শাফী ইমাম রুমীর জন্ম
সেই প্রবীণদের বাড়িতে ইউএনও, ফোনে কথা বললেন প্রতিমন্ত্রী
ইতালিতে করোনায় মৃত্যু ১০ হাজার ছাড়ালো
করোনা উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু: পুলিশি পাহারায় দাফন


যুক্তরাষ্ট্রে স্ত্রীসহ করোনায় আক্রান্ত কাজী মারুফ
করোনায় নাকাল দুস্থদের মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ ইশরাকের
করোনা সন্দেহে মাদারীপুরে কলেজছাত্র আইসলেশনে
২০ হাজার পরিবারকে চাল-ডাল দেবেন মেয়র লিটন
করোনা আক্রান্ত ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে শেখ হাসিনার চিঠি